Categories
সারাদেশ

করোনায় খাদ্য সংকট ঠেকাতে পরশুরামে  চাষ হচ্ছে শাকসবজি

ফেনী প্রতিনিধি : করোনা পরিস্থিতিতে খাদ্য সংকট ঠেকাতে পরশুরামে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাবেক প্রটৌকল অফিসার আলাউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী নাসিম পরিবারের জমি ও নাসিম কলেজ মাঠে শাকসবজি চাষের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।
গত ৫ মে ফেনীর ডায়বেটিস হাসপাতালে ৫ শয্যার আইসিইউ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে টেলিকনফারেন্সে এ পরিকল্পনার কথা জানান তার  পরিবারের সদস্যরা। জানা গেছে, সালেহ উদ্দিন-হোসনে আরা চৌধুরী ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে করোনা সংকটে খাদ্য-দ্রব্যের যোগান অব্যাহত রাখতে কলেজ মাঠের ১৫ একর জমি এবং চৌধুরী পরিবারের আবাদযোগ্য সব জমিতে শাকসবজি চাষের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। কনফারেন্সে জানানো হয়, এতে মানুষের খাদ্য সংকট দুর হবে। পরশুরামসহ ফেনীবাসী উপকৃত হবে। এই উদ্যোগে উৎপাদিত হওয়া সব শাকসবজি ও কাঁচা পণ্য জেলাব্যাপী খাদ্য সংকটে পড়া জনগোষ্ঠীর ঘরে ঘরে পৌঁছে দেয়া হবে বলে জানান।
যুগোপযোগী এ পদক্ষেপ মাঠ পর্যায়ে বাস্তবায়নের জন্য পরশুরাম পৌরসভার মেয়র নিজাম উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী সাজেল কাজ শুরু করেছেন।
Categories
সারাদেশ

সোনাগাজীতে হত্যা মামলা আসামীকে গুলি ও অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার

ফেনী প্রতিনিধি : ফেনীর সোনাগাজীর মঙ্গলকান্দি ইউনিয়নের সমপুর এলাকা থেকে রোববার রাতে অস্ত্র, চাঁদাবাজি ও হত্যাসহ ৯ মামলার পলাতক আসামী সেরাজুল হক সবুজ প্রকাশ গুরা সবুজকে (৩২) ৪ রাউন্ড গুলি ২টি আগ্নেয়াস্ত্রসহ গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সোনাগাজী মডেল থানার ওসি সাজেদুল ইসলাম এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

Categories
সারাদেশ

নারায়ণগঞ্জে করোনায় মারা যাওয়া নারীর লাশ নেননি স্বজনরা

সংবাদাদতা, নারয়নগঞ্জ

মানবিকতা আর বন্ধন যেনো ক্রমেই করোনার কাছে হেরে যাচ্ছে । নিষ্ঠুর আর অমানিক হয়ে উঠছে করোনায় আক্রান্তদের অনেক স্বজনরা । ঘটছে সমালোচতি একের পর এক ঘটনা । বাড়ছে হতাশা আর আশঙ্কা ! এ যনো বন্ধন ছিন্ন করার লাগামহীন ঘোড়া ছুটে চলছে সমাজ ব্যবস্থায় !

নারায়ণগঞ্জে হাসপাতালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এক নারীর (৩৫) মৃত্যু হয়েছে। চাষাঢ়া এলাকার ওই নারীর লাশ স্বজনরা নিতে না আসায় স্থানীয় কাউন্সিলরের সহায়তায় সিটি করপোরেশন দাফনের ব্যবস্থা করে।

বন্দরের খানপুরে করোনা চিকিৎসার জন্য নির্ধারিত ৩০০ শয্যার হাসপাতাল সূত্র জানায়, করোনায় আক্রান্ত ওই নারী চার দিন আগে হাসপাতালে ভর্তি হন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার রাতে তার মৃত্যু হয়। রোববার দুপুর পর্যন্ত স্বজনরা নিতে না আসায় স্থানীয় কাউন্সিলরের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়। তিনি লাশটি দাফনের ব্যবস্থা করেন।

