Categories
বিনোদন

করোনায় প্রাণ কাড়লো কোনালের বাবার

মহামারি করোনায় এবার প্রাণ কাড়লো চ্যানেল আই সেরাকণ্ঠ খ্যাত শিল্পী সোমনুর মনির কোনালের বাবার। ১০ সেপ্টেস্বর বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

কণ্ঠশিল্পী কোনালের বাবার নাম মনির হোসেন মন্টু। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৬৩ বছর।

এ তথ্য নিশ্চিত করে কোনালের স্বামী, বিনোদন সাংবাদিক মনজুর কাদের জিয়া জানান, দশ দিন ধরে করোনার সঙ্গে লড়াই করছিলেন কোনালের বাবা। শ্বাসকষ্ট তীব্র হওয়ায় তাকে ভেন্টিলেটরে রাখা হয়েছিলো। শেষ পর্যন্ত করোনার কাছে পরাজিত হলেন তিনি।

কোনালের বাবা মনির হোসেন মন্টু পরিবারসহ দীর্ঘদিন ধরেই কুয়েতে অবস্থান করছিলেন। সেখানে তিনি মিনিস্ট্রি অব ইন্টেরিয়রে কর্মরত ছিলেন। কুয়েতে সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলোর সঙ্গে ওতপ্রোভাবে জড়িত ছিলেন মন্টু। ছিলেন ‘ঋতুরঙা শিল্পী গোষ্ঠী’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, বঙ্গবন্ধু পরিষদ কুয়েতের সেক্রেটারি এবং কুয়েতের বৃহত্তর ঢাকা সমিতির সভাপতি।

ভয়েসটিভি/এএস

Categories
বিনোদন

কনক চাঁপার জন্মদিন আজ

অনন্ত প্রেম তুমি দাও আমাকে, তুমি আমার এমনই একজন এমন অসংখ্য জনপ্রিয় গানে মিষ্টি কণ্ঠ দেয়া কণ্ঠশিল্পী কনক চাঁপার শুভ জন্মদিন আজ। তিনি কনক চাঁপা নামে পরিচিত হলেও তার পুরো নাম রোমানা মোর্শেদ কনক চাঁপা।

১৯৬৯ সালের ১১ সেপ্টেম্বর প্রথিতযশা এই কণ্ঠশিল্পী জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার নাম আজিজুল হক মোর্শেদ। কনক চাঁপা পাঁচ ভাই বোনের মধ্যে তৃতীয়।

মিষ্টি কণ্ঠে সুর টান দিলেই হৃদয়ে গিয়ে লাগে, সৃষ্টিকর্তা এমনই উপহার দিয়েছেন তাকে।

বাংলা সংগীতের এই উজ্জল নক্ষত্র অসংখ্য গান গেয়ে মানুষের মন জয় করে আছেন। বাংলা গানের ভাণ্ডারকে করেছেন সমৃদ্ধ। চলচ্চিত্র, আধুনিক গান, নজরুল সঙ্গীত, লোকগীতি সহ প্রায় সবধরনের গানে কনক চাঁপা সমান পারদর্শী।

কনকচাঁপা বিখ্যাত কন্ঠশীল্পি বশীর আহমেদের ছাত্রী। দীর্ঘদিন তাঁর কাছে উচ্চাঙ্গ, নজরুল সঙ্গীতসহ অন্যান্য ভারতীয় সঙ্গীতের তালিম নিয়েছেন।

তিন যুগ ধরে সংগীতাঙ্গনে কাজ করে যাওয়া এই শিল্পী এ পর্যন্ত চলচ্চিত্রের ৩ হাজারেরও বেশি গানে কণ্ঠ দিয়েছেন। প্রকাশিত হয়েছে অসংখ্য একক গানের অ্যালবামও।

কনক চাঁপার উল্লেখযোগ্য জনপ্রিয় গানের মধ্যে রয়েছে: আকাশ ছুঁয়েছে মাটিকে, অনন্ত প্রেম তুমি দাও আমাকে, তুমি আমার এমনই একজন, অনেক সাধনার পরে আমি পেলাম তোমার মন, তোমাকে চাই শুধু তোমাকে চাই, ভাল আছি ভাল থেকো, যে প্রেম স্বর্গ থেকে এসে জীবনে অমর হয়ে রয় (খালিদ হাসান মিলুর সাথে), আমার নাকেরই ফুল বলে রে তুমি যে আমার, তোমায় দেখলে মনে হয়।

