Categories
শিক্ষাঙ্গন সারাদেশ

জাতির পিতার সমাধিতে বশেমুরবিপ্রবি’র নবনিযুক্ত ভিসির শ্রদ্ধা

গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) নবনিযুক্ত ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. এ কিউ এম মাহবুব।

৬ সেপ্টেম্বর রবিবার দুপুরে তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পন করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। পরে তিনি পবিত্র ফাতিহা পাঠ ও বঙ্গবন্ধুসহ ১৫ আগস্ট নিহত তার পরিবারের সদস্যদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া-মোনাজাত করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- বশেমুরবিপ্রবির রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. নুর উদ্দিন আহমেদ, প্রক্টর ড. মো. রাজিউর রহমান, বিশ্ববিদ্যালয়ের ইটিই বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. শাহজাহান, প্রকৌশলী এস.এস এস্কান্দার আলী ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ।

ভয়েসটিভি/এএস

Categories
শিক্ষাঙ্গন

শিক্ষার্থীদের অটো পাস নিয়ে এখনই ঘোষণা নয়

প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের এবার মূল্যায়ন ছাড়াই পরবর্তী ক্লাসে তুলে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব আকরাম-আল-হোসেন।

৬ সেপ্টেম্বর রোববার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে এ কথা বলেন তিনি। তবে এ বিষয়ে এখনই চূড়ান্ত ঘোষণা দেয়ার পক্ষপাতী নন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব বলেন, চলমান মহামারি করোনার কারণে যদি নভেম্বর মাসেও প্রাথমিক বিদ্যালয় না খোলে, তাহলে শিক্ষার্থীদের এবার মূল্যায়ন ছাড়াই পরবর্তী ক্লাসে তুলে দেওয়া হবে। অক্টোবর বা নভেম্বরে যদি স্কুল খোলা যায়, তাহলে আলাদা দুটি পরিকল্পনা করা আছে।

করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত প্রাথমিক শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ থাকবে বলেও জানান তিনি।

এদিকে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন বলেন, অটো পাসের খবর শুনে শিক্ষার্থীরা পড়াশোনা থেকে সরে আসতে পারে। তাই এখনই কোনো ঘোষণা আমরা দেবো না।

ভয়েস টিভি/টিআর

Categories
শিক্ষাঙ্গন

‘র‌্যাগ ডে’ নিষিদ্ধের সিদ্ধান্ত বাতিল, ঢাবির দুঃখ প্রকাশ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলে ‘র‌্যাগ ডে’ অনাকাঙ্ক্ষিত, অমানবিক, অসৌজন্যমূলক, শৃঙ্খলা-পরিপন্থী উল্লেখ করে গতকাল বুধবার নিষিদ্ধ করা হয়। এ সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তি সংবাদমাধ্যমেও পাঠানো হয়। এতে গণমাধ্যমসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তুমুল প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়।

৩ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার এ বিষয়ে নতুন করে আরও একটি বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতরের পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আগের বিজ্ঞপ্তিটি অসাবধানতাবশত পাঠানো হয়েছিল। তথ্যটি ভিন্নভাবে উত্থাপিত হয়েছে। এজন্য দুঃখ প্রকাশ করেছে কর্তৃপক্ষ।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মূলত অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত ছিল ‘র‌্যাগ ডে’ পালন নামে ক্যাম্পাসে বা আবাসিক হলে অনাকাঙ্ক্ষিত, অমানবিক, অসৌজন্যমূলক, শৃঙ্খলা-পরিপন্থী কোনও আচরণ যাতে সংঘটিত না হয়, সেজন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে সতর্ক নজর রাখতে বলা হয়েছিল। ‘শিক্ষা সমাপনী’, গ্র্যাজুয়েশন উৎসব পালনের লক্ষ্যে অনুষ্ঠান, উৎসব, বর্ণাঢ্য র‌্যালি ইত্যাদি আয়োজনের জন্য নীতিমালা প্রণয়নে একটি কমিটি গঠন করা হয়। প্রো-ভাইস চ্যান্সেলরকে (প্রশাসন) আহ্বায়ক করে পাঁচ সদস্যের কমিটিতে আছেন কলা অনুষদ, জীববিজ্ঞান অনুষদ, বিজনেস স্টাডিজ অনুষদ-এর ডিন। কমিটির সদস্য সচিব করা হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরকে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, ‘গতকালের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে অসাবধানবশত ভুল তথ্য উপস্থাপন করা হয়েছে। এজন্য জনসংযোগ কর্মকর্তা ক্ষমা চেয়েছেন। আমাদের অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলের সভায় র‌্যাগ-ডে বিষয়ে যে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে, তা পুনরায় সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো হয়েছে।’

