Categories
অপরাধ জাতীয়

মুচলেকায় জামিন পেলেন নাসির-তামিমা

ডিভোর্স না নেওয়া, ‘অন্যের স্ত্রীকে প্রলুব্ধ করে বিয়ে করা’, ‘ব্যবিচার’ ও ‘মানহানি’র অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় জামিন পেয়েছেন ক্রিকেটার নাসির হোসেন, তার স্ত্রী কেবিন ক্রু তামিমা সুলতানা তাম্মি ও তামিমার মা সুমি আক্তার।

ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ জসীমের আদালতে আসামিরা আত্মসমর্পণ করে জামিনের জন্য আবেদন করেন। অপরদিকে বাদী পক্ষের আইনজীবী জামিন বাতিলের জন্য আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত আসামিদের প্রত্যেকের ১০ হাজার টাকা মুচলেকা নিয়ে জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন।

এর আগে গত ৩০ সেপ্টেম্বর ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ জসীমের আদালতে আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা আবেদন মঞ্জুর করেন আদালত। একই সাথে নাসির, তামিমা ও সুমি আক্তারকে আজকের দিনের ৩১ অক্টোবরের মধ্যে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তার পরিপ্রেক্ষিতে আসামিরা আদালতে হাজির হয়ে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন।

এর আগে ৩০ সেপ্টেম্বর ক্রিকেটার নাসির হোসেন, তার স্ত্রী তামিমা সুলতানা ও মা সুমি আক্তারসহ তিনজনকে দোষী সাব্যস্ত করে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআইয়ের মিজানুর রহমান ৩১ অক্টোবর আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়ে সমন জারি করা হয়।

প্রতিবেদনে পিবিআইয়ের মিজানুর রহমান উল্লেখ করেন,  নাসির হোসেন ও তামিমা সুলতানার বিয়ে বৈধ উপায়ে হয়নি। তামিমা ও রাকিব হাসানের বিবাহ বিচ্ছেদ সংক্রান্ত নথি জালিয়াতির মাধ্যমে তৈরি করা হয়েছে। রাকিব হাসানকে ডিভোর্স না দিয়েই তাম্মি ক্রিকেটার নাসিরকে বিয়ে করেন।

এর আগে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ জসীমের আদালতে তাম্মির সাবেক স্বামী মো. রাকিব হাসান মামলাটি দায়ের করেন। পরে আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে নথি পর্যালোচনা শেষে মামলাটি পিবিআইকে তদন্ত করার নির্দেশ দেন।

মামলার এজহারে উল্লেখ করা হয়েছে, ২০১১ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি তাম্মি ও রাকিবের বিয়ে হয়। তাদের ৮ বছরের একটি কন্যাও রয়েছে। তাম্মি পেশায় একজন কেবিন ক্রু। চলতি বছরের ১৪ ফেব্রুয়ারি তাম্মি ও ক্রিকেটার নাসির হোসেনের বিয়ের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়িলে তা রাকিবের নজরে আসে। পরে পত্র-পত্রিকায় তিনি ঘটনার বিষয়ে সম্পূর্ণ জেনেছেন।

মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে, রাকিবের সাথে বৈবাহিক সম্পর্ক চলমান অবস্থাতেই তাম্মি নাসিরকে বিয়ে করেছেন; যা ধর্মীয় এবং রাষ্ট্রীয় আইন অনুযায়ী সম্পূর্ণ অবৈধ। নাসির তাম্মিকে প্রলুব্ধ করে নিজের কাছে নিয়ে গেছেন।

আরও বলা হয়েছে, ‘তাম্মি ও নাসিরের এমন অনৈতিক ও অবৈধ সম্পর্কের কারণে রাকিব ও তার আট বছর বয়সী শিশু কন্যা মারাত্মভাবে মানসিক বিপর্যস্ত হয়েছেন। আসামিদের এহেন কার্যকলাপে রাকিবের চরমভাবে মানহানি হয়েছে; যা তার জন্য অপূরণীয় ক্ষতি।’