গানের জন্য রুমানা মোর্শেদ কনক চাঁপা বেশ কয়েকবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। এছাড়া তিনি বাচসাস চলচ্চিত্র পুরস্কার, দর্শক ফোরাম পুরস্কার, প্রযোজক সমিতি পুরস্কারসহ আরও অসংখ্য পুরস্কার পেয়েছেন।

গানের পাশাপাশি লেখক হিসেবেও কনকচাঁপার সুখ্যাতি রয়েছে। ২০১০ সালের অমর একুশে বইমেলায় ‘স্থবির যাযাবর’, ২০১২ সালের অমর একুশে বইমেলায় ‘মুখোমুখি যোদ্ধা’ ও ২০১৬ সালের অমর একুশে বইমেলায় ‘মেঘের ডানায় চড়ে’ নামে তিনটি বই প্রকাশিত হয়েছে কনক চাঁপার।

ভয়েস টিভি/টিআর

Categories
বিনোদন

বন্ধ হচ্ছে না বসুন্ধরার স্টার সিনেপ্লেক্স

বেশ কয়েকদিন ধরেই শোনা যাচ্ছিল বসুন্ধরা সিটিতে থাকছে না স্টার সিনেপ্লেক্স। তবে এবার আশার খবর হলো বসুন্ধরার সঙ্গে স্টার সিনেপ্লেক্সের চুক্তি আবারও নবায়ন হচ্ছে। ফলে বসুন্ধরা সিটি শপিং মলেই থাকছে স্টার সিনেপ্লেক্সের ছয়টি থিয়েটার। সিনেমাপ্রেমীদের জন্য এই সুখবরটি সোশ্যাল মিডিয়ায় নিশ্চিত করেছেন স্টার সিনেপ্লেক্সের চেয়ারম্যান মাহবুব রহমান রুহেল।

বসুন্ধরা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে চুক্তি নবায়নের বিষয়টি নিয়ে ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, ‘আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি যে, বসুন্ধরা সিটি শপিং মলেই থাকছে আপনাদের প্রিয় স্টার সিনেপ্লেক্স। বসুন্ধরা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আমাদের চুক্তি নবায়ন হতে যাচ্ছে। যার ফলে স্টার সিনেপ্লেক্স বসুন্ধরা সিটি শপিংমল থেকে সরে যাচ্ছে বলে যে উৎকণ্ঠা এবং হতাশা তৈরি হয়েছিল তার অবসান ঘটছে। অগণিত দর্শক, শুভানুধ্যায়ীর ভালোবাসা আর আমাদের আবেদন মূল্যায়ন করে চুক্তি নবায়নের ইতিবাচক সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য বসুন্ধরা কর্তৃপক্ষকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাতে চাই ‘

তিনি আরও লেখেন, ‘তাদের সহযোগিতা আমাদের পথচলা মসৃণ ও সুন্দর করেছে। আগামীতেও তাদের সহযোগিতাকে সঙ্গী করে আমরা এগিয়ে যেতে চাই। একই সঙ্গে অশেষ ধন্যবাদ জানাতে চাই আমাদের অগণিত দর্শক, শুভানুধ্যায়ীদের, যাদের ভালোবাসা স্টার সিনেপ্লেক্সকে আজকের অবস্থানে নিয়ে এসেছে। বসুন্ধরায় স্টার সিনেপ্লেক্স থাকবেনা জেনে আপনাদের যে প্রতিক্রিয়া দেখেছি তাতে আমি অভিভূত। আপনাদের সুস্বাস্থ্য কামনা করি। ভালো থাকবেন সবাই।’

