Categories
জাতীয় প্রবাসী

‘জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু’ স্লোগানে প্রকম্পিত যুক্তরাষ্ট্রের টাইমস স্কয়ার

জাতীয় শোক দিবসের প্রথম প্রহরে টাইমস স্কয়ারের আইকনিক বলড্রপ বিলবোর্ডে ভেসে উঠল বাঙালির মহানায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি। নিউ ইয়র্কের টাইমস স্কয়ার প্রকম্পিত হলো ‘জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু’ স্লোগানে।

বিশ্বজুড়ে পরিচিত এই আলো ঝলমলে টাইমস স্কয়ারের বিলবোর্ড থেকেই ইংরেজি বর্ষবরণের বলড্রপ দেখা যায় প্রতিবছর। এবার ১৫ অগাস্ট বিলবোর্ডজুড়ে তারা দেখতে পাচ্ছেন স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতির কর্মময় জীবনের গল্প।

আইকনিক বলড্রপ বিলবোর্ডে বাঙালির জাতির পিতার জীবন ও কর্মের এ প্রদর্শনী চলবে ২৪ ঘণ্টা ধরে। তাতে থাকছে ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের অংশবিশেষ, বঙ্গবন্ধুর সংগ্রামী জীবনের নানা মুহূর্তের ছবি আর তার স্মরণীয় উক্তি।

ওয়াশিংটনে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম শহীদুল ইসলাম, জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা, কন্সাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুননেসাও প্রবাসীদের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন সেখানে।

নিউ ইয়র্কভিত্তিক বিজ্ঞাপনী সংস্থা এনওয়াই ড্রিমস প্রোডাকশন-এর সিইও ফাহিম ফিরোজের উদ্যোগে টাইমস স্কয়ারের এই আয়োজনে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং প্রবাসের বীর মুক্তিযোদ্ধারাও শামিল হয়েছেন।

১৫ অগাস্ট ২৪ ঘণ্টায় প্রতি ২ মিনিটে ১৫ সেকেন্ড করে পুরো বিলবোর্ডজুড়ে এই প্রদর্শনী চলবে। সব মিলিয়ে ৭২০ বারে মোট তিন ঘণ্টা চলবে এই প্রদর্শনী।

বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের যুক্তরাষ্ট্র শাখার সেক্রেটারি আব্দুল কাদের মিয়া বলেন, বঙ্গবন্ধুর ঘাতক রাশেদ চৌধুরীকে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেওয়ার জন্যে মার্কিন প্রশাসনকে অনুরোধ করা হচ্ছে। প্রেসিডেন্ট বাইডেন তথা হোয়াইট হাউজ এবং কংগ্রেসে আমরা আরো সোচ্চার হব- এটাই হচ্ছে আজকের শোক দিবসের সংকল্প।’

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
জাতীয় প্রবাসী

পাসপোর্ট সেবা বন্ধে চরম দুর্ভোগে প্রবাসীরা

ঢাকায় পাসপোর্ট অধিদফতরের সার্ভারের যান্ত্রিক ত্রুটিতে প্রবাসীদের পাসপোর্ট সেবা বন্ধ রয়েছে। ফলে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন প্রবাসীরা। তবে আগামী তিন দিনের মধ্যে সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বাংলাদেশে যন্ত্রে পাঠযোগ্য পাসপোর্টের (এমআরপি) কাজটি পেয়েছিল মালয়েশীয় প্রতিষ্ঠান আইরিস করপোরেশন। সেখানে তিন কোটি পাসপোর্টের চুক্তি ছিল। তবে সম্প্রতি সেই তিন কোটি আঙুলের ছাপ ছাড়িয়ে যাওয়ার পর নতুন করে আর পাসপোর্ট ছাপা যাচ্ছিল না। ফলে সার্ভারের ত্রুটির কথা উল্লেখ করে কুয়েত, মালয়েশিয়া, মালদ্বীপ, লেবানন, সিঙ্গাপুরসহ কয়েকটি দেশের পাসপোর্ট সেবা সাময়িক বন্ধ রাখার ঘোষণা দেয় সেখানকার হাইকমিশন।

