Categories
শিক্ষাঙ্গন

বেরোবি কর্মকর্তা বরখাস্ত, ‍‌‘অনৈতিক’ বলছে শিক্ষক সংগঠন

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) কলা অনুষদের সহকারী রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ আলীর বরখাস্তাদেশ প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের সংগঠন অধিকার সুরক্ষা পরিষদ। ৩ অক্টোবর শনিবার সংগঠনটির আহ্বায়ক মতিউর রহমান ও সদস্য সচিব খায়রুল কবির সুমন স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ দাবি জানান তারা।

এ বরখাস্তাদেশ সম্পূর্ণরূপে বিধিহীন, অনৈতিক, উদ্দেশ্য প্রণোদিত, হয়রানিমূলক এবং ক্ষমতার অপব্যবহার উল্লেখ করে বিবৃতিতে তারা বলেন- বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান প্রশাসন একের পর এক ক্ষমতার অপব্যবহারের মধ্য দিয়ে যে আইনের দুঃশাসন প্রতিষ্ঠা করে চলেছে এ সাময়িক বরখাস্তাদেশ তারই ধারাবাহিকতা। আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের এরূপ স্বেচ্ছাচারিতার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, পক্ষপাতমূলকভাবে কলা অনুষদের সহকারী রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ আলীকে অন্যায়ভাবে এবং অপ্রযোজ্য আইনের অপব্যবহার করে চাকরি থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করেন। নানা অন্যায়, অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে অভিযুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের এ ষড়যন্ত্র প্রমাণ করে বর্তমান প্রশাসন আইনের দুঃশাসন প্রতিষ্ঠা করে চলেছে।

বিবৃতিতে তারা আরও বলেন- মোহাম্মদ আলীকে যেসকল অভিযোগের প্রেক্ষিতে চাকরি থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে তা মিথ্যা, বানোয়াট এবং একটি দুষ্ট চক্রের উদ্দেশ্য প্রণোদিত কাজ। আমরা তার বিরুদ্ধে গৃহীত সাময়িক বরখাস্তাদেশ ঘৃণাভরে প্রত্যাখান করছি। একই সঙ্গে সাময়িক বরখাস্তাদেশ প্রত্যাহারের দাবি করছি এবং ষড়যন্ত্রকারী ও আইনের দুঃশাসন প্রতিষ্ঠাকারী দুষ্টচক্রের সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।

এদিকে, এ ঘটনায় তীব্র প্রতিবাদ ও তার এই হয়রানিমূলক বরখাস্ত প্রত্যাহারের জোর দাবি জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশন। একই সঙ্গে এই অভিযোগ মিথ্যা উল্লেখ্য করে রেজিস্ট্রারকে লিখিত দিয়েছেন শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও সাবেক প্রক্টর।

গত ২৪ সেপ্টম্বর জনসংযোগ দফতরের একটি আলমারি প্রকৌশল দফতরে রাখার অভিযোগে তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার। সেই আলমারিতে গোপনীয় কাগজপত্র রাখা হয়েছে এবং সেসব অন্য দফতরে রাখার দায়ে তার বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না তার ব্যাখ্যা জানতে চেয়ে তিন দিন সময় দেয়া হয়। নোটিশের জবাব সন্তোষজনক হয়নি উল্লেখ করে গত ৩০ সেপ্টেম্বর মোহাম্মদ আলীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
শিক্ষাঙ্গন

ছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু: বিক্ষোভে উত্তাল ইবি

সহপাঠীর রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটানার সুষ্ঠু তদন্ত ও জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়। ৩ অক্টোবর শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে তিন্নির সহপাঠী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