১২ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর শওকত হাশেম বলেন, ওই নারী করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান। এ কারণে ভয়ে স্বজনরা তার লাশ ফেলে চলে যান। রোববার বিকেলে খবর পেয়ে তার পরিবারের লোকজনদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করি। তারা কেউ লাশ নিতে রাজি না হওয়ায় পরে বিষয়টি সিটি করপোরেশনের মেয়রকে জানাই। তিনি লাশ বহনের গাড়ি ও লাশটি কবরস্থানে দাফনের ব্যবস্থা করেন। আমি স্থানীয় কাউন্সিলর হিসেবে হাসপাতাল থেকে লাশটি গ্রহণ ও দাফনের জন্য হস্তান্তর করেছি।’

Categories
বিশ্ব সারাদেশ

বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৪০ লাখ ছাড়াল

ভয়েস ডেস্ক : বিশ্বে মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্তের সংখ্যা ৪০ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। আর এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে প্রায় ২ লাখ ৮০ হাজার।

জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটির সেন্টার ফর সিস্টেম সায়েন্সেস অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের (সিএসএসই) তথ্য অনুযায়ী, রোববার সকাল পর্যন্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪০ লাখ ২৪ হাজার ৯ জন। এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৭৯ হাজার ৩১১ জনের। আর ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৩ লাখ ৭৫ হাজার ৬২৪ জন।

সিএসএসই’র তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে, ৭৮ হাজার ৭৯৫ জন। দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যাও বিশ্বে সর্বোচ্চ ১৩ লাখ ৯ হাজার ৫৫০ জন। মৃত্যুর সংখ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের পরেই রয়েছে ইউরোপের দেশ যুক্তরাজ্য। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ৩১ হাজার ৬৬২ জন। আক্রান্ত হয়েছে ২ লাখ ১৬ হাজার ৫২৫ জন। তৃতীয় অবস্থানে থাকা ইতালিতেও মৃতের সংখ্যা ৩০ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ৩০ হাজার ৩৯৫ জন। আর মোট আক্রান্ত হয়েছে ২ লাখ ১৮ হাজার ২৬৮ জন।

ইউরোপেরই অন্যান্য দেশগুলোর মধ্যে স্পেনে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ২৬ হাজার ৪৭৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। স্পেনে মৃতের সংখ্যা যুক্তরাজ্য ও ইতালির চেয়ে কম হলেও আক্রান্তের সংখ্যা বেশি। স্পেনে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ২ লাখ ২৩ হাজার ৫৭৮ জন। অন্যদিকে ফ্রান্সে এখন পর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা স্পেনের কাছাকাছি। দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ২৬ হাজার ৩১৩ জনের। আর আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ৭৬ হাজার ৭৮২ জন।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়া নভেল করোনাভাইরাস এখন পর্যন্ত বাংলাদেশসহ বিশ্বের ১৮৭টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। যে চীন থেকে করোনাভাইরাসের উৎপত্তি সেই চীনে এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিক হিসাবে মৃতের সংখ্যা যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপের কয়েকটি দেশ তুলনায় বেশ কম। এমনকি গত বেশ কয়েকদিনের মধ্যে দেশটিতে নতুন করে মৃত্যুর কোনো তথ্য নেই। রোববার সকাল পর্যন্ত দেশটিতে মৃত্যুর সংখ্যা আগের মতো ৪ হাজার ৬৩৭ জনেই স্থির রয়েছে। তবে দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন ১৪ জন রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হিসেবে দেশটিতে শনাক্ত হয়েছে ৮৩ হাজার ৯৯০ জন।

বাংলাদেশের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশে শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে ১৩ হাজার ৭৭০ জন। এদের মধ্যে ২১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২ হাজার ৪১৪ জন।

Categories
সারাদেশ

এলো না ছেলে মেয়ে, সৎকারের জন্য লাশ কাঁধে নিলেন ইউএনও

ভয়েস ডেস্ক: নড়াইলের কালিয়া উপজেলার বড়দিয়া গ্রামের করোনা উপসর্গ নিয়ে বিশ্বজিৎ রায় চৌধুরীর (৫০) এক ব্যক্তি মারা যায় ।শনিবার (৯ মে) গভীর রাতে ঘরের মধ্যে তার মৃতদেহ রেখে আত্মগোপন করেন স্ত্রী ও ছেলে-মেয়েসহ স্বজনরা । এ পরিস্থিতিতে কালিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাজমুল হুদা মরদেহ কাঁধে নিয়ে নিজেই ঘর থেকে বের করেন। পরে চিতায় উঠান এবং সৎকারের ব্যবস্থা করেন।