পাসপোর্ট অধিদফতরের কর্মকর্তারা বলছেন, ই-পাসপোর্ট উদ্বোধনের পর ধারণা করা হচ্ছিল এই সময়ের মধ্যে পুরোটাই ই-পাসপোর্টে চলে যাবে। কিন্তু করোনা কারণে বিভিন্ন দেশে ই-পাসপোর্টের মেশিন বসাতে না পারায় এখন বাড়তি সময় এমআরপি দিয়ে কার্যক্রম চালাতে হবে। তাই ধারণক্ষমতার বেশি পাসপোর্ট ইস্যুর আবেদন পড়ায় নতুন করে প্রিন্ট করা যাচ্ছিল না।

তারা আরও বলছেন, পাসপোর্ট অফিসের সঙ্গে বিদেশি একটি কোম্পানির চুক্তি ছিল তিন কোটি পাসপোর্টের। সেই কোম্পানির সঙ্গে চুক্তির সীমা অতিক্রম হয়ে গেছে। সঙ্কট সমাধানে ফের আইরিসের সঙ্গে আরও ৬০ লাখ এমআরপির বিষয়ে চুক্তি চূড়ান্ত হয়েছে। এখন আশা করা যাচ্ছে, দ্রুততম সময়ের মধ্যে সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।

এ বিষয়ে বহিরাগমন ও পাসপোর্ট অধিদফতরের নতুন মহাপরিচালক (ডিজি) মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আইয়ুব চৌধুরী জানান, ‌‘আমাদের এমআরপি পাসপোর্টটা বন্ধ হয়ে যাওয়ার কথা ছিল। ই-পাসপোর্ট চালু করতে পারিনি বিধায় এমআরপিকে বেশিদিন চালাতে হচ্ছে। এমআরপির চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ায় এটাতো জোড়াতালি দিয়ে চালাচ্ছি। অনেক কিছু শেষ হয়ে যাচ্ছে। এই অতিরিক্ত সবকিছু বাড়াতে হবে। তাদের সঙ্গে মেইনটেন্যান্স কন্ট্রাক্ট বাড়াতে হচ্ছে। পাসপোর্ট এমআরপি কিনতে হচ্ছে। পাসপোর্ট আমরা ইতোমধ্যে কিনে ফেলেছি, মেইনটেন্যান্স কন্ট্রাক্টও বাড়িয়ে ফেলছি। এটার যেসব জিনিস লাগে জার্মানি থেকে সেগুলো কিনেছি।’

Categories
জাতীয় প্রবাসী

চাঁদপুর সমিতি মালয়েশিয়ার সভাপতি সেলিম আর নেই

করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন বাংলাদেশ কমিউনিটির পরিচিত মুখ, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও চাঁদপুর সমিতি মালয়েশিয়ার সভাপতি সেলিম নুরুল ইসলাম। ১২ জুলাই সোমবার বাংরাদেশ সময় পৌনে ১টার দিকে মালয়েশিয়ার প্রিন্সকোর্ট হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে থাকা অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মালয়েশিয়া প্রবাসী ব্যবসায়ী সেলিম নুরুল ইসলামের বন্ধু মো. মনির হোসেন।

এর আগে গত মাসে করোনা আক্রান্ত হন মসজিদ ইন্ডিয়ার এস. এল. মিতালী এন্টারপ্রাইজ এর কর্ণধার মোহাম্মাদ সেলিম। কিছুদিন বাসায় চিকিৎসা শেষে অবস্থার অবনতি হলে তাকে প্রিন্সকোর্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শারীরিক অবস্থার উপর ভিত্তি করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সেখানে তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখেন।

চাঁদপুর জেলার মতলব উপজেলার উত্তর মুক্তির কান্দি গ্রামের এই কৃতি সন্তান মালয়েশিয়ায় বসবাসকারী বাংলাদেশ কমিউনিটির পরিচিত মুখ। তিনি চাঁদপুর সমিতি মালয়েশিয়ার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন। এছাড়া তিনি নিজ দক্ষতায় মালয়েশিয়ায় একজন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী হিসেবে নিজেকে গড়ে তোলেন।

১৯৯৮ সালে ভাগ্যান্বেষণে দেশ ছেঢ়ে মালয়েশিয়া যান সেলিম। চাকুরি করেন দেশটির বিখ্যাত সুপারশপ হানিফায়। পরে ২০০৩ সালে চাকরি ছেড়ে স্বল্প পুঁজি দিয়ে শুরু করেন নিজস্ব ব্যবসা। তিনি নিজস্ব দক্ষতায় মালয়েশিয়ায় একজন প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী হিসেবে নিজেকে গড়ে তোলেন। একাধিক ব্যবসায় তিনি হয়েছেন সফল । তার প্রতিষ্ঠানে বহু বাংলাদেশীর কর্মসংস্থান হয়েছে। সবাই সেলিমকে দাতা হিসেবেই জানাতো।