এসময় সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেছে শিক্ষার্থীরা। একই সঙ্গে বিচার না হলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন তারা।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ‘আমরা করোনা মহাসংকটে এক মর্মান্তিক বিষয় নিয়ে দাঁড়িয়েছি। আমাদের সবার ঘরেই মা-বোন আছে। আমার পরিবার নিরাপদ তো? যেদেশে নারী ক্ষমতায়নের কথা শুনি, সেদেশে আমার বোন নিরাপদ নয় কেন? এটা জাতির জন্য কলঙ্ক। তিন্নি হত্যায় জড়িতদের অতিদ্রুত আইনের আওতায় না আনলে আন্দোলন আরও কঠোর করা হবে।’

আরও পড়ুন: ইবি ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ: গ্রেফতার ৪

মানববন্ধনে সংহতি জানিয়েছে, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ, ছাত্রমৈত্রী, ছাত্র ইউনিয়ন, স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা এবং এলাকাবাসী।

এদিকে করোনার কারণে ক্যাম্পাস বন্ধ থাকায় বাড়ি থেকেই তিন্নি হত্যার বিচার চেয়ে সামাজিক যোগোযোগ মাধ্যমে সরব হয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

১ অক্টোবর মধ্যরাতে তিন্নির শয়ন কক্ষ থেকে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পরিবার। এর আগে তিন্নির বড় বোন মুন্নির সাবেক স্বামী জামিরুল তিন্নিদের বাড়িতে দুই দফা হামলা-ভাঙচুর ও তিন্নির ওপর পাশবিক নির্যাতন চালায়।

আরও পড়ুন: ইবি ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ ঘিরে রহস্য

পরিবার বলছে, ওই ছাত্রীর বড় বোনের সাবেক স্বামী দলবল নিয়ে দুই দফা বাড়িতে হামলা চালিয়ে নির্যাতনের পর ওই ছাত্রীকে হত্যা করেছে। এরপর ‘আত্মহত্যা’ বলে প্রচার চালাতে লাশ ফ্যানের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখে।

এ ঘটনায় আটজনকে আসামি করে ঝিনাইদহের শৈলকূপা থানায় একটি মামলা করেছে তিন্নির মা। ইতোমধ্যে চারজন আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
শিক্ষাঙ্গন

ইবি ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ: গ্রেফতার ৪

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) হিসাববিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগের শিক্ষার্থী উলফাত আরা তিন্নির ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় শৈলকূপা থানায় মামলা করা হয়েছে। ২ অক্টোবর শুক্রবার রাতে নিহত তিন্নির মা হালিমা বেগম বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে এ মামলা করেন।

মামলায় আটজনকে আসামি করা হয়েছে। এর মধ্যে চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। নিহত উলফাত আরা তিন্নি ক্যাম্পাস লাগোয়া শেখপাড়া গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা মৃত ইউসুফ আলীর মেয়ে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ১ অক্টোবর মধ্যরাতে বড় বোন মুন্নির সাবেক স্বামী জামিরুল তিন্নিদের বাড়িতে দুই দফা হামলা-ভাঙচুর ও তিন্নির ওপর পাশবিক নির্যাতন চালায়। এরপর রাত ১২টার দিকে ওই ছাত্রীর শয়ন কক্ষ থেকে ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পরিবার।

আরও পড়ুন: ইবি ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ ঘিরে রহস্য

পরিবার বলছে, ওই ছাত্রীর বড় বোনের সাবেক স্বামী দলবল নিয়ে দুই দফা বাড়িতে হামলা চালিয়ে নির্যাতনের পর ওই ছাত্রীকে হত্যা করেছে। এরপর ‘আত্মহত্যা’ বলে প্রচার চালাতে লাশ ফ্যানের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখা হয়।

শৈলকুপা থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) মহসিন হোসেন জানান, বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সদ্য পড়ালেখা শেষ করা মেধাবী ছাত্রী তিন্নির মৃত্যুতে আটজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ৫-৬ জনের নামে শৈলকুপা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করা হয়েছে। তিন্নির মা হালিমা বেগম বাদী হয়ে এ মামলা করেছেন।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে শেখপাড়া গ্রামের কনুর উদ্দিনের ছেলে আমিরুল, খলিল শেখের ছেলে নাইম ও লাবিবসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে। তবে মামলার প্রধান আসামি জামিরুল এখনও পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
শিক্ষাঙ্গন