ভয়েসটিভি/এমএম

Categories
অপরাধ

আদিয়ান মার্টের সিইওসহ গ্রেফতার ৪

গ্রাহকের টাকা আত্মসাৎ মামলায় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আদিয়ান মার্টের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) জুবাইর সিদ্দিকীসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব। ২৯ অক্টোবর শুক্রবার ১২টার দিকে খুলনা ও চুয়াডাঙ্গা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে বিকেল থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত আদিয়ান মার্টের প্রধান কার্যালয়ে অভিযান চালায় র‍্যাব। শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে ঝিনাইদহ (সিপিসি২) র‍্যাব-৬ এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর মোহাম্মদ শরিফুল আহসান এ তথ্য জানায়।

গ্রেফতাররা হলেন- আদিয়ান মার্টের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) জুবাইর সিদ্দিকী ওরফে মানিক, তার ছোট ভাই মাহমুদ সিদ্দিকী ওরফে রতন ও বাবা আবু বকর সিদ্দিক এবং ম্যানেজার মিনারুল ইসলাম।

র‍্যাব-৬ এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর মোহাম্মদ শরিফুল আহসান বলেন, ২৯ অক্টোবর শুক্রবার রাত ১২টা ১০ মিনিটের দিকে র‍্যাব-৬ এর (গাংনী) একটি চৌকস দল খুলনা ও চুয়াডাঙ্গা থেকে তাদের গ্রেফতার করে।

ভয়েসটিভি/এএস

Categories
অপরাধ জাতীয়

বনানীর রেইনট্রিতে ধর্ষণ : সাফাতসহ ৫ জনের মামলার রায় আজ

রাজধানীর বনানীতে দ্য রেইনট্রি হোটেলে জন্মদিনের পার্টিতে দুই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের ঘটনায় আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদের ছেলে সাফাত আহমেদসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে করা মামলার রায় আজ। বুধবার ২৭ অক্টোবর এ মামলার রায় ঘোষণা করবেন ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৭ এর বিচারক মোসাম্মৎ কামরুন্নাহার।

এই মামলার আসামিরা হলেন- আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদের ছেলে সাফাত আহমেদ, তার বন্ধু সাদমান সাকিফ, দেহরক্ষী রহমত আলী ও গাড়িচালক বিল্লাল হোসেন এবং নাঈম আশরাফ ওরফে এইচ এম হালিম।

এর আগে মামলার রায় গত ১২ অক্টোবর ঘোষণার জন্য দিন ধার্য ছিল। কিন্তু বিচারক অসুস্থ থাকায় রায় পিছিয়ে ২৭ অক্টোবর ধার্য করেন ট্রাইব্যুনাল।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২৮ মার্চ রাত ৯টা থেকে পরদিন সকাল ১০টা পর্যন্ত হোটেলে জন্মদিনের পার্টিতে দুই শিক্ষার্থীকে একাধিকবার ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ওই বছরের ৬ মে সাফাতসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে বনানী থানায় ধর্ষণ মামলা হয়।

মামলার তদন্ত শেষে ২০১৭ সালের ৭ জুন তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের উইমেন সাপোর্ট অ্যান্ড ইনভেস্টিগেশন ডিভিশনের (ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টার) পরিদর্শক ইসমত আরা এমি ৫ আসামির বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

একই বছরের ১৯ জুন একই ট্রাইব্যুনাল আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র গ্রহণ করেন। ওই বছরের ১৩ জুলাই ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক শফিউল আজম পাঁচ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচারের আদেশ দেন।

অভিযোগপত্রে আসামি সাফাত আহমেদ ও নাঈম আশরাফ ওরফে এইচ এম হালিমের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯(১) ধারায় ধর্ষণের অভিযোগ করা হয়। মামলার অন্য তিন আসামি সাদমান সাকিফ, আলী ও বিল্লাল হোসেনের বিরুদ্ধেও একই আইনের ৩০ ধারায় ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগ আনা হয়।