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
শিক্ষাঙ্গন

‘র‌্যাগ ডে’ নয় র‌্যাগিং নিষিদ্ধ ঢাবিতে: উপাচার্য

র‌্যাগ ডে উৎসব নয়, র‌্যাগিং বন্ধে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছিলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। ২ সেপ্টেম্বর বুধবার ঢাবির বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাগিং এর বিষয়টি ভুলভাবে উপস্থাপিত হয়েছে। শিগগিরই সংশোধন করে প্রশাসন বিজ্ঞপ্তি দেবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান।

৩ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সকালে এ তথ্য জানান তিনি। তিনি বলেন, শিক্ষা সমাপনী অনুষ্ঠান বা গ্র্যাজুয়েশন অনুষ্ঠান বন্ধ হয়নি।

এর আগে, ‘র‌্যাগ ডে’ কে অমানবিক, নিষ্ঠুর ও নীতিবহির্ভূত উৎসব আখ্যায়িত করে তা নিষিদ্ধ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) কর্তৃপক্ষ। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে ২ সেপ্টেম্বর একাডেমিক কাউন্সিলের ভার্চুয়াল সভায় এ সিদ্ধান্ত হয় বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সভায় কথিত ‘র‌্যাগ ডে’ নামে অমানবিক, নিষ্ঠুর ও নীতিবহির্ভূত উৎসব আয়োজন নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এছাড়া স্বাস্থ্যবিধি মেনে সমন্বিতভাবে অসমাপ্ত সব পরীক্ষা গ্রহণ ও চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশের অনুমোদন দেয়া হয়।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
শিক্ষাঙ্গন

ঢাবিতে পরীক্ষার অনুমতি, খোলা হবে না হল

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) বিভাগগুলো স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা নিতে পারবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক পরিষদ পরীক্ষার অনুমতি দিয়ে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যে সব বিভাগের স্বল্প সংখ্যক পরীক্ষা নেয়া বাকি আছে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনা করে ওই পরীক্ষাগুলো নেয়ার অনুমতি দেয়া হয়। তবে আবাসিক হল খুলে দেয়া হবে না বলে জানা গেছে।

২ সেপ্টেম্বর বুধবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন অধ্যাপক আব্দুল মতিন চৌধুরী ভার্চুয়াল ক্লাসরুমে ভার্চুয়ালি একাডেমিক কাউন্সিলের এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

সভায় উপ-উপাচার্য চ্যান্সেলর (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগীয় চেয়ারম্যানবৃন্দ, ইনস্টিটিউটের পরিচালকবৃন্দসহ একাডেমিক পরিষদের তিন শতাধিক সদস্য সংযুক্ত ছিলেন।

ভার্চুয়াল সভায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে কথিত ’র‌্যাগ-ডে’ নামে অমানবিক, নিষ্ঠুর ও নীতিবহির্ভূত উৎসব আয়োজন নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। পশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি অনুষদ ’ইথিক্যাল রিভিউ কমিটি’ গঠন করার সুপারিশ করা হয়।

সভায় অনুষদ/বিভাগ/ইনস্টিটিউটকে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে সমন্বিতভাবে অসমাপ্ত পরীক্ষাসমূহ গ্রহণ ও চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশের অনুমোদন দেয়া হয়। এছাড়াও, বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষপূর্তি ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে মৌলিক গবেষণা প্রকল্প গ্রহণ ও গবেষণাধর্মী প্রকাশনার ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়।

উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুক কামাল বলেন, যে সব বিভাগে একটি বা দুটি পরীক্ষা নেয়া বাকি আছে। শিক্ষার্থীরা যদি বিভাগে আসতে সম্মতি জানায় তাহলে সে সব বিভাগ চাইলে তাদের অবশিষ্ট পরীক্ষা নিতে পারবেন। তবে এটা অনলাইনে নেয়া যাবে না।

পরীক্ষা দিতে আসা শিক্ষার্থীদের জন্য আবাসিক হলে থাকার সুযোগ থাকবে কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, আবাসিক হল খোলা হবে না।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
শিক্ষাঙ্গন

বশেমুরবিপ্রবি’র নতুন উপাচার্য অধ্যাপক মাহবুব

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) নতুন উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক ড. এ কিউ এম মাহবুব।

২ সেপ্টেম্বর বুধবার রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ বৃত্তি ও প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় শাখার যুগ্ম সচিব সৈয়দ আলী রেজা স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলরের অনুমোদনক্রমে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় আইন, ২০০১ এর ধারা ১০(১) অনুযায়ী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক ড. এ কিউ এম মাহবুবকে (অবসরপ্রাপ্ত) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য পদে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