কালিয়ার বড়দিয়া গ্রামের নির্মল রায় চৌধুরীর ছেলে বিশ্বজিৎ রায় চৌধুরী ঢাকার একটি প্রতিষ্ঠানে সিকিউরিটি গার্ডের চাকুরি করতেন। ঢাকা থেকে কাশিসহ করোনা উপসর্গ নিয়ে দু’দিন আগে বাড়িতে আসেন। এরপর আলাদা রাখা হয় বিশ্বজিৎ রায় চৌধুরীকে। শনিবার রাতে তিনি মারা যান। রোববার সকালে বাড়ির লোকজন তার মৃত্যুর বিষয়টি টের পেলে কেউ কাছে যায়নি।

বিষয়টি এলাকায় ব্যাপক সমালচনা আর আলোচনা হচ্ছে। প্রশ্ন দেখা দিয়েছে, পারিবারিক বন্ধন কি হারিয়ে যাচ্ছে ক্রমাগত !

এ ব্যাপারে ঘটনাস্থলে উপস্থিত সাংবাদিকরা জানান, রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ওই বাড়িতে পৌঁছান তারা । এ সময় কালিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাও উপস্থিত ছিলেন। ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে তারা জানতে পারেন, বিশ্বজিৎ রায় চৌধুরীর মৃতদেহ ঘরের মধ্যেই পড়ে আছে। পরিবারের লোকজন কেউ কাছে যাচ্ছেন না। অনেক খোঁজাখুজি করেও তার (বিশ্বজিৎ) স্ত্রী ও সন্তানদের দেখা পাননি তারা। একপর্যায়ে কালিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজমুল হুদা মৃত ব্যক্তির ঘরে প্রবেশ করেন। সঙ্গে ছিলেন কালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক কাজল মল্লিক, সাংবাদিক ফসিয়ার রহমানসহ কয়েকজন। এ সময় মৃত ব্যক্তির শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এরপর কাঁধে করে বিশ্বজিৎ রায় চৌধুরীর মরদেহ ঘর থেকে বের করেন ইউএনও নাজমুল হুদা। এ কাজে সহযোগিতা করেন মৃত বিশ্বজিৎ রায় চৌধুরীর দুরসম্পর্কের এক নাতি ও সৎকারের জন্য ইউএনও’র উদ্যোগে আসা কালিয়ার মন্টু বৈরাগি। ভ্যানযোগে শ্মশানে আনার পর মৃতব্যক্তিকে চিতায়ও তোলেন ইউএনও।
অনেক পরে অবশ্য আত্মগোপন থেকে মৃত বিশ্বজিৎ রায় চৌধুরীর ছেলে এগিয়ে আসেন। তার বাবাকে দাহ করার সময় ছেলেটি উপস্থিত থাকলেও কোনো আত্মীয়-স্বজন ও প্রতিবেশিরা ছিলেন না। তার স্ত্রী ও অন্য সন্তানেরও (মেয়ে) দেখা পাওয়া যায়নি। রোববার দুপুরে চোরখালি শ্মশানে বিশ্বজিৎ রায় চৌধুরীকে দাহ করা হয়।

কালিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজমুল হুদা বলেন, ‘পরিবারের কেউ এগিয়ে না মৃতদেহ সৎকারের ব্যবস্থা করেছি।

Categories
চিকিৎসা সারাদেশ

যে বিকল্প পদ্ধতিতে সংগ্রহ করা যেতে পারে করোনার নমুনা

ড. জে আর ওয়াদুদ :

বর্তমানে যে পরিমাণ করোনা টেস্ট করা হচ্ছে তার মধ্যে প্রায় ১১ শতাংশ লোকেরই পজিটিভ রেজাল্ট আসছে। আগে এই টেস্টের জন্য নাক ও মুখ থেকে ২ টি নমুনা নেয়া হত। বর্তমানে শুধু নাক থেকেই নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। যদিও নাক থেকে ভালভাবে নমুনা সগ্রহ করাটা বেশ কঠিন।