ভয়েসটিভি/এমএম

Categories
অপরাধ সারাদেশ

কাপ্তাইয়ে নির্বাচনী সংঘাতে প্রাণ গেল ইউপি সদস্যের

পার্বত্য জেলা রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দশ দিনের ব্যবধানে আবারও প্রাণহানি ঘটেছে।
মঙ্গলবার রাতে কাপ্তাই ইউনিয়নের নতুন বাজার এলাকায় আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে ১ জন নিহত এবং ৩ জন আহত হয়েছেন বলে নতুন বাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ শাহীনুর রহমান নিশ্চিত করেন।

নিহত সজিবুর রহমান আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন স্বেচ্ছাসেবক লীগের জেলা কমিটির সদস্য। কাপ্তাই ইউনিয়ন পরিষদের ৫ নং ওয়ার্ডের সদস্য তিনি।

স্থানীয়রা জানান, ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল লতিফ বরাবরের মত দল থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন। নিহত সজিব তারই সমর্থক।

আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন পাটোয়ারী বাদল দল থেকে মনোনয়ন না পাওয়ায় কাপ্তাই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন।

মঙ্গলবার রাতে নতুন বাজার এলাকায় দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে কথা কাটাকাটি থেকে একপর্যায় সংঘর্ষ শুরু হয়। সংঘর্ষের সময় ভারী কিছু দিয়ে মাথায় আঘাত করা হলে গুরুতর আহত হন সজিবুর রহমান ওরফে সজিব মেম্বার। পরে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য কপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক ওমর ফারুক বলেন, ‘রাতে আহত আবস্থায় ৪ জনকে হাসপাতালে আনা হয়। তাদের মধ্যে কাপ্তাই ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের মেম্বার সজিবুর রহমান মারা গেছেন। বাকি ৩ জনের চিকিৎসা চলছে।’

ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ এ ঘটনার জন্য প্রশাসনকে দায়ী করে বলেন, ‘নির্বাচনী প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার পর থেকেই প্রশাসনকে সতর্ক করা হয়েছি। কিন্তু তারা কোনো ব্যবস্থা না নেওয়ায় এটা ঘটল। এটা পূর্ব পরিকল্পিত। আমি অবিলম্বে এর সাথে জড়িতদের গ্রেফতার ও বিচার চাই।’

এ বিষয়ে প্রশ্ন করলে পুলিশের কাপ্তাই সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রওশন আরা রব বলেন, ‘বাজারে চায়ের দোকানে বসাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের হাতাহাতি থেকে মারিমারির ঘটনা ঘটে। পরে সজিবুর রহমান নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। ওই ঘটনায় চারজনকে পুলিশ আটক করেছে। বর্তমানে পরিস্থিতি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে আছে।’

এর আগে গত ১৭ অক্টোবর কাপ্তাই উপজেলার চিৎমরম ইউনিয়নের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী নেথোয়াই মারমাকে তার নিজের বাসায় গুলি করে হত্যা করে একদল সশস্ত্র লোক।

ওই ঘটনার পর চিৎমরম ইউনিয়নের নির্বাচন পিছিয়ে ২৮ নভেম্বর তারিখ ঠিক করে নির্বাচন কমিশন। কাপ্তাইয়ের বাকি তিন ইউনিয়নের নির্বাচন আগামী ১১ নভেম্বর হওয়ার কথা রয়েছে।

আরও পড়ুন : কাপ্তাইয়ে নৌকার প্রার্থীকে গুলি করে হত্যা

ভয়েসটিভি/এমএম

Categories
অপরাধ

ঢাকায় মাদকবিরোধী অভিযান, আটক ৫৯

ঢাকায় মাদকবিরোধী অভিযানে বিক্রি ও সেবনের অপরাধে ৫৯ জনকে আটক করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)।

২৪ অক্টোবর রোববার সকাল ৬টা থেকে ২৫ অক্টোবর সোমবার সকাল ৬টা পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) হাফিজ আল আসাদ জানান, আটকের সময় তাদের কাছ থেকে ২৬০ গ্রাম ১১ পুরিয়া হেরোইন, ৪ হাজার ৭০২ পিস ইয়াবা, ৪ কেজি ৮৩৬ গ্রাম ৩৫ পুরিয়া গাঁজা ও ৪ লিটার দেশি মদ জব্দ করা হয়।