ইবি ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ ঘিরে রহস্য

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) এক ছাত্রীকে হত্যার পর ‘‌আত্মহত্যা’ বলে প্রচারের অভিযোগ উঠেছে। ১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে ওই ছাত্রীর শয়ন কক্ষ থেকে ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পরিবার।

মারা যাওয়া ওই ছাত্রীর নাম উলফাত আরা তিন্নি (২৪)। তার বাড়ি ক্যাম্পাস পার্শ্ববর্তী শৈলকুপা উপজেলার শেখপাড়া গ্রামে। গ্রামের প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা ইউসুফ আলীর মেয়ে তিনি। উলফাত ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের ছাত্রী।

পরিবার বলছে, ওই ছাত্রীর বড় বোনের সাবেক স্বামী দলবল নিয়ে দুই দফা বাড়িতে হামলা চালিয়ে নির্যাতনের পর ওই ছাত্রীকে হত্যা করেছে। এরপর ‘আত্মহত্যা’ বলে প্রচার চালাতে লাশ ফ্যানের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখা হয়।

নিহতের চাচা হেলাল উদ্দিন জানান, তিন্নির বড় বোন মিন্নির একই গ্রামের নুরুদ্দীনের ছেলে শেখপাড়া বাজারের ব্যবসায়ী জামিরুল ইসলামের সঙ্গে বিয়ে হয়। সংসারে অশান্তি থাকায় প্রায় এক বছর হলো তাদের বিচ্ছেদ হয়েছে। বিচ্ছেদের কিছুদিন পরই জামিরুল তার স্ত্রীকে আবার ঘরে নিতে চান। কিন্তু মিন্নি এতে রাজি ছিলেন না। এ কারণে জামিরুল ইসলাম ওই পরিবারের ওপর অত্যাচার–নির্যাতন চালিয়ে আসছিল। বাড়িতে কোনো পুরুষ সদস্য না থাকায় পরিবারটি একপ্রকার অসহায় হয়ে পড়েছিল।

আরও পড়ুন: শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা ইবি কর্মচারীর

বৃহস্পতিবার রাতের ঘটনার বিষয়ে চাচা হেলাল উদ্দিন বলেন, বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে জামিরুল ইসলাম বেশ কয়েকজন নিয়ে তিন্নিদের বাড়িতে গিয়ে ভাঙচুর চালান। একপর্যায়ে তারা ফিরে যান। প্রায় দুই ঘণ্টা পর আবারও জামিরুলরা ওই বাড়িতে গিয়ে দোতলায় থাকা তিন্নির ঘরে প্রবেশ করেন। পরিবারের অন্য সদস্যরা প্রথমে বিষয়টি বুঝতে পারেননি। তারা তিন্নিকে একা পেয়ে নির্যাতন চালান। তারা তিন্নিকে ধর্ষণ করে হত্যা করেন। হত্যাকে আত্মহত্যা বলে চালানোর জন্যে ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে মরদেহ ঝুলিয়ে রেখে যান। কিন্তু তার পা খাটের সঙ্গে লাগানো ছিল।

হেলাল উদ্দিনের দাবি, এভাবে ঝুললে কেউ মারা যাবে না। তাকে হত্যার পর ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে।

বড় বোন মিন্নি বলেন, জামিরুল ইসলাম ও তার লোকজন দোতলায় উঠে তিন্নির সঙ্গে খারাপ কিছু করেছে। তারা সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখা অবস্থায় তিন্নিকে পেয়ে দ্রুত কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানকার চিকিৎসকেরা জানান, তাকে নিয়ে আসার আগেই মারা গেছেন।