বশেমুরবিপ্রবি’র উপাচার্য হিসেবে তার নিয়োগের মেয়াদ চার বছর হবে। পদের সমপরিমাণ বেতনভাতা ভোগ করবেন। পদ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য সুযোগসুবিধা ভোগ করবেন তিনি। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে সার্বক্ষণিক বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অবস্থান করতে হবে এবং রাষ্ট্রপতি মনে করলে নির্ধারিত সময় শেষ হওয়ার পূর্বেই তার নিয়োগ বাতিল করতে পারবেন বলেও আদেশে বলা হয়েছে।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের আন্দোলন ও ইউজিসির তদন্ত কমিটির সুপারিশের প্রেক্ষিতে পদত্যাগ করতে বাধ্য হন বশেমুরবিপ্রবি’র তৎকালীন উপাচার্য অধ্যাপক খোন্দকার নাসিরউদ্দিন। এরপর থেকে ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য দিয়েই চলছিল বিশ্ববিদ্যালয়টি। দীর্ঘ ১১ মাস পর স্থায়ী উপাচার্য পেল বশেমুরবিপ্রবি।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
শিক্ষাঙ্গন

ঢাবির নতুন কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মমতাজ উদ্দীন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কোষাধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের অধ্যাপক মমতাজ উদ্দীন আহমেদ।

২ সেপ্টেম্বর বুধবার রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ সরকারি সাধারণ বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব নীলিমা আফরোজ স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলরের অনুমোদনক্রমে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আদেশ ১৯৭৩ এর আর্টিকেল ১৪(১) অনুসারে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের অধ্যাপক মমতাজ উদ্দীন আহমেদকে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ পদে নিয়োগ করা হলো।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ পদটি শূন্য হয় গত ১১ জুলাই। এর ৫৩ দিন পর বুধবার (২ সেপ্টেম্বর) এ শূন্য পদে নিয়োগ দিলো সরকার।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
শিক্ষাঙ্গন

উপাচার্যের দাবিতে বশেমুরবিপ্রবি’র কর্মচারীদের কর্মবিরতি

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থায়ী উপাচার্য নিয়োগের দাবিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতি ঘোষণা করে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছে কর্মচারী সমিতি। ২ সেপ্টেম্বর বুধবার বেলা ১১টা থেকে প্রশাসনিক ভবনের নিচে এ অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন তারা।

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে বক্তারা বলেন, দীর্ঘ ১১ মাস ধরে ভারপ্রাপ্ত ভিসি বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালনা করছেন। এর ফলে কর্মচারীদের পদোন্নতি নীতিমালা সংশোধন, বেতন স্কেল অনুযায়ী ওভার টাইম নীতিমালা প্রণয়ন, কর্মচারীদের আবাসন শতভাগ বরাদ্দ নিশ্চিত, দৈনিক মজুরিভিত্তিক কর্মচারীদের বকেয়া বেতন পরিশোধ এবং কর্মচারীদের সকল ন্যায্য অধিকার প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হচ্ছে না। স্থায়ী ভিসি নিয়োগ না হওয়া পর্যন্ত তাদের এ অবস্থান কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন বক্তরা।

এ সময় কর্মচারী সমিতির সভাপতি তরিকুল ইসলাম, সহ-সভাপতি মো. সাগর হোসেন পলু, সাধারণ সম্পাদক বি এম আশিকুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুলতান ইসলাম, মো. মামুন মোল্লা এবং সাংগঠনিক সম্পাদক মো. ইমরান হোসেনসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

ভয়েস টিভি/এসএফ

 

Categories
শিক্ষাঙ্গন

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্থাপনের আগে অনুমোদন নিতে হবে: শিক্ষামন্ত্রী

ঢাকা: যত্রতত্র শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গড়ে ওঠা রোধ করতে প্রতিষ্ঠান স্থাপনের আগে অনুমোদন নিতে হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে এ আইন করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

৩১ আগস্ট সোমবার শিক্ষা বিষয়ক সাংবাদিকদের সংগঠন এডুকেশন রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ইরাব) আয়োজনে এক অনলাইন সেমিনারে এ কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী।

ডা. দীপু মনি বলেন, এখন থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্থাপন করলে অনুমোদন নিয়ে স্থাপন করতে হবে। অনেকে যত্রতত্র যেকোনো ভাবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্থাপন করেন। নানানভাবে চাপ প্রয়োগ করে অনুমোদন নেন। কেউ এমপিওভুক্তি চাইবে না এ শর্ত থেকে অনুমোদন দেয়া হলেও সবাই এমপিও চান। সরকারের আর্থিক সক্ষমতা বহুগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে কিন্তু তারপরও যদি প্রতিদিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হয় তবে সরকারের একমোডেট করার সাধ্য কতোটুকু আছে সেটাও বুঝতে হবে।