এর আগে, ১ সেপ্টেম্বর চুক্তিপত্রের মেয়াদ শেষ হওয়ার কারণে বসুন্ধরা সিটি শপিংমলে স্টার সিনেপ্লেক্সের ৬টি থিয়েটার বন্ধের খবর প্রকাশিত হয়েছিল। বন্ধ হওয়ার কারণ প্রসঙ্গে মাহবুব রহমান বিস্তারিত জানিয়ে বলেছিলেন, বসুন্ধরা সিটির স্টার সিনেপ্লেক্স শাখা বন্ধ করে দিচ্ছি।শপিংমল কর্তৃপক্ষ একমাস আগেই সিনেপ্লেক্সের শাখা ছাড়ার জন্য নোটিশ দিয়েছে। নোটিশে বলা আছে, তিন মাসের মধ্যে জায়গা ছেড়ে দিতে হবে। ৬ টি স্ক্রিনে ১৬০০ আসন ছিল। শাখাটি রাখার অনেক চেষ্টা করেও পারলাম না। তবে সিনেপ্লেক্সের অন্যান্য শাখাগুলো চালু থাকলো। নতুন করে মিরপুর-১ এর সনি কমপ্লেক্স সিনেপ্লেক্স হিসেবে চালু হবে।

২০০২ সালে বসুন্ধরা সিটি শপিংমলে যাত্রা শুরু করে দেশের প্রথম ডিজিটাল এবং অত্যাধুনিক সুবিধা সংবলিত স্টার সিনেপ্লেক্স। ঢাকাবাসীর পাশাপাশি সারাদেশের সিনেমাপ্রেমীদের ভালোবাসা অর্জন করে নিয়েছে এই প্রেক্ষাগৃহটি।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
বিনোদন

ভারতে আরেক জনপ্রিয় অভিনেত্রীর আত্মহত্যা

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যার রেশ কাটতে না কাটতেই এবার ভারতের আরেক জনপ্রিয় অভিনেত্রী আত্মহত্যা করেছেন। তিনি তেলুগুর জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রাবণী কোন্দপাল্লি। ৮ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার হায়দরাবাদের মধুরানগরে নিজের ফ্ল্যাটে আত্মহত্যা করেন বছর ২৬ বছরের ওই অভিনেত্রী।

শ্রাবণীর মৃত্যুতে ভারতের মিডিয়াপাড়ায় চলছে ব্যাপক আলোচনা সমালোচনা। টিকটক স্টার দেবরাজ শেঠির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। সংবাদ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের।

এস আর নগর থানায় দেবরাজের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন শ্রাবণীর পরিবার। বেশ কয়েক মাস ধরে শ্রাবণীকে জ্বালাতন করছিলেন তিনি। সেই অভিযোগেই এবার পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছে প্রয়াত অভিনেত্রীর পরিবার।

মঙ্গলবার নিজের মধুরানগরের ফ্ল্যাটে রাত সাড়ে নয়টার দিকে বেড রুমের দরজা বন্ধ করে দেন শ্রাবণী। অভিনেত্রী গোসল করতে গেছেন ভেবে পরিবারের কেউ ডাকাডাকি করেননি। এরপর কয়েক ঘণ্টা ধরে ঘর থেকে না বেরোনোর পরই শ্রাবণীর ঘরের দরজা ভেঙে ঢোকেন তারা।

ঘরের মধ্যেই ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয় শ্রাবণীকে। সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় যশোদা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। কিন্তু চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

শ্রাবণী কোনো সুইসাইড নোট রেখে যায়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এ অভিনেত্রী স্থানীয় টেলিভিশনের পরিচিত মুখ। জনপ্রিয় কিছু সিরিয়ালে অভিনয় করেছেন শ্রাবণী।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
বিনোদন

মসজিদের সামনে নেচে ক্ষমা চেয়েছেন মুনমুন

আমি যদি জানতাম ওখানে মসজিদ রয়েছে তাহলে কখনই নাচতাম না। তারপরেও যদি আমার এই ঘটনায় কেউ আঘাত পেয়ে থাকেন তাহলে সকলের কাছে আমি ক্ষমা চাইছি।

সম্প্রতি সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এমনটাই দাবি করছিলেন চিত্রনায়িকা মুনমুন। সম্প্রতি টাঙ্গাইলের সখীপুরের পলাশতলিতে একটি মসজিদের কাছে নাচের ভিডিও ভাইরাল হয়। এরপর সমালোচনার ঝড় ওঠে। মুনমুনের চেয়ে এই নাচের আয়োজকদেরই ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করেন নেটিজেনরা।