কারণ নাকের শেষ প্রান্তে গিয়ে গলার পিছনের দেয়াল (Nasopharynx) থেকে এই নমুনা সংগ্রহ করতে হয়। কিন্তু তাতে দেখা যাচ্ছে এই নমুনা সংগ্রহের জন্য রোগীর নাকের মধ্যে স্টিক প্রবেশ করাতে হচ্ছে। যা নাকে প্রবেশের সাথে সাথেই রোগীর হাঁচি দিতে শুরু করেন। যার ফলে নাকের শেষ পর্যন্ত যাওয়া এবং সেখানে স্টিকের কটন সোক করার জন্য নুন্যতম ২ সেকেন্ড স্টিকটি ধরে রাখতে হয় যা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সম্ভব হয়ে উঠে না।

আবার যিনি নমুনা নিবেন তাকেও ভালোভাবে পারসোনাল প্রোটেকটিভ ইকুয়েপমেন্ট (পিপিই) পরতে হয় ইনফেকশন থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য। যে কারণে বিকল্প কি উপায়ে নমুনা সংগ্রহ করা যায় তা নিয়ে সারাবিশ্বেই চলছে গবেষণা।

সেই গবেষণা থেকেই দেখা যাচ্ছে, কফ (Sputum), লালা (Saliva) নিয়েও পরীক্ষা করে একদম সঠিক ফলাফল পাওয়া সম্ভব। কিছুক্ষেত্রে এমনও দেখা গেছে, Nasal Swab Negative Result আসার পরেও (ref- YALE SCHOOL PUBLIC HEALTH) একই রোগীর স্যালাইভা টেস্টেও পজেটিভ ফলাফল এসেছে।

স্যালাইভা নমুনা সংগ্রহ করা (Saliva Sample Collection) অত্যন্ত সহজ এবং স্বাস্থ্যকর্মীদেরকেও এই নমুনা সংগ্রহের (Sample collection) ক্ষেত্রেও ফুল পিপিই (পারসোনাল প্রটেকটিভ ইকুয়েপমেন্ট) পড়ার প্রয়োজন হয় না। প্রয়োজনে বাসা থেকেও রোগীরা নিজেই নুমনা সংগ্রহ (Sample collection) করে দিতে পারেন। জীবাণুমুক্ত পাত্রে (Sterile Container) সেটা সরবরাহ (Supply) করলে আর পরীক্ষা কেন্দ্রগুলোতে এসে দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে হবে না রোগীকে। নমুনা (sample) দিতে এসে আক্রান্ত হওয়ারও সম্ভাবনা কমে যাবে অনেকটাই।

উল্লেখ্য, এফডিএ (FDA- Food & Drug Administration) গত ১৩ এপ্রিল এই স্যালাইভা টেস্ট (Saliva Test) পদ্ধতির স্বীকৃতি প্রদান করে।

বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, অদূর ভবিষ্যতেও ইমার্জেন্সি ব্যাসিসে বেশি পরিমাণ টেস্ট করার স্বার্থে স্যালাইভা টেস্টই (Saliva Test) স্ট্যান্ডার্ড টেস্ট (Standard Test) হিসাবেই পরিগণিত হবে।

লেখক: ড. জে আর ওয়াদুদ, সিনিয়র কনসালটেন্ট ইব্রাহিম ডায়াবেটিক ফুটকেয়ার হাসপাতাল

Categories
ভ্রমণ সারাদেশ

ফেনীর বাঁশের কেল্লা নজর কেড়েছে সবার

ফেনী প্রতিনিধি : ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উত্তর ২৪ পরগনা জেলার নারকেলবাড়িয়া গ্রামে ব্রিটিশদের সঙ্গে লড়াই করতে বাঁশের কেল্লা বানিয়েছিলেন তিতুমীর। ইতিহাসের পাতায় লেখা তিতুমীরের বাঁশের কেল্লার কথা সবাই জানে। তবে ভ্রমণপ্রেমীদের অনেকের অজানা, ফেনী জেলার ছাগলনাইয়ার শুভপুরে পুরো বাঁশ দিয়ে তৈরি হয়েছে একটি কেল্লা! এটি একটি পর্যটন কেন্দ্র। শমসের গাজীর বাঁশের কেল্লা হিসেবে এর পরিচিতি আছে। নবাব সিরাজউদ্দৌলার সময়ের ত্রিপুরার রাজা শমসের গাজীর নামে রিসোর্টটির নামকরণ হয়।