২০০৩ সালে সেলিম নুরুল ইসলাম ভালোবেসে বিয়ে করেন মালয়েশিয়ান মেয়ে লিজমা বিনতে মাইদিন। এ দম্পতির ঘরে রয়েছে ১ মেয়ে ২ ছেলে।

Categories
প্রবাসী

মালয়েশিয়ায় ১০২ বাংলাদেশি আটক

মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসী হিসেবে ১০২ জন বাংলাদেশিকে আটক করা হয়েছে। ২১ জুন সোমবার দেশটির অভিবাসন কর্তৃপক্ষ তাদের আটক করে।

মালয়েশিয়ার গণমাধ্যম ফ্রি মালয়েশিয়া টু ডে এ খবর প্রকাশ করেছে।

সোমবার মালয়েশিয়ায় বিভিন্ন দেশের মোট ৩০৯ জন অবৈধ অভিবাসীকে আটক করা হয়। এদের মধ্যে বাংলাদেশের ১০২ জন, ইন্দোনেশিয়ার ১৯৩ জন, ভিয়েতনামের চার জন, ভারতের দুই জন ও মিয়ানমারের আট জন নাগরিক রয়েছেন।

মালয়েশিয়ার ডেঙ্কিল এলাকার একটি কনস্ট্রাকশন ফার্ম থেকে এসব নাগরিকদের আটক করা হয়।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
জাতীয় প্রবাসী

পরিবারকে নিয়ে গিয়েছিলেন হজ করাতে, সড়ক দুর্ঘটনায় সব শেষ

সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় সাইফুল ইসলাম রেজা (৩৪) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। বাংলাদেশ সময় ৯ জুন বুধবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে সৌদি আরবের নারিয়া এলাকায় তার মাইক্রোবাসটি নিয়ন্ত্রণ হারালে তিনি মারা যান। তার মা, বোন ও তার ছোট ভাইয়ের স্ত্রীকে সৌদি আরবে ওমরাহ হজ করাতে নিয়ে যান। কিন্তু সড়ক দুর্ঘটনা তার সে ইচ্ছা পূরণ হতে দিল না। বৃহস্পতিবার নিহতের ফুফাত ভাই ও নাসিরনগর সদরের বাসিন্দা ব্যবসায়ী শরিফুজ্জামান চৌধুরী সুমন এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

সাইফুল ইসলামে রেজার বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার পূর্বভাগ ইউনিয়নের ভুবন গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের মাওলানা ইউনুসুর রহমান ছেলে। তিনি কোরআনে হাফেজ ছিলেন। সৌদি আরবে একটি মসজিদে মুয়াজ্জিন হিসেবে চাকরির পাশাপাশি অবসর সময়ে গাড়ি চালাতেন রেজা। তিনি দুই ছেলে ও এক মেয়ে সন্তানের বাবা ছিলেন।

ঘটনা সম্পর্কে নিহতের ফুফাত ভাই সুমন জানান, গত ছয় বছর আগে তার ফুফাতো ভাই সাইফুল ইসলাম রেজা সৌদি আরবে যান। সেখানে তিনি ও তার ছোট ভাই বসবাস করতেন। গত কিছুদিন আগে তার মা, বোন ও তার ছোট ভাইয়ের স্ত্রী সৌদি আরবে ওমরাহ হজ করতে যান। বৃহস্পতিবার তাদের ওমরাহ হজ পালনের কথা ছিল। পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ওমরাহ হজ পালন করার জন্যে পবিত্র নগরী মক্কায় যাওয়ার জন্য দাম্মাম থেকে গাড়ি চালিয়ে বাসায় ফিরছিলেন সাইফুল। পথে মরুভূমির নারিয়া এলাকায় তার মাইক্রোবাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায়। এ সময় গাড়িটিতে আগুন লেগে যায়। পরে পুলিশ এসে তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
জাতীয় প্রবাসী