তিনি জানান, আসামিদের বিরুদ্ধে ডিএমপির থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৫১ টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ভয়েসটিভি/এএস

Categories
অপরাধ জাতীয়

রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যা: ‘কিলিং স্কোয়াড’-এর সদস্য গ্রেফতার

রোহিঙ্গা নেতা ও আরাকান রোহিঙ্গা সোসাইটি ফর পিস অ্যান্ড হিউম্যান রাইটসের (এআরএসপিএইচ) চেয়ারম্যান মুহিবুল্লাহ হত্যার ‘কিলিং স্কোয়াড’-এর এক সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ১৪ এপিবিএন।

সকালে ১৪ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) অধিনায়ক এসপি নাইমুল হক বিষয়টি উল্লেখ করে এক খুদে বার্তায় বলেছেন, এ বিষয়ে দুপুরে ব্রিফিং করে বিস্তারিত জানানো হবে। রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ১৪ এপিবিএন কার্যালয়ে এ ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান তিনি।

গত ২৯ সেপ্টেম্বর রাত ৯টার দিকে বন্দুকধারীরা মুহিবুল্লাহকে গুলি করে হত্যা করে। এ ঘটনায় তার ছোট ভাই হাবিবুল্লাহ অজ্ঞাত ১৫-২০ জনকে আসামি করে উখিয়া থানায় হত্যা মামলা করেন। মামলায় এ পর্যন্ত পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদের মধ্যে একজন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দিয়েছেন।

২০১৯ সালের ২৫ আগস্ট উখিয়ার কুতুপালং শিবিরের ফুটবল মাঠে গণহত্যাবিরোধী মহাসমাবেশ হয়েছিল। তাতে কয়েক লাখ রোহিঙ্গা অংশ নিয়েছিলেন। সেই সমাবেশ সংগঠিত করেছিলেন মুহিবুল্লাহ। ৪৮ বছর বয়সী মুহিবুল্লাহকে রোহিঙ্গারা ‘মাস্টার মুহিবুল্লাহ’ বলে ডাকতেন।

আরও পড়ুন : ক্যাম্পে দুর্বৃত্তদের গুলিতে রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ নিহত

ভয়েসটিভি/এমএম

Categories
অপরাধ

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৪৭

রাজধানীতে বিভিন্ন এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযানে বিক্রি ও সেবনের অপরাধে ৪৭ জনকে আটক করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)।

১৮ অক্টোবর সোমবার সকাল ছয়টা থেকে ১৯ অক্টোবর মঙ্গলবার সকাল ছয়টা পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) হাফিজ আল আসাদ জানান, তাদের কাছ থেকে ১ হাজার৮৪১ পিস ইয়াবা, ১০ ক্যান বিয়ার, ৪০৯ গ্রাম ৯০৫ পুরিয়া হেরোইন, ২০০ বোতল ফেনসিডিল ও ৪৪ কেজি ২২৫ গ্রাম গাঁজা জব্দ করা হয়।

আসামিদের বিরুদ্ধে ডিএমপির থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৪০টি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

ভয়েসটিভি/এএস

Categories
অপরাধ

ফেসবুকে পোস্ট দেয়া পীরগঞ্জের সেই যুবক গ্রেফতার

রংপুরের পীরগঞ্জে ইসলাম ধর্ম অবমাননা করে সামািজক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট দেয়ার অভিযোগে পরিতোষ সরকার নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হয়েছে।

১৮ অক্টোবর সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে রংপুর জেলা পুলিশের একটি দল জয়পুরহাট জেলা থেকে তাকে গ্রেফতার করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে রংপুরের সহকারী পুলিশ সুপার (পীরগঞ্জ-মিঠাপুকুর সার্কেল) মো. কামরুজ্জামান বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট দেওয়ার ঘটনায় উত্তেজনা সৃষ্টির পর বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে ছিল পরিতোষ সরকার। সোমবার রাতে জয়পুরহাট জেলা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হয়েছে।