মুনমুন বলেন, আমি ওই অনুষ্ঠান শেষ করে ঢাকায় বাড়ি ফিরেছি। এরপরে আমার কাছে সখীপুর থেকে ফোন আসে। তারাই আমাকে জানায় ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। কিন্তু সত্য কথা হলো ওখানে কোনো মসজিদ ছিল না। মসজিদটি আসলে নদী ভাঙনে বিলীণ হয়ে যায়। সেই মসজিদের সাইনবোর্ড এনে রাখা হয়েছে। দেখবেন সাইনবোর্ডটা একেবারে নতুন। আর মসজিদের কার্যক্রম ছিল না। স্থানীয়রাই এসব বলেছে। আর আমি এসব কথা জেনেছি, ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হবার পর।

মুনমুন বলেন, তারপরেও যদি আমার ভুল হয়ে থাকে আমি ক্ষমা প্রার্থী।

ঢাকাই চলচ্চিত্রের এক সময়ের জনপ্রিয় এই নায়িকা ঘটনার সূত্রপাত সম্পর্কে বলেন, এক পরিচিত বড় ভাই বলেন, আমরা একটা নৌ ভ্রমণ করব, তুমি তো কখনো এমন ভ্রমণ করো নাই তোমার ভালো লাগবে। আমিও গেলাম। এরপর নৌ ভ্রমণ শুরু হলে তারা একটা আবেদন জানায় নৌকায় নাচার জন্য। কিন্তু প্রচণ্ড রোদ। সেই রোদে আমি কোনোভাবেই তাদের অনুরোধ রাখতে পারিনি। পরে তারা পলাশতলি নামের ওই জায়গায় বিরতি দেন। জায়গাটায় মানুষ থাকে না তেমন, কারণ কয়েকদিন আগেই নাকি ব্যাপক নদী ভাঙন হয়েছে।

নাচার প্রসঙ্গে বলেন, সেখানে বসার ব্যবস্থা করা হয়। স্থানীয় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান, মেম্বার ছিলেন। সবাই আমাকে একটু নাচের অনুরোধ করে। বারবার অনুরোধ সত্ত্বেও আমি নাচিনি। দেখবেন আমি বসে ছিলাম ওই সাইনবোর্ডের উল্টা দিক হয়ে। ওভাবেই উঠে গিয়েছিলাম, যে কারণে আমি সাইনবোর্ডটা দেখিনি।

এলাকাবাসী জানায়, শুক্রবার সখীপুরে নৌকা ভ্রমণের উদ্দেশে চলচিত্র নায়িকা মুনমুনকে সখীপুরে আনেন আয়োজকরা। শনিবার সখীপুর ও কালিহাতী উপজেলার সীমান্তবর্তী পলাশতলী গ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া শাইলসিন্দুর নদীতে নৌকা ভ্রমণ শেষে দুপুরে পলাশতলী বাজারে এসে খাওয়া-দাওয়া শেষে সাউন্ড সিস্টেমে ওখানে নাচের আয়োজন হয় বলে জানা যায়।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
বিনোদন

গুণী অভিনেতা কে এস ফিরোজ আর নেই

নাট্যঙ্গনের গুণী অভিনেতা মেজর (অব.) কে এস ফিরোজ (৭৬) আর নেই (ইন্নালিল্লাহি…রাজিউন)। ৯ সেপ্টেম্বর বুধবার সকাল ৬টা ২০ মিনিটে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিমএইচ) তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

তার মৃত্যুর খবরটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জানিয়েছেন তার মেয়ে প্রীতু ফিরোজ। এছাড়া অভিনয় শিল্পী সংঘের সাধারণ সম্পাদক ও অভিনেতা আহসান হাবীব নাসিম কে এস ফিরোজের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ফেসবুকে প্রীতু ফিরোজ লেখেন, আমার সৈনিক বাবা, মেজর (অব.) খন্দকার শহীদ উদ্দিন ফিরোজ (সবার কাছে উনি কে এস ফিরোজ নামে পরিচিত) আজ সকালে ৬টা ২০ মিনিটে সিমএইচ-এ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। তিনি এখন শান্তিতে ঘুমাচ্ছেন। সশস্ত্র বাহিনীর সর্বশেষ শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে আজ বাদ জোহর বাবার ইচ্ছাতে বনানী সামরিক কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হবে।

