Categories
প্রবাসী

দক্ষিণ আফ্রিকায় বাংলাদেশি ব্যবসায়ীর মৃত্যু

দক্ষিণ আফ্রিকার ফ্রি স্টেইট প্রদেশের জাস্ট্রনে মিজানুর রহমান ফারুক নামে এক বাংলাদেশি ব্যবসায়ী হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ব্লুমফন্টেইনের পিলোনমি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। সেখানে স্থানীয় সময় ২৪ নভেম্বর মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় তিনি মারা যান।

মিজানুর রহমান নোয়াখালী জেলার কোম্পানীগঞ্জ থানার সিরাজপুর ইউনিয়নের বড় রাজাপুর গ্রামের কলিম উদ্দিন ভূঞাবাড়ির মো. মোস্তফা মিয়ার পুত্র।

দেশে তার বৃদ্ধ মা, স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছেন। তিনি ২০০৬ সাল থেকে দক্ষিণ আফ্রিকায় থাকতেন।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
প্রবাসী

আইএস ‘সম্পর্কে’ সিঙ্গাপুরে বাংলাদেশি আটক

সিঙ্গাপুরে ইসলামিক স্টেট গোষ্ঠীর (আইএস) সঙ্গে সন্ত্রাসবাদ সম্পর্কিত কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে ২৬ বছর বয়সী এক বাংলাদেশি গ্রেফতার হয়েছেন। স্থানীয় সময় ২৪ নভেম্বর মঙ্গলবার দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

ওই বিবৃতিতে বলা হয়, আহমেদ ফয়সাল নামে এক বাংলাদেশি নির্মাণ শ্রমিকের বিরুদ্ধে সিঙ্গাপুরে ইসলামিক স্টেট (আইএম) গোষ্ঠীর সঙ্গে সন্ত্রাসবাদ সম্পর্কিত কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার প্রমাণ পেয়েছে দেশটির অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বিভাগ।

বাংলাদেশি আহমেদ ফয়সাল ২০১৭ সালের শুরুতে নির্মাণ শ্রমিক হিসেবে দেশটিতে যান। পরে ইরাক ও সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেটের- আইএস’র পক্ষে অনলাইন প্রচারণার মাধ্যমে চরমপন্থী হয়ে ওঠেন।

তার অবস্থান এড়াতে সামাজিক মাধ্যমে ভুয়া নামে অ্যাকাউন্ট তৈরি করে সশস্ত্র সহিংসতার বিভিন্ন বিষয় শেয়ার করেন বলে জানা গেছে।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, কীভাবে ধারালো অস্ত্র ব্যবহার করে নিঃশব্দে হত্যা করতে হয়, তার হাতে আঁকা এমন ছবি এবং ছুরি পাওয়া গেছে। এছাড়া দেশে ফিরে কীভাবে সশস্ত্র হামলা করবে তাও সিঙ্গাপুর কর্তৃপক্ষের কাছে স্বীকার করেন ফয়সাল।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ফয়সাল বাংলাদেশে গিয়ে হিন্দু পুলিশ কর্মকর্তাদের ওপর হামলা চালানোর জন্য ছুরিগুলো বাংলাদেশে নিয়ে যেতে চেয়েছিলেন। তবে ফয়সালের সিঙ্গাপুরে সন্ত্রাসী হামলা চালানোর কোনো পরিকল্পনা ছিল কিনা তা এখনও পর্যন্ত তদন্তে জানা যায়নি।

সিঙ্গাপুর সরকার জানায়, সন্ত্রাসী হামলার ষড়যন্ত্রে জড়িত থাকার দায়ে তারা ১৫ বাংলাদেশি ও মালয়েশিয়ার এক নাগরিককে বহিষ্কার করে দেশে ফেরত পাঠিয়েছে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, সন্ত্রাসী কার্মকাণ্ডের সমর্থনে যেকোনো ধ্বংসাত্মক কাজের বিরুদ্ধে সিঙ্গাপুর সরকার খুব তৎপর। তাকে গত ২ নভেম্বর আটক করা হয়।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
প্রবাসী

ইতালি বাংলা প্রেসক্লাবের সভাপতি রিপন, সম্পাদক লিটন

ইতালি প্রবাসী বাংলাদেশি সাংবাদিকদের সমন্বয়ে গঠিত ‘ইতালি বাংলা প্রেসক্লাব’-এর নতুন কমিটি গঠিত হয়েছে। কমিটিতে ইতালি থেকে প্রকাশিত ‘দৈনিক প্রবাসী’ পত্রিকার সম্পাদক খান রিপনকে সভাপতি ও ডিবিসি টেলিভিশনের ইতালি প্রতিনিধি আমির হোসেন লিটনকে সাধারণ সম্পাদক মনোনীত করা হয়েছে।