তিনি অভিযোগ করেন, তার বোনকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

তিন্নির মা হালিমা বেগম বলেন, ‘আমার মেয়ে খুবই মেধাবী। বিসিএস পরীক্ষার জন্য প্রস্তুত নিচ্ছিল। ঘটনার দিন সে সন্ধ্যার দিকে কুষ্টিয়া থেকে এক বান্ধবীর বিয়ের অনুষ্ঠান সেরে বাড়ি ফেরার পথে জামিরুল ইসলাম তাকে হুমকি দেয়। সে তাকে ক্ষতি করবে বলে জানায়।’

তিনি দাবি করেন, তিন্নিকে পাশবিক নির্যাতনের পর হত্যা করা হয়েছে।

তিন্নিরা তিন বোন। তার বাবা ইউসুফ আলী ছিলেন সেনাসদস্য ও বীর মুক্তিযোদ্ধা। কয়েক বছর আগে তিনি মারা যান। তিন্নি বড় বোন আঁখির বিয়ে হয়েছে। মেজ বোন মিন্নির বিয়ে হয়েছিল গ্রামেই। সংসার না হওয়ায় বর্তমানে বাবার বাড়িতেই থাকেন। আর ছোট বোন তিন্নি পড়ালেখা করছিলেন। আশা ছিল, বিসিএস দিয়ে সরকারি বড় কর্মকর্তা হবেন।

কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক রুমন রহমান লাশের ময়নাতদন্ত করেন। তিনি সন্ধ্যায় বলেন, প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে আত্মহত্যা। তবে কিছু আলামত পাওয়া গেছে। সেগুলো সংগ্রহ করা হয়েছে। পরীক্ষা–নিরীক্ষা পর জানা যাবে আরও কোনো ঘটনা আছে কি না। ওই প্রতিবেদন পেলে বিস্তারিত জানাতে পারবেন।

বিষয়টি নিয়ে শৈলকুপা সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আরিফুল ইসলাম জানান, তিন্নির মৃত্যুটি এখনো রহস্যজনক। তার পরিবারে যে সমস্যা চলছিল, তা পুলিশকে আগে বলা হয়নি, জানলে এ–জাতীয় ঘটনা হয়তো ঘটত না।

তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার রাতের ঘটনাও প্রথমে পুলিশকে জানানো হয়নি, পরে তারা খবর পেয়ে সেখানে গেছেন। এখন তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। ডাক্তারি পরীক্ষার পর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে, কীভাবে তার মৃত্যু হয়েছে।

তিনি আরও জানান, ঘটনার আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে যারাই জড়িত থাক, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন: ইবির কলেজ শাখা চালু, ভর্তি কার্যক্রম শুরু

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
শিক্ষাঙ্গন

‘ঢাবিতে শিক্ষার্থীরা ১২ টাকায় পড়ে, ইটস অ্যামেজিং রেকর্ড’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান বলেছেন, এ বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৪০ হাজার। শিক্ষার্থীরা এখানে ১২ ও ১৫ টাকায় পড়াশোনা করেন। ইটস অ্যামেজিং, রেকর্ড। বিদেশি শিক্ষার্থীর অনুপাত ও বিদেশি শিক্ষকের অনুপাত কম হওয়ায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে পিছিয়ে রয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত ভার্চুয়াল আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন উপাচার্য৷