তিনি আরও লেখেন, আব্বু বলেছেন মহামারি চলাকালীন যারা মারা যান, তারা শহীদ। তিনিও শহীদ হয়ে চলে গেলেন। তার জন্য আপনাদের সবার কাছে ক্ষমা চাইছি। তার যাতে জান্নাতুল ফেরদাউস নসিব হয়, সেজন্য সবার কাছে দোয়া চাইছি।

নাট্যঙ্গন একজন গুণী অভিনেতাকে হারালো জানিয়ে অভিনয় শিল্পী সংঘের সাধারণ সম্পাদক ও অভিনেতা আহসান হাবীব নাসিম বলেন, কে এস ফিরোজ আমাদের সংগঠনের আজীবন সদস্য ছিলেন। তার মৃত্যুতে আমরা গভীর শোক প্রকাশ করছি।

নাসিম আরও জানান, ফিরোজ ভাইয়ের পারিবারিক সূত্রে জানতে পেরেছি মহামারি শুরু হওয়ার আগে তিনি নিউমোনিয়া আক্রান্ত হয়ে বেশ কিছুদিন অসুস্থ ছিলেন। এরপর সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন। ৫ দিন আগে তার আবার নিউমোনিয়া দেখা দেয়, পরে করোনা টেস্ট করলে রেজাল্ট পজিটিভ আসে। তবে এবার আর শেষ রক্ষা হলো না।

কে এস ফিরোজের জন্ম ঢাকার লালবাগে, কিন্তু তার পৈতৃক নিবাস বরিশালের উজিরপুরের মশাং গ্রামে। তার বাবার নাম এ জে এম সাইদুর রহমান এবং মা রাবেয়া খাতুন।

নাট্যদল ‘থিয়েটার’র সঙ্গে যুক্ত হয়ে অভিনয়ে কে এস ফিরোজের পথচলা শুরু। এই দলের হয়ে তিনি অভিনয় করেছেন ‘সাত ঘাটের কানাকড়ি’, কিংলিয়ার’ ও ‘রাক্ষসী’ নাটকে। এছাড়া তিনি টেলিভিশন নাটকের জনপ্রিয় মুখ। বহু একক নাটক, ধারাবাহিক ও টেলিফিল্মে তাকে অভিনয় করতে দেখা গেছে।

বেশকিছু সিনেমায়ও অভিনয় করতে দেখা গেছে তাকে। তার প্রথম সিনেমা ‘লাওয়ারিশ’। কে এস ফিরোজ অভিনয় করেছেন আবু সাইয়ীদের ‘শঙ্খনাদ’, ‘ বাশি’, মুরাদ পারভেজের ‘চন্দ্রগ্রহণ’ ও ‘বৃহন্নলা’র মতো প্রশংসিত সিনেমায়।

ভয়েসটিভি/এএস

Categories
বিনোদন

সালমানের দাম ৫২২ কোটি টাকা

রিয়েলিটি শো বিগ বস ১৪’র পুরো সিজনের জন্য এবার ৫২২ কোটি টাকা নিচ্ছেন বলিউডের হিট নায়ক সালমান খান। অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি যে গত বছরের চেয়ে দ্বিগুণেরও বেশি দর হাঁকিয়েছেন তিনি। এই পরিমাণ টাকা দিয়ে তিনি অন্তত পাঁচটি সিনেমা করতে পারতেন।

বড় পর্দায় বলিউড সুপারস্টার সালমান খানের একের পর এক ব্লকবাস্টার হিট ছবির প্রভাব আছে ছোট পর্দায়ও। ‘বিগ বস’–এর যে পর্বে সালমান খান থাকেন, সেই পর্বের টিআরপি বেড়েছে হু হু করে। তাই সালমান যত বড় অঙ্কের চেকই চান না কেন, প্রযোজকেরা তা দিতে বাধ্য। সেই সুযোগটা কড়ায়–গন্ডায় কাজে লাগাচ্ছেন সালমান। তাই গত বছরের চে দ্বিগুণেরও বেশি দর হাঁকিয়েছেন তিনি।