এছাড়াও হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় আরেকটি মামলা করা হয়েছে। ওই মামলায় বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ৪২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত অন্যদেরও গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পীরগঞ্জের রামনাথপুর ইউনিয়নের মাঝিপাড়ার পরিতোষ সরকার নামে এক যুবক ইসলাম ধর্ম অবমাননা করে ফেসবুকে ছবি পোস্ট বা কমেন্ট করেছেন- এমন অভিযোগে ১৭ অক্টোবর রোববার বিকেলে ওই যুবকের বাড়ি ঘিরে ফেলে উত্তেজিত জনতা। একপর্যায়ে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে পুরো এলাকায়। এরপর ভয়ে ওই যুবক সপরিবারে পালিয়ে যান। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে গিয়ে ওই যুবকের বাড়িতে নিরাপত্তা জোরদার করে। কিন্তু ওই যুবকের বাড়ি থেকে আধা কিলোমিটার দূরে বেশ কিছু হিন্দুদের বাড়িঘর ও দোকানপাটে আগুন দেয় দুর্বৃত্তরা।

রংপুরের পুলিশ সুপার বিপ্লব কুমার সরকার বলেন, হামলাকারীদের কোনো ছাড় নেই। ক্ষতিগ্রস্তদের কাছ থেকে অনেকের নাম পরিচয় পেয়েছি। আমরা সব কিছু খতিয়ে দেখছি। যারা এই ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে তাদের প্রত্যেককে আইনের আওতায় আনা হবে। এ ঘটনায় দুটি মামলা করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত ৪২ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

ভয়েসটিভি/এএস

Categories
অপরাধ

মুদি দোকানি থেকে মানব পাচারকারী

উচ্চ বেতনে চাকরি দেওয়ার প্রলোভ দেখিয়ে মধ্যপ্রাচ্যে নেয়ার নামে  টাকা হাতিয়ে নিয়ে প্রতারণা করে আসছিল একটি চক্র। গত মঙ্গলবার রাত থেকে  রাজধানীর বাড্ডায় অভিযান চালিয়ে চক্রের মূল ব্যক্তি সাইফুল ইসলামসহ (টুটুল) আটজনকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব।

আজ বুধবার দুপুরে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‍্যাবের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান র‍্যাব-৪-এর পরিচালক পুলিশের অতিরিক্ত উপমহাপরিদর্শক মো. মোজাম্মেল হক। তিনি বলেন, মেহেরপুরের গাংনী থানার কামন্দী গ্রামে মুদিদোকানি সাইফুল ইসলাম কয়েক বছর আগে থেকে মাঝেমধ্যে ঢাকায় আসতেন। এ সময় তিনি ধনী হওয়ার আকাঙ্ক্ষায় ধীরে ধীরে মানব পাচারকারী একটি চক্রের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন। মূলত এই চক্রের দালাল হিসেবে বিভিন্ন এজেন্সির মাধ্যমে বিদেশে লোক পাঠানোর কাজ করতেন তিনি।

মো. মোজাম্মেল হক আরও বলেন, রাজধানীর বাড্ডা এলাকায় অনুমোদনহীন তিনটি ট্রাভেল এজেন্সি—টুটুল ওভারসিজ, লিমন ওভারসিজ ও লয়াল ওভারসিজ খোলেন সাইফুল। তাঁর লোকেরা দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের বেকার, শিক্ষিত নারী-পুরুষদের উচ্চ বেতনে চাকরি দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে মধ্যপ্রাচ্যে যেতে রাজি করাতেন। পরে তাঁদের বাড্ডায় অনুমোদনহীন ট্রাভেল এজেন্সিতে এনে সৌদি আরব, জর্ডান ও লেবাননে টাকা পাঠানোর কথা বলে প্রত্যেকের কাছ থেকে দুই থেকে তিন লাখ আদায় করেন। এরপর সাইফুল বৈধ ট্রাভেল এজেন্সির মাধ্যমে টিকিট কেটে তাঁদের মধ্যপ্রাচ্যে পাঠান। কিন্তু মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর বিমানবন্দরে পৌঁছানোর পর সাইফুলের লোকেরা পাসপোর্ট ও মুঠোফোন নিয়ে তাঁদের আরেক পক্ষের কাছে বিক্রি করে দেন। তাঁরা নারীদের বাসাবাড়িতে ও পুরুষদের পণ্য বিক্রির দোকানে কাজে দিয়ে দেন। মধ্যপ্রাচ্যে পৌঁছানোর পর পাচারের শিকার নারী–পুরুষেরা বাংলাদেশে তাঁদের আত্মীয়স্বজনের সঙ্গে কথা বলার পরই তাঁদের মুঠোফোন কেড়ে নেওয়া হয়। অনেকেই তাঁদের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন না। ছয় বছর ধরে সাইফুল এ প্রতারণার সঙ্গে জড়িত।