মন্ত্রী বলেন, কারিগরির প্রসারে প্রয়োজন মানোন্নয়ন। আমাদের দীর্ঘদিন শিক্ষক নিয়োগ হয়নি। সেই নিয়োগ দেওয়ার বড় উদ্যোগ নিয়েছি। শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দিতে হবে। মানসম্মত ল্যাব, ইকিউপমেন্ট এগুলো থাকতে হবে, তবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের একাডেমির লিংকেজ খুব জরুরি।

কারিগরি ডিপ্লোমা কোর্স নিয়ে অনেকেই অনেক কথা বলেন। কিন্তু আমাদের মডিউলার শিক্ষায় যেতেই হবে। কারণ আজকে একটা ডিগ্রি করে কাজে যাবো এরপর বারবার ডিগ্রি করতে আসার সুযোগ নেই। কাজেই ডিগ্রির কোর্সটাকে ভেঙে ভেঙে মডিউল করতে হবে। যার যে মডিউল প্রয়োজন সেটাতে সে শিক্ষার্থী হবে।

ভয়েস টিভি/টিআর/ডিএইচ

Categories
শিক্ষাঙ্গন

একাদশে ভর্তি: ২য় ধাপের আবেদন শুরু, চলবে বুধবার পর্যন্ত

ঢাকা: ৩১ আগস্ট সোমবার থেকে শুরু হয়েছে ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির ২য় ধাপের আবেদন কার্যক্রম। প্রথম ধাপে সিলেকশন না পাওয়া এবং আবেদন করতে না পারা শিক্ষার্থীরা এই ধাপে আবেদন করতে পারবেন বলে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটি জানিয়েছেন।

দ্বিতীয় পর্যায়ে আবেদন গ্রহণ চলবে ২ সেপ্টেম্বর রাত ৮টা পর্যন্ত। পছন্দক্রম অনুসারে প্রথম মাইগ্রেশনের ফল প্রকাশ হবে ৪ সেপ্টেম্বর রাত ৮টায়। আর দ্বিতীয় পর্যায়ের আবদনের ফল প্রকাশ হবে একই দিন (৪ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টায়।

দ্বিতীয় পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের সিলেকশন নিশ্চায়ন ৫ই সেপ্টেম্বর থেকে ৬ই সেপ্টেম্বর বিকেল ৫টা পর্যন্ত। শিক্ষার্থী সিলেকশন নিশ্চায়ন না করলে ২য় পর্যায়ের সিলেকশন এবং আবেদন বাতিল হবে।

করোনার কারণে অনিশ্চয়তার মুখে পড়া ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন শুরু হয় গত ৯ই আগস্ট। ১৫ই সেপ্টেম্বরের মধ্যে শেষ হবে ভর্তি কার্যক্রম।

তৃতীয় পর্যায়ের আবেদন গ্রহণ চলবে ৭ ও ৮ সেপ্টেম্বর। পছন্দক্রম অনুযায়ী ২য় মাইগ্রেশনের ফল এবং ৩য় পর্যায়ের আবেদনের ফল প্রকাশ হবে ১০ সেপ্টেম্বর রাত ৮টায়।

তৃতীয় পর্যায়ে শিক্ষার্থীর সিলেকশন নিশ্চায়ন করতে হবে ১১ সেপ্টেম্বর থেকে ১২ সেপ্টেম্বর রাত ৮টা পর্যন্ত। সিলেকশন নিশ্চায়ন না করলে আবেদন বাতিল বলে গণ্য হবে আর কলেজভিত্তিক চূড়ান্ত ফল প্রকাশ হবে ১৩ সেপ্টেম্বর সকাল ৮টায়।

এর আগে গত ২৫ আগস্ট রাতে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি বিষয়ে (http://www.xiclassadmission.gov.bd/) প্রথম ধাপের ফল প্রকাশ করা হয়।

সারাদেশে ৭ হাজার ৪৭৪টি সরকারি-বেসরকারি কলেজ মিলিয়ে একাদশ শ্রেণিতে ২৫ লাখ আসন রয়েছে। আর ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী রয়েছে ১৬ লাখ ৯০ হাজার ৫২৩ জন। ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীর চেয়ে আসন সংখ্যা বেশি থাকায় এ বছর আসন সংকট হবে না বলে জানায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

ভয়েস টিভি/টিআর