‘বিগ বস ১৩’-এর শুরুতেই খবর উঠেছিল যে সালমান ওই সিজনে প্রতি সপ্তাহে ১৭ কোটি টাকা নিচ্ছিলেন। অর্থাৎ, সব মিলিয়ে পুরো সিজনের জন্য সালমান নিয়েছেন ২০০ কোটিরও বেশি। আর এবার সালমান খান পুরো সিজনের জন্য বাংলাদেশি মুদ্রায় নেবেন ৫২২ কোটি টাকা। প্রতি সপ্তাহে সালমানের অ্যাকাউন্টে যোগ হবে প্রায় ৪৫ কোটি টাকা। অর্থাৎ পর্বপ্রতি ২২ কোটি টাকার বেশি নেবেন তিনি।

আসছে অক্টোবরেই প্রিমিয়ার হওয়ার কথা জনপ্রিয় এই শো’টির। ইতোমধ্যে প্রতিযোগীর খোঁজ চলছে। ফিল্মফেয়ার এক প্রতিবেদনে জানায়, ‘বিগ বস’ আসছে নতুনরূপে। তাতে যোগ হচ্ছে নতুন নতুন সাসপেন্স আর ড্রামা।

এদিকে বলিউডের আরেক সুপারস্টার অক্ষয় কুমার এবার ‘দ্য এন্ড’–এর মাধ্যমে ডিজিটাল দুনিয়া মাতাতে আসছেন। এই প্রজেক্টের জন্য অক্ষয় বাংলাদেশি মুদ্রায় ১০০ কোটি টাকা দাবি করেছেন। আর পারিশ্রমিকের এই দাবিতে সম্মতি জানিয়েছেন প্রযোজকও।

জানা গেছে, প্রতি সিজনে আটটা করে পর্বে ‘দ্য এন্ড’ তিন সিজনে মুক্তি পাবে। প্রথমে পরিকল্পনা ছিলো, প্রতিবছর একটা করে সিজন মুক্তি পাবে। তবে এতে কোনো পরিবর্তন আনা হয়েছে কি না, তা জানা যায়নি।

বলিউডের এই খিলাড়ি এক মাসে আটটা পর্বের শুটিং শেষ করে প্রজেক্টটি সম্পূর্ণ করবেন। এখানে অক্ষয়ের সঙ্গে দেখা যেতে পারে ‘বিগবস’ খ্যাত শাহনাজ গিলকে। সিরিজটি মুক্তি পাবে আমাজন প্রাইমে।

ভয়েস টিভি/এএস

Categories
বিনোদন

ফের হাসপাতালে নায়ক ফারুক, নেয়া হবে সিঙ্গাপুর

গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ায় আবারো হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে ঢাকাই চলচ্চিত্রের জীবন্ত কিংবদন্তি ও ঢাকা-১৭ আসনের সাংসদ নায়ক ফারুককে। ফের গত ৫ সেপ্টেম্বর এভারকেয়ার হাসপাতালে (অ্যাপোলো) ভর্তি করা হয়েছে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে নেয়া হতে পারে বলে জানিয়েছেন তার স্ত্রী ফারহানা ফারুক।

আগামীকাল ৯ সেপ্টেম্বর অভিনেতা ফারুকের চিকিৎসা সংক্রান্ত যাবতীয় বিষয় নিয়ে অ্যাপোলো হাসপাতালে বোর্ড মিটিং হবে বলে জানা গেছে।

তার চিকিৎসকরা বলছেন, তার রক্তে সংক্রমণের জটিলতা দেখা দিয়েছে। সংক্রমণ থেকে খারাপ কিছু হতে পারে। সেজন্য দ্রুত তার উন্নত চিকিৎসা নিশ্চিত করতে হবে।

ফারহানা ফারুক বলেন, ‘এবারো বেশ কিছু পরীক্ষা করানো হয়েছে। কোনো রির্পোট খারাপ আসেনি। কিন্তু শরীরের জ্বর কমছে না। ১০১ ডিগ্রির নিচে নামছে না। তাই আমরা দুশ্চিন্তায় আছি।’