‘শতবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, এ আমার অহংকার-এখনই সময় দায় মোচনের’ শিরোনামে গত বুধবার সন্ধ্যায় এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে উপাচার্য বলেন, ‘ফরেন ডেলিগেটরা (বিদেশি প্রতিনিধি) এখানে এলে যখন উপাচার্যের সঙ্গে বৈঠক হয়, তখন আমি তাদের বলি আমাদের ৮৪টি বিভাগ, ১১টি ইনস্টিটিউট, প্রায় ৬০টি গবেষণাকেন্দ্র, ১৪০টি অধিভুক্ত ও উপাদানকল্প প্রতিষ্ঠান আছে। এগুলো শুনে তারা অবাক হয়ে যান। তারা বলেন, ‘ইটস আ হিউজ অ্যান্ড ম্যাসিভ ইউনিভার্সিটি।’ আমাদের ক্যাম্পাসের শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৪০ হাজার, শিক্ষার্থীরা ১২ টাকায়, ১৫ টাকায় পড়ে- ইটস অ্যামেজিং, রেকর্ড। এত শিক্ষকের বিদেশি ডিগ্রি আছে৷ এগুলো শুনে তারা (বিদেশি প্রতিনিধি) বলেন, ‌‌‘এগুলো তো তোমাদের ওয়েবসাইটে দেখি না’। ফলে তথ্যগুলো আপলোড-শেয়ারিং অত্যন্ত জরুরি। আমরা সেদিকে অ্যাটেনশন দিচ্ছি।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের র‌্যাঙ্কিং নিয়ে ড. আখতারুজ্জামান বলেন, ‘একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের র‌্যাঙ্কিংয়ের প্রয়োজন আছে। আমরা বিশ্বব্যাপী র‌্যাঙ্কিংয়ে ভালো অবস্থানে থাকলে এর একটি প্রভাব শিক্ষার্থীদের ওপর পড়ে। অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ে র‌্যাঙ্কিংয়ের জন্য বছরব্যাপী বাজেট থাকে। টাইমস হায়ার এডুকেশন, ইউএস র‌্যাঙ্কিংও আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে। অনেক সময় আমরা সেগুলো উপেক্ষা করতাম। এ কারণে এতদিন আমরা তথ্য দিইনি। আমরা বলতাম, র‌্যাঙ্কিংয়ে অংশগ্রহণ করব না। তবে কয়েক বছর ধরে আমরা র‌্যাঙ্কিংয়ে অংশগ্রহণ করছি, একটু একটু তথ্য দিচ্ছি। বিদেশি শিক্ষক ও শিক্ষার্থী কম থাকায় র‌্যাঙ্কিংয়ে ঢাবির অবস্থান পেছনে।’

তিনি আরও বলেন, ‘টিএসসি যখন নির্মাণ হয়েছিল, তখন শিক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল কম। এখন শিক্ষক ও শিক্ষার্থীর সংখ্যা বাড়ছে। কিন্তু টিএসসি আগের মতোই আছে। সেজন্যই প্রধানমন্ত্রী টিএসসির পুনর্বিন্যাসের জন্য আমাদের নির্দেশ দিয়েছেন। আমরা ইতোমধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টারপ্ল্যান চূড়ান্ত করেছি। প্রধানমন্ত্রী কিছুদিন পরই হয়তো সেটা দেখবেন।’

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
শিক্ষাঙ্গন সারাদেশ

এডওয়ার্ড কলেজের অধ্যাপক জাহেদীর মৃত্যু

পাবনা সরকারি এডওয়ার্ড কলেজের বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক মনোয়ার হোসেন জাহেদীর মৃত্যু হয়েছে (ইন্না… রাজিউন)। ১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭টায় পৌরসভার শালগাড়িয়ায় নিজ বাড়িতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

শিক্ষাবিদ অধ্যাপক শিবজিত নাগ জানান, সকাল সাড়ে ৭টার দিকে অধ্যাপক জাহেদী নিজ বাড়িতে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর।

আরও পড়ুন: ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ সরকারি এডওয়ার্ড কলেজ

এর আগে তিনি পাবনা মহিলা কলেজেরও উপাধ্যক্ষ ছিলেন। বহু গ্রন্থ রচনা করেছেন এই গবেষক। তিনি স্ত্রী, এক কন্যাসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

ভয়েস টিভি/এমএইচ

Categories
জাতীয় শিক্ষাঙ্গন

ফের বাড়লো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি

করোনা মহামারি পরিস্থিতিতে দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি আরও একমাস বাড়ানো হয়েছে বলে জানিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা আবুল খায়ের স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, করোনা পরিস্থিতির আশানুরূপ পরিবর্তন না হওয়ায় দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটি আগামী ৩১ অক্টোবর তারিখ পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়েছে।