শমসের গাজীর বাঁশের কেল্লা যেন নিবিড় পল্লীতে স্বপ্নের মতো নান্দনিক নির্মাণশৈলী। ঘরোয়া পরিবেশে থাকা-খাওয়া বা অবসরে ঘুরে বেড়ানো অথবা ছুটি কাটানোর জন্য এটি জুতসই। এখানে যেমন পিকনিক আয়োজন করা যায়, তেমনই বারবিকিউ পার্টি করার সুয়োগ রয়েছে। এছাড়া আছে পাঠকক্ষ, মেহমানখানা ও চা কর্নার।

প্রায় ৫ একর জমির ওপর গড়ে তোলা শমসের গাজীর বাঁশের কেল্লায় ঢুকতেই চোখে পড়বে ‘ঐকতান’ নামের একটি ঢোলক, তবলা, হারমোনি ও একতারার ভাস্কর্য। ভেতরেও বাংলার লোকসংস্কৃতির বিভিন্ন উপকরণ রাখা হয়েছে। সাহিত্য আড্ডা কিংবা যেকোনও মুক্ত অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্য রিসোর্টের বাইরে রয়েছে শৈল্পিক আবহ। বাগানের পাশের খোলা আঙিনার ধারে বাঁশের মাচায় পার্বত্য জেলার ঐতিহ্যবাহী পাহাড়ি ঘরের ছোঁয়া মিলবে।

রিসোর্টের ফলগাছের বাগানে রয়েছে বসার ছোট ছোট বেঞ্চ। রিসোর্ট ঘুরে ক্লান্তি এলে বসে কিছুক্ষণ বিশ্রাম নেয়া যাবে। অন্যপাশে লেকের পানিতে ঘুরে বেড়ানোর জন্য রয়েছে আসন পাতা নৌকা। বৈঠা দিয়ে এটি চালাতে হয়।

পর্যটন কেন্দ্রটি থাইল্যান্ড ও জাপানের বিভিন্ন শৈল্পিক রেস্ট হাউসের আদলে নির্মাণ করা হয়েছে। এর নকশা করেছেন কানাডার লুই ইউনিভার্সিটির স্থাপত্য প্রকৌশলী সুরাননা। এশিয়া অঞ্চলের প্রকৃতির ওপর নির্ভর করেই তিনি এটি ডিজাইন করেছেন।

রিসোর্টটি তৈরির জন্য টাঙ্গাইলের মধুপুর ও পার্বত্য এলাকা থেকে বিভিন্ন ধরনের বাঁশ সংগ্রহ করা হয়। বড় আকারের বাঁশগুলো মধুপুর আর ছোট আকৃতির বাঁশ (মুলি বাঁশ) খাগড়াছড়ির পার্বত্য অঞ্চল থেকে আনা হয়েছিল।

বাঁশের কেল্লায় ছুটির দিনে একসঙ্গে প্রায় ২০০-৩০০ ভ্রমণপ্রেমী ঘুরতে পারবেন। পারিবারিক আবহে কাটবে দিনরাত। গরমেও আরাম-আয়েশে থাকা যাবে। সবসময় শীতল থাকা পাঁচ কক্ষের রিসোর্টটির সিঙ্গেল বেডের ভাড়া ৩০০০ থেকে ৩৫০০ টাকা। আর ডাবল বেড ৭০০০ টাকা। রিসোর্টের ভেতরে প্রবেশে অনাবাসিকদের খরচ হবে মাত্র ২০ টাকা। পর্যটকদের খাবারের জন্য রয়েছে ঘরোয়া পরিবেশের ক্যান্টিন।

Categories
সারাদেশ

কোম্পানীগঞ্জে চোর সন্দেহে এক যুবককে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা

নোয়াখালী প্রতিনিধি:নোয়াখালী কোম্পানীগঞ্জ এক যুবককে চোর সন্দেহে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। শনিবার রাত দশটার দিকে উপজেলার চর এলাহী ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের গাঙচিল এলাকার হাশেম বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

পরে খবর পেয়ে পুলিশ মুমূর্ষ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে অবস্থার অবনতি হওয়ায় রাশেদকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করে চিকিৎসকরা। সেখানে নেওয়ার পথে রাত ২টার দিকে তার মৃত্যু হয়। নিহত রাশেদ (৩৫), একই ওয়ার্ডের হাসেম বাজার এলাকার আবুল হাসেম এর ছেলে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রবিউল হক এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান নিহত রাশেদকে স্থানীয় এলাকাবাসী চোর সন্দেহে আটক করে স্থানীয় হাশেম বাজারে তাকে গণপিটুনি দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উন্নত চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। নিহতের মরদেহ নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। অভিযোগ পেলে পুলিশ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

Categories
সারাদেশ

বিশ্ব মা দিবস

ভয়েস ডেস্ক: বিশ্বে সবচেয়ে মধুর শব্দের নাম মা’।সুখে-দুঃখে প্রতিটি সময় মায়া স্নেহ ভালোবাসায় যিনি জড়িয়ে রাখেন, তিনিই মা। বিশ্ব মা দিবস আজ।

প্রতি বছর মে মাসের দ্বিতীয় রোববার বিশ্ব মা দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে। যদিও মাকে ভালোবাসা-শ্রদ্ধা জানানোর কোন দিনক্ষণ ঠিক করে হয় না। তবুও মাকে গভীর মমতায় স্মরণ করার দিন আজ।

প্রাচীন গ্রিসে বিশ্ব মা দিবসের পালন করা হলেও আধুনিককালে এর প্রবর্তন করেন এক মার্কিন নারী। ১৯০৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রের আনা জারভিস নামের নারী মারা গেলে তার মেয়ে আনা মারিয়া রিভস জারভিস মায়ের কাজকে স্মরণীয় করে রাখার জন্য সচেষ্ট হন। ওই বছর তিনি তার সান ডে স্কুলে প্রথম এ দিনটি মাতৃদিবস হিসেবে পালন করেন। ১৯০৭ সালের এক রোববার আনা মারিয়া স্কুলের বক্তব্যে মায়ের জন্য একটি দিবসের গুরুত্ব ব্যাখ্যা করেন।

১৯১৪ সালের ৮ মে মার্কিন কংগ্রেস মে মাসের দ্বিতীয় রোববারকে মা দিবস হিসেবে ঘোষণা করে। এভাবেই শুরু হয় মা দিবসের যাত্রা। এরই ধারাবাহিকতায় আমেরিকার পাশাপাশি মা দিবস এখন বাংলাদেশসহ অস্ট্রেলিয়া, ব্রাজিল, কানাডা, চীন, রাশিয়া ও জার্মানসহ শতাধিক দেশে মর্যাদার সঙ্গে দিবসটি পালিত হচ্ছে। যদিও করোনার কারণে এবার দিবসটিতে কোন আনুষ্ঠানিকতা দেখা যাবে না। তাই বলে ঘরে ঘরে মায়ের ভালবাসা কুড়াতে কার্পণ্য করবে না, কোন সন্তান।

Categories
সারাদেশ

পাবনায় ছুরিকাঘাতে কলেজ ছাত্র নিহত

পাবনা প্রতিনিধি: পাবনা পৌর এলাকায় দূর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে জুয়েল রানা আকাশ নামের এক কলেজ ছাত্র নিহত হয়েছে।
পুলিশ জানায়, শনিবার সকাল দশটার দিকে একটি ফোন পেয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি জুয়েল।পুলিশ গোপনে খবর পেয়ে দুপুরে সাধুপাড়া স্লুইসগেটের পাশের কলাবাগান থেকে ক্ষত বিক্ষত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকেলেতার মৃত্যু হয়।
পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, কি কারণে, কারা জুয়েলকে হত্যা করেছে তা এখনও জানা যায়নি। নিহত জুয়েল পাবনা পৌর এলাকার মন্ডলপাড়া মহল্লার সুজন মিয়ার ছেলে। তিনি পাবনা টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্র।