ফারহানা ফারুক আরও বলেন, ‘দ্রুতই তাকে বিদেশে নিয়ে যাওয়ার কথা ভাবছি আমরা। সিঙ্গাপুরে মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের সঙ্গে যোগাযোগও হচ্ছে। করোনার কারণে বর্তমানে বিদেশে যাতায়াতে অনেক জটিলতা আছে। এসব মোকাবিলা করে ওনাকে দ্রুত সিঙ্গাপুরে নেয়ার চেষ্টা করা হবে।’

এর আগে গত ১৮ আগস্ট তাকে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ঢাকাই চলচ্চিত্রের এ জীবন্ত কিংবদন্তিকে। সেখানে চিকিৎসা নিয়ে ২৬ আগস্ট বাসায় ফেরেন এই অভিনেতা। জ্বর, সর্দি-কাশিসহ করোনার উপসর্গ থাকায় ফারুকের করোনা পরীক্ষা করা হলে রেজাল্ট নেগেটিভ আসে। এর পরে অসুস্থতা না কমায় দ্বিতীয় দফায় আবারো গত ৩১ আগস্ট রাতে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। তখনও তার করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হলে তা নেগেটিভ আসে। পাশাপাশি তার টাইফয়েড, ডেঙ্গু, ম্যালেরিয়ার নমুনাও পরীক্ষা করা হয়। সবকিছুই নেগেটিভ আসে। কিন্তু জ্বর না কমায় দুশ্চিন্তা বাড়ছে এই অভিনেতাকে নিয়ে।

১৯৭১ সালে এইচ আকবর পরিচালিত ‘জলছবি’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে ফারুকের চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে। ‘লাঠিয়াল’, ‘সুজন সখী’, ‘নয়ন মণি’, ‘সারেং বৌ’, ‘গোলাপী এখন ট্রেনে’, ‘সাহেব’, ‘আলোর মিছিল’, ‘দিন যায় কথা থাকে’, ‘মিয়াভাই’সহ শতাধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। ‘মিয়াভাই’ খ্যাত এই চিত্রনায়ক ‘লাঠিয়াল’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য ১৯৭৫ সালে শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন। চলচ্চিত্রে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ২০১৬ সালে তিনি আজীবন সম্মাননা পান।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
বিনোদন

সুশান্তের প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তী গ্রেফতার

অবশেষে গ্রেফতার হলেন প্রয়াত বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের প্রেমিকা অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী। জিজ্ঞাসাবাদের তৃতীয় দিনে সুশান্তের বান্ধবীকে গ্রেফতার করলো নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর ৮১ দিন পর গ্রেফতার করা হল রিয়া চক্রবর্তীকে।

৮ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো তাকে গ্রেফতার করেছে। আইনের ৬৭ নম্বর ধারায় রিয়া চক্রবর্তী তার দোষ স্বীকার করেছেন।

বারবার প্রশ্নের মুখে পড়ে সোমবার এনসিবির সামনে রিয়া জানান, ‘আমি যা করেছি, তা সবই সুশান্তের জন্য।’ তার পরেও এ দিন ফের রিয়াকে জেরার জন্য এনসিবির সদর দফতরে ডাকা হয়। দুপুরের দিকে সেখানেই গ্রেফতার করা হয় তাঁকে।

গত ১৪ জুন মুম্বইয়ের বান্দ্রার বাড়ি থেকে সুশান্ত সিংহ রাজপুতের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার হয়। শুরুতে মুম্বই পুলিশের হাতেই তদন্তভার ছিল। পরে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে তদন্তভার দেয়া হয় কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআইকে। সেই মামলায় রিয়ার হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট থেকে মাদকযোগের কথা উঠে এলে, আলাদা করে তদন্ত শুরু করে এনসিবি।

এনিয়ে গত সপ্তাহে দফায় দফায় জেরার পর শুক্রবার রিয়ার ভাই শৌভিক ও সুশান্তের সাবেক ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার হন সুশান্তের হাউজ হেল্প দীপেশও।