দেশে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরুর পর গত ১৭ মার্চ থেকে কয়েক ধাপে আগামী ৩ অক্টোবর পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে।

এদিকে, একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীদের ক্লাস ৪ঠা অক্টোবর থেকে অনলাইনে শুরু হতে যাচ্ছে। কোভিড-১৯-এর কারণে স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সব কলেজে চিঠি পাঠিয়ে ক্লাস শুরুর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলেছে শিক্ষা বোর্ডগুলো।

গত ১লা এপ্রিল থেকে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা হওয়ার কথা থাকলেও করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে তা স্থগিত করা হয়। বর্তমান অবস্থায় এবার পঞ্চম ও অষ্টমের সমাপনী পরীক্ষা নেয়া হচ্ছে না।

ভয়েস টিভি/টিআর

Categories
জাতীয় শিক্ষাঙ্গন

শুরু হলো ‘ও’ এবং ‘এ’ লেভেলের পরীক্ষা

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দেয়া চারটি শর্তে রাজি হয়ে ব্রিটিশ কাউন্সিলের পরিচালনায় ইংরেজি মাধ্যমের শিক্ষার্থীদের ‘ও’ এবং ‘এ’ লেভেলের পরীক্ষা শুরু হয়েছে।

০১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া এ পরীক্ষা চলবে আগামী ২৩ অক্টোবর পর্যন্ত।  এতে ৫ হাজার ২০০ শিক্ষার্থী অংশ নেয়ার কথা রয়েছে।

গত ২৩ সেপ্টেম্বর এক বিবৃতিতে ব্রিটিশ কাউন্সিল জানিয়েছে, এ বছরের অক্টোবর-নভেম্বরে ২০২০ সেশনের ইন্টারন্যাশনাল জিসিএসই, আইজিসিএসই, ‘ও’ লেভেল এবং ‘এ’ লেভেল পর্যায়ের পরীক্ষা নির্ধারিত সময়সূচি অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হবে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, দেশে প্রায় ৫ হাজার ২০০ শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিতে জুলাই-আগস্টে রেজিস্ট্রেশন করেছে। সময়মতো এই পরীক্ষা দেয়া তাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য বাধ্যতামূলক ফেস মাস্ক পরিধান, পরীক্ষার্থীদের শারীরিক দূরত্ব, পরীক্ষাকেন্দ্র নিয়মিত পরিষ্কার, স্যানিটাইজেশনসহ ব্রিটিশ কাউন্সিলের সুরক্ষা প্রোটোকলগুলো ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, নারায়ণগঞ্জ ও খুলনার সব পরীক্ষা কেন্দ্রে মানা হবে।

এর আগে করোনার কারণে বিশ্বব্যাপী মে-জুন সেশনের পরীক্ষা না নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় ব্রিটিশ কাউন্সিল।

ব্রিটিশ কাউন্সিলের আবেদনের প্রেক্ষিতে গত ২৭ সেপ্টেম্বর শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ চার শর্তে  ‘ও’ এবং ‘এ’ লেভেলের পরীক্ষা নেয়ার অনুমতি দিয়। এতে ১ অক্টোবর থেকে ২৩ নভেম্বর পর্যন্ত পরীক্ষা গ্রহণের  সম্মতি দেয়া হল।

ভয়েসে টিভি/টিআর

Categories
শিক্ষাঙ্গন

স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসা জাতীয়করণ ঘোষণার দাবিতে মানববন্ধন

আগামী ৫ অক্টোবর বিশ্ব শিক্ষক দিবসে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসা জাতীয়করণের দাবিতে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা শিক্ষক সমিতি।

৩০ সেপ্টেম্বর বুধবার সকাল ১০টায় রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসা শিক্ষক সমিতি যেসব দাবি জানায়-