র‍্যাবের পরিচালক মোজাম্মেল হক বলেন, সাইফুলের মাধ্যমে জর্ডানে যাওয়া আসমা বেগম নামের এক নারীর সঙ্গে তাঁদের পরিবারের সাথে সাত দিন ধরে যোগাযোগ করতে পারছে না। এ পর্যন্ত ২৫ জন ভুক্তভোগী র‍্যাবের কাছে অভিযোগ করেছেন মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে পাঠানোর কথা সাইফুল তাদের প্রত্যেকের কাছ থেকে দুই থেকে তিন লাখ টাকা নিয়েছেন।

ইতোপূর্বে সাইফুলসহ গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের কাছ থেকে ১৭টি মুঠোফোন, ৭টি ফাইল, ৪টি সিল, ১০টি পাসপোর্ট, ৫টি নিবন্ধন খাতা, ৪টি ব্যাংকের চেক বই, ৩টি সিম কার্ড, ২টি কম্পিউটার এবং নগদ ১০ হাজার ৭০০ উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রেপ্তার অন্য ব্যক্তিরা হলেন শাহ মোহাম্মদ জালাল উদ্দিন ওরফে লিমন (৩৮), আবদুল্লাহ আল মামুন (৫৪), মারুফ হাসান (৩৭), আলামিন হোসাইন (৩০), জাহাঙ্গীর আলম (৩৮), মো. তৈয়ব আলী (৪৫), ও লালটু ইসলাম (২৮)।

আরও পড়ুন : গোপন নথি ফাঁস: চীনে করোনায় আক্রান্ত ছিলো ৬ লাখ

ভয়েস টিভি/এমএম

Categories
অপরাধ

হেলেনা জাহাঙ্গীরের জামিন বাতিল

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় হেলেনা জাহাঙ্গীরের জামিন আবেদন নাকচ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। বিচারপতি মো. রেজাউল হক ও বিচারপতি মো. বদরুজ্জামানের বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

গুলশান থানায় করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় জামিন না পাওয়ায় তিনি কারামুক্তি পাননি। তবে এর আগে মোট তিনটি মামলায় জামিন পান হেলেনা জাহাঙ্গীর।

আরও পড়ুন : হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে পল্লবী থানায় আরেক মামলা

গত ২৯ জুলাই রাত ১২টার সময় গুলশানের ৩৬ নম্বর রোডের ৫ নম্বর বাসায় অভিযান শেষে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে আটক করে নিয়ে যায় র্যাব। এ সময় তার বাসা তল্লাশি শুরু হয়। বাসা তল্লাশির সময় বিদেশি মদ, চাকু, বৈদেশিক মুদ্রা, অবৈধ ওয়াকিটকি সেট, ক্যাসিনো সরঞ্জাম ও হরিণের চামড়া উদ্ধার করা হয়।

এরপর দিন ৩০ জুলাই হেলেনা জাহাঙ্গীরকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে তোলা হয়। তখন গুলশান থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তাকে পাঁচদিনের রিমান্ডের আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা গুলশান থানার পরিদর্শক (অপারেশন) শেখ শাহানুর রহমান। অপরদিকে তার আইনজীবী রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম রাজেশ চৌধুরী তার জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

ভয়েস টিভি/এমএম