গ্রেফতারের পরই রিয়া চক্রর্তীর মেডিকেল টেস্ট করানো হবে। যার জন্য রিয়ার রক্ত এবং চুলের নমুনা সংগ্রহ করা হবে। অর্থাৎ বুধবার সৌভিক চক্রবর্তী এবং স্যামুয়েল মিরান্ডার সঙ্গেই রিয়াকে আদালতে তোলা হবে।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
বিনোদন ভিডিও সংবাদ

শুভ জন্মদিন নুসরাত ফারিয়া

আজ ৮ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার। এপার বাংলা ওপার বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত ফারিয়ার জন্মদিন। শুভ জন্মদিন নুসরাত ফারিয়া।

ফারিয়ার শৈশব কেটেছে ঢাকার আর্মি ক্যান্টনমেন্টে। তার দাদা একজন সেনা কর্মকর্তা হওয়ায় ঢাকা সেনানিবাসে তাদের বসবাস।

আরজে হিসেবে কাজের মধ্য দিয়ে গণমাধ্যমে আগমন তার। আরটিভির ‘ঠিক বলছেন তো‘ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রথম টিভি পর্দায় উপস্থাপনায় আসেন নুসরাত ফারিয়া। পথমে উপস্থাপক এবং মডেল হিসেবে জনপ্রিয় হলেও পরবর্তীতে সিনেমায় নিজের অভিনয় দক্ষতায় জনপ্রিয়তার তুঙ্গে উঠে এই নায়িকা।

চলচ্চিত্রে নুসরাত ফারিয়ার অভিষেক হয় ২০১৫ সালে। যৌথ প্রযোজনার ‘আশিকী’ ছবির মাধ্যেমে বড় পর্দায় নিজেকে মেলে ধরার সুযোগ পান তিনি। এই সিনেমায় কাজের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ নবীন অভিনয়শিল্পী বিভাগে মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার অর্জন করেন।
ওই সিনেমার পর থেকে আর পিছে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। একের পর এক ব্যবসা সফল সিনেমায় অভিনয় করে চলেছেন তিনি।

রাত ১২টা এক মিনিট থেকে জন্মদিনের শুভেচ্ছায় ভাসছেন ফারিয়া। তার ফেসবুক ও ফেসবুক পেইজে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন তার ভক্ত ও কাছের প্রিয় মানুষরা।

জন্মদিনের আয়োজন নিয়ে ভয়েস টিভির সঙ্গে নুসরাত ফারিয়ার কথা হলে তিনি জানান, বর্তমান করোনা পরিস্থিতির কারণে এবারের জন্মদিন ঘিরে তেমন বড় কোন আয়োজন নেই।

২০১৫ সাল থেকে ২০২০ পর্যন্ত ক্যারিয়ারে ফারিয়া অভিনয় করেছেন বেশ কিছু বড় বাজেটের সিনেমাতে। এর মধ্যে ২০১৬ সালে মুক্তি পায় তার দুটি সিনেমা ‘হিরো ৪২০’ ও ‘বাদশা দ্য ডন’৷ ২০১৭ সালে মুক্তি পায় ‘প্রেমী ও প্রেমী’৷

এরপর পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে মুক্তি পায় ‘ধ্যাততেরিকী’৷  সেবছর ঈদুল ফিতরে মুক্তি পায় ‘বস ২’৷  একই বছরের শুরুতে মুক্তি পায় ‘ইন্সপেক্টর নটি কে’৷

তিনি শুধু সিনেমার নায়িকা নন গায়িকাও। শাপলা মিডিয়া প্রযোজিত ‘শাহেনশাহ’ ছবিতেও শাকিবের বিপরিতে অভিনয় করেছেন ফারিয়া। ছবিটির পরিচালনা করেছেন শামীম আহমেদ রনি।

২০২০ সালে দুটি সিনেমায় অভিনয় করার কথা রয়েছে নুসরাত ফারিয়ার। এর মধ্যে একটি দীপঙ্কর দীপনের পরিচালনায় ‘অপারেশন সুন্দরবন’। অন্যটি রাজা চন্দ পরিচালিত ‘ভয়’।

ভয়েস টিভি/টিআর