করোনায় বাহরাইনে ৭০ বাংলাদেশি নাগরিকের মৃত্যু

করোনা মহামারিতে আক্রান্ত হয়ে বাহরাইনে ৭০ জন বাংলাদেশি নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে গত মে মাসেই মারা গেছে ৩২ জন বাংলাদেশি।

সে কারণে বাহরাইন সরকার কর্তৃক নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে অনুসরণ করার জন্য সবাইকে বিশেষ অনুরোধ জানিয়েছে বাংলাদেশ দূতাবাস।

মানামার বাংলাদেশ দূতাবাস সূত্র জানায়, বাহরাইনে বর্তমানে প্রতিদিন হাজার হাজার নাগরিক ও প্রবাসী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছে। করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যাও আশঙ্কাজনক হারে বাড়চ্ছে।

বাহরাইন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্যানুযায়ী, এ পর্যন্ত মোট ৭০ জন বাংলাদেশি কর্মী করোনায় মারা গেছে। তার মধ্যে মে মাসে ৩২ জন কর্মী মারা যান। এই অবস্থায় বাহরাইন সরকার কর্তৃক নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি, কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে গৃহীত নির্দেশনাবলী কঠোরভাবে অনুসরণ করার জন্য সবাইকে বিশেষভাবে অনুরোধ করা হয়েছে।

বাহরাইন সরকার শুরু থেকেই করোনা ভাইরাসের টিকা বাহরাইনে বসবাসরত প্রবাসীদেরকে বিনামূল্যে দিয়ে আসছে। বাহরাইনে বসবাসকারী সবাইকে টিকা গ্রহণের জন্য শুরু থেকেই সরকার অনেক তাগিদ দিচ্ছে। যারা টিকা নেয়নি তাদের ওপর অনেক বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। এই অবস্থায় সব বাংলাদেশি কর্মীকে টিকা নেওয়ার জন্য মানামায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত জোর তাগিদ দিয়েছেন।

ভয়েসটিভি/এএস

Categories
জাতীয় প্রবাসী

মালয়েশিয়ায় অর্ধশতাধিক বাংলাদেশি কর্মী গ্রেফতার

মালয়েশিয়ার একটি নির্মাণ স্থাপনায় অভিযান চালিয়ে ৬২ জন বাংলাদেশিসহ ১৫৬ জন অবৈধ অভিবাসী কর্মীকে গ্রেফতার করেছে দেশটির অভিবাসন বিভাগ।

৬ জুন রোববার রাতে দেশটির সাইবার জায়া এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয় বলে অভিবাসন বিভাগ সূত্রে জানা গেছে।

অভিযানে রয়েল মালয়েশিয়া পুলিশ (পিডিআরএম), জাতীয় নিবন্ধকরণ বিভাগ (জেপিএন), শ্রমবিভাগ (জেটিকে) ও জনপ্রতিরক্ষা বাহিনী (এপিএম) অংশ নেয়।

ইমিগ্রেশন বিভাগের মহাপরিচালক দাতুক সেরি ইন্দেরা খায়রুল দাযাইমি দাউদ বলেন, নির্মাণাধীন স্থাপনার পাশে বেড়া দিয়ে সুরক্ষিত থাকার কারণে জায়গাটি বেশ গোপন ছিল। অভিযানে প্রায় ২০২ জন বিদেশি নাগরিকের কাগজপত্র পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ৪৬ জনের বৈধ ওয়ার্ক পারমিট থাকায় তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়। ১৫৬ জনের বৈধ কাগজপত্র না থাকায় তাদের গ্রেফতার করে সেমুনিয়াহ ইমিগ্রেশন ডিপোর স্ক্রিনিং সেন্টারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, যেখান থেকে অবৈধ অভিবাসী কর্মীদের গ্রেফতার করা হয়েছে, সেখানে বিদেশি শ্রমিকদের দিয়ে চালিত স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং পদ্ধতি (এসওপি) ছিল না। বিদ্যুৎ ও পানি সরবরাহের অবৈধ সংযোগ ছিল।

গ্রেফতারদের মধ্যে ইন্দোনেশিয়ার ৪২ জন, বাংলাদেশের ৬২, নেপালের ২০, মিয়ানমারের ২৯, পাকিস্তান ও ভারতের একজন করে নাগরিক রয়েছেন।

ভয়েসটিভি/এএস

Categories
প্রবাসী

সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি নিহত

সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনায় মো. মোশারফ হোসেন (৩৫) নামে এক বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। ১৮ এপ্রিল রোববার বাংলাদেশ সময় ৩টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