-প্রাইমারির ন্যায় সকল স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসা মুজিব বর্ষ ও বিশ্ব শিক্ষক দিবস উপলক্ষে মহাসমাবেশের মাধ্যমে জাতীয়করণের ঘোষণা।

-কোড বিহীন মাদরাসাগুলো বোর্ড থেকে কোড নম্বরে অন্তর্ভুক্তকরণ।

-স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসা নীতিমালা-২০১৮ সংশোধন করে আলিম শিক্ষক একজনের পরিবর্তে এইচএসসি পাশ একজন অন্তর্ভুক্তকরণ।

-প্রাইমারির ন্যায় স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসায় অফিস সহায়ক নিয়োগ।

-প্রাইমারির ন্যায় স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসার শিক্ষকদেরকে পিটিআই ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থাকরণ।

-প্রাইমারির ন্যায় স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসায় আসবাবপত্রসহ ভবন নির্মাণ।

-প্রাইমারির ন্যায় স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসার স্থায়ী রেজিস্ট্রেশনের ব্যবস্থাকরণ।

এছাড়া মানবন্ধনে কর্মসূচি ঘোষণা দিয়ে বলেন, বিশ্ব শিক্ষক দিবসে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসা জাতীয়করণের ঘোষণা না দিলে আগামী ১ অক্টোবর থেকে ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত বিভাগীয় সমাবেশ করবে। আর ১৫ নভেম্বর থেকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সারাদেশের সকল শিক্ষকদের নিয়ে দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত লাগাতর আন্দোলন চলবে।

মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন সমিতির সভাপতি মাও. হাফেজ কাজী ফয়জুর রহমান।

ভয়েসটিভি/এএস

Categories
জাতীয় শিক্ষাঙ্গন

এইচএসসির রুটিন আগামী সপ্তাহে

আগামী সপ্তাহে এইচএসসি-সমমান পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ করা হবে। পরীক্ষার প্রস্তুতি নেয়ার জন্য শিক্ষার্থীদের চার সপ্তাহ সময় দেয়া হবে। তবে কেউ বিশেষ কারণে পরীক্ষা দিতে না পারলে তার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা রাখা হবে।

৩০ সেপ্টেম্বর বুধবার সাংবাদিকদের সঙ্গে ভার্চুয়াল এক সভায় শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমন কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আগামী সপ্তাহের সোম-মঙ্গলবারের মধ্যে পরিকল্পনা ও তারিখসহ ঘোষণা (এইচএসসি পরীক্ষার বিষয়ে) করতে পারবো।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘পরীক্ষা না নিয়ে আগের পরীক্ষার মাধ্যমে মূল্যায়ন করে সার্টিফিকেট প্রদান করার প্রস্তাব করছেন অনেকে। এটিকেও আমরা গুরুত্ব দিচ্ছি, এটি একটি প্রস্তাব হতে পারে। তবে পরীক্ষা ছাড়া সার্টিফিকেট দিলে তারা যখন চাকরি নিতে যাবে তখন তাদের বলা হবে, ‘ও তোমরা ২০২০ সালের পরীক্ষা ছাড়া পাস করা ব্যাচ।’ এমন পরিস্থিতি তৈরি না করতে আমরা পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘কবে থেকে এইচএসসি-সমমান পরীক্ষা শুরু হবে তা আগামী সপ্তাহের সোমবার অথবা মঙ্গলবার সাংবাদিকদের কাছে তুলে ধরা হবে। পরীক্ষা আয়োজনে প্রশ্ন, উত্তরপত্র তৈরিসহ সকল প্রস্তুতি আমাদের রয়েছে। এখন শুধু পরীক্ষা শেষ করা বাকি রয়েছে।’

ভার্চুয়াল সভায় উপস্থিত ছিলেন- শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মাহাবুব হোসেন, কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খান, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক সৈয়দ গোলাম ফারুক

ভয়েস টিভি/এসএফ