মোশারফ হোসেন ফেনী সদর উপজেলার কালিদহ ইউনিয়নের পশ্চিম ছিলোনীয়া গ্রামের আমিন মিয়ার ছেলে।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, সৌদি আল দোকনা নামক স্থানে মোশাররফকে বহনকারী মাইক্রোবাস নিয়ন্ত্রন হারিয়ে দুর্ঘটনা ঘটলে ঘটনাস্থলে মারা যান। তিনি প্রায় ১৬ বছর প্রবাসে গাড়ি চালাতেন। তার মৃত্যুর খবরে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

এলাকাবাসী জানায়, মোশারফ দীঘদিন যাবত সৌদি আরব রয়েছেন। করোনার আগে বাড়িতে এসেছেন। সে বিবাহিত তার ছোট ছোট এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।

তার মেজো ভাই বেলাল হোসেন বলেন, পরিবারের উপার্জনের একমাত্র ব্যক্তি মোশারফ। নিহত মোশারফ হোসেনের লাশটা যেন সরকারি খরচে দেশে পৌঁছে এ জন্যে পরিবার সরকারের কাছে আকুল আবেদন জানিয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, তার পরিবারের এমন কোনো অর্থ নেই খরচ করে নিহত ব্যক্তির লাশ দেশে আনবে। নিহত মোশারফ চার ভাই এর মধ্যে তৃতীয়। নিহত ব্যক্তি সদর উপজেলার কালিদহ ইউনিয়ন পশ্চিম ছিলোনীয়া গ্রামের প্রকাশ দার কোনা বৌদ্ধ বাড়ির আমিন মিয়ার ছেলে এবং নির্বাচন অফিসে কর্মরত আলী হোসেন এর ভাই।

ভয়েসটিভি/এএস

Categories
প্রবাসী

ঘাতক দুই ভাই পেল না মা বাবা বোন নানির পাশে ঠাঁই

শেষ পর্যন্ত মা-বাবা-বোন আর নানির পাশে কবর হয়নি মানসিক বিকারগ্রস্ত ঘাতক দুই ভাইয়ের। পরিকল্পনা মোতাবেক পাশাপাশি চারটি কবর খোঁড়ার পর পঞ্চম ও ষষ্ঠটি খোঁড়ার সময় পানিতে ভরে যায় এ দুটি। শত চেষ্টা করেও পানি সরানো সম্ভব হয়নি। এ অবস্থায় বেশ কিছু দূরে শুকনা কবরের জায়গা খুঁজে সেখানেই দাফন করা হয়েছে তানভির তৌহিদ (২১) এবং তার ছোট ভাই ফারহান তৌহিদকে (১৯)।

গত ৮ এপ্রিল বিকালে টেক্সাস স্টেটের ডালাস সিটি সংলগ্ন এলেন সিটির অদূরে ডেন্টন মুসলিম গোরস্তানে এই কবর দেয়ার সময় দুই সহস্রাধিক শোকার্ত মানুষ জড়ো হন। তাদের আহাজারিতে পুরো এলাকা থমকে যায়। শোকে স্তব্ধ কমিউনিটির সঙ্গে জানাজা এবং দাফনের সময় শত শত আমেরিকানও আসেন। এলেন ইসলামিক সেন্টারে ৬ জনের জানাজা শেষে কফিনবাহী গাড়িকে স্কর্ট করে গোরস্তান পর্যন্ত নিয়ে যায় এলেন সিটির পুলিশ। কফিনের মিছিল অনুসরণ করে দুই হাজার মানুষের হাজারখানেক গাড়ি। দাফনের পর কবরে ফুলগাছ লাগানো হয়। অনেকে শেষ বিদায়ের সময় কান্নায় ভেঙে পড়েন।

বাংলাদেশি আমেরিকান এই পরিবারের ৬ সদস্যের গুলিবিদ্ধ লাশের হদিস মেলে গত সোমবার ভোররাতে। এলেন সিটির ১৫১৭ পাইন ব্লাফ ড্রাইভের বাসায় তৌহিদুল ইসলাম (৫৪), তার স্ত্রী আইরিন ইসলাম (৫৬), কন্যা পারভিন তৌহিদ (১৯) শাশুড়ি আলফাতুন্নেসা, দুই পুত্র তানভির এবং ফারহানকে নিয়ে বাস করতেন।

এদেরই লাশ উদ্ধারের পর ফারহানের ইন্সট্রগ্রামে পোস্টিংয়ে তদন্ত কর্মকর্তারা জানতে পারেন যে, মানসিক বিষন্নতায় আক্রান্ত ফারহানের পরামর্শে বড়ভাই তানভির সম্মত হন পরিবারের সবাইকে হত্যার পর নিজেরাও আত্মহত্যা করবেন। এ ব্যাপারে ফারহান তার দীর্ঘ পোস্টিংয়ে উল্লেখ করেন, ‘আমি যদি আত্মহত্যা করি তাহলে পরিবারের সবাই সারাটি জীবন কষ্ট পাবেন। তাই সবাই যদি একসঙ্গে মরে যেতে পারি তাহলে দুঃখ পাবার কেউই থাকবে না।’ ময়না তদন্তের পর চিকিৎসক এবং পুলিশ জানান, দুই ভাই মা-বাবা-বোন-নানিকে দুই রাউন্ড করে গুলি চালিয়ে হত্যা করেন। আর আত্মহত্যায় ব্যবহার করা হয় দুজনের জন্য দুই রাউন্ড বুলেট। মোট ১০টি বুলেটে ৬টি তাজা প্রাণ ঝরে গেছে।

পুরান ঢাকার সন্তান তৌহিদ ডিভি লটারিতে সপরিবারে যুক্তরাষ্ট্রে এসে কয়েক বছর নিউইয়র্কে কাটিয়ে ৮ বছর আগে স্থানান্তরিত হয়েছিলেন এলেন সিটিতে। সর্বশেষ পেশায় ছিলেন সিটি ব্যাংকের কর্মকর্তা হিসেবে। দুই পুত্র পড়ছিলেন ইউনিভার্সিটি অব টেক্সাসে। একমাত্র কন্যাটি পড়ছিলেন ফুল স্কলারশিপে নিউইয়র্ক ইউনিভার্সিটিতে। আমেরিকান স্বপ্ন পূরণে ধীর পায়ে এগুচ্ছিলেন তৌহিদ। কিন্তু মাঝপথে থামিয়ে দিল মানসিক বিকারগ্রস্ত দুই পুত্র।

ভয়েসটিভি/এএস

Categories
প্রবাসী

যুক্তরাষ্ট্রে একই পরিবারের ছয় বাংলাদেশির মরদেহ উদ্ধার

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের ডালাস শহরের উপকণ্ঠে একটি বাড়ি থেকে একই পরিবারের ছয় বাংলাদেশির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। স্থানীয় সময় সোমবার তাঁদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। সংবাদমাধ্যম দি ইন্ডিপেনডেন্ট এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে।

ওই পরিবারের সদস্যদের বিস্তারিত পরিচয় সম্পর্কে স্থানীয় পুলিশের পক্ষ থেকে এখনও কিছু জানানো হয়নি। তবে পুলিশ জানিয়েছে, মৃতদের মধ্যে দুই ভাই, এক বোন, তাঁদের মা-বাবা ও দাদি রয়েছেন। তাঁদের মধ্যে সবচেয়ে কনিষ্ঠজনের বয়স ১৯।

স্থানীয় পুলিশ জানায়, এখন পর্যন্ত নিহতের ঘটনার কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে ধারণা করা হচ্ছে, নিহত দুই ভাই এই ঘটনার নেপথ্যে ছিলেন।

পুলিশ সার্জেন্ট জন ফেল্টি বলছেন, ‘ধারণা করা হচ্ছে তাঁরা গুলিতে নিহত হয়েছেন। মনে হচ্ছে, দুই ভাই আত্মহত্যা করেছেন এবং এর আগে পরিবারের সদস্যদের হত্যা করেছেন।’

পুলিশ আরও জানায়, ওই পরিবারের ঘনিষ্ঠ এক ব্যক্তি পুলিশকে জানিয়েছিলেন, পরিবারটির কোনো সদস্য আত্মহত্যা করেছেন। এরপর পুলিশ ওই বাড়িতে যায়।

পুলিশের বরাত দিয়ে এনবিসি নিউজ জানায়, নিহত ব্যক্তিরা বাংলাদেশি অভিবাসী হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে এসেছিলেন।

ভয়েস টিভি/ডি