২২ নভেম্বর রোববার স্থানীয় সময় দুপুরে ইতালির রোমের ভিয়া কাপুয়া-৪ এ আয়োজিত এক সভায় সর্বসম্মতিক্রমে এ কমিটি ঘোষণা করা হয়।

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- সিনিয়র সহসভাপতি এলিন আহমেদ মিঠু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শিমুল রহমান ও সাংগঠনিক সম্পাদক তারেক হাসান।

সভায় উপস্থিত ছিলেন আঁখি সীমা কাউসার, আফজাল,হোসেন রোমান,মনিকা ইসলাম, আরিফ হোসেন, সোহাগ খান এবং জমির হোসেন। এ সময় ভিডিও কনফারেন্সে সংযুক্ত হয়ে সম্মতি জানান আলম শাহ, মোল্লা মনিরুজ্জামান, আসলামুজ্জামান এবং টেলিফোনে মতামত জানান- ইউসুফ আলি, হাফিজুর রহমান মিতু, স্বপন দাস, এ.কে. জামান ও পলাশ রহমান।

সভার দ্বিতীয় অধিবেশনে নতুন কমিটি গঠনের জন্য সভাপতিত্ব করেন সিনিয়র সাংবাদিক অ্যাডভোকেট আনিচুজ্জামান আনিচ।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
প্রবাসী

জর্ডানে বাংলাদেশি পোশাক শ্রমিকদের কর্মবিরতি

জর্ডানের রামথা শহরে প্রায় সপ্তাহখানেক ধরে একটি কারখানায় বাংলাদেশি পোশাক শ্রমিকরা বেতন বাড়ানোর দাবিতে আন্দোলন ও ধর্মঘট করছেন।

জর্ডানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত নাহিদা সোবহান জানিয়েছেন, শহরটির আল হাসান শিল্প এলাকায় অবস্থিত ক্লাসিক ফ্যাশন অ্যাপারেলে এই আন্দোলন চলার সময় কিছু ভাঙচুরের ঘটনাও ঘটছে। খবর বিবিসির।

শ্রমিকদের অভিযোগ, এখন তাদের দেশে ফেরত পাঠানোর হুমকি দেয়া হচ্ছে। জর্ডানে বাংলাদেশ থেকে পুরুষ শ্রমিক নেয়ার ব্যাপারে আগ্রহ কম। কারণ তাদের বিরুদ্ধে এর আগে ভাঙচুরের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ ছিল।

এ ছাড়া একটি ডাস্টবিনে এক বাংলাদেশি নারী অভিবাসীর মরদেহ পাওয়া গেছে, যা নিয়ে স্থানীয় গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। পোশাক শ্রমিকরা তাকে নিজেদের একজন দাবি করে এ নিয়ে ক্ষোভ এবং আতঙ্ক প্রকাশ করেছেন।

আম্মানে বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে জানানো হয়েছে, এ ঘটনায় কোনো বাংলাদেশি আটক হননি। তবে ঘটনা সামাল দিতে সেখানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিল।

দেশটির সবচেয়ে বড় তৈরি পোশাক প্রতিষ্ঠান এই ক্লাসিক ফ্যাশন অ্যাপারেল। কারখানার শ্রমিকদের বেশিরভাগ নেয়া হয়েছে বাংলাদেশ থেকে।

কোম্পানিটির ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যানুযায়ী, সেখানে ৩০ হাজারের মতো শ্রমিক রয়েছে।

দেশটিতে মানবাধিকার ও আইনি সহায়তা দেয়, এমন একটি সংস্থা তামকিন ফর লিগ্যাল এইড অ্যান্ড হিউম্যান রাইটস বলছে, এই শ্রমিকদের অর্ধেকের বেশি বাংলাদেশি নারী শ্রমিক।

তাবাসের তথ্যমতে, জর্ডানে আনুমানিক ৭০ হাজারের মতো বাংলাদেশি শ্রমিক রয়েছে, যার অর্ধেকের বেশি পোশাক শ্রমিক।

বাংলাদেশের ঝিনাইদহ জেলা থেকে যাওয়া এক শ্রমিক বছরখানেক হলো ক্লাসিক ফ্যাশন অ্যাপারেলে মেশিন অপারেটর হিসেবে কাজ করছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এই শ্রমিক গণমাধ্যমকে জানান, এখানে পোশাক কারখানার ম্যানেজার ও সুপারভাইজারদের বেতন বাড়িয়ে দেয়া হয়েছে। কিন্তু শ্রমিকদের বেতন না বাড়ানোর কারণে তারা আন্দোলনে গেছেন।

তাদের সঙ্গে আন্দোলনে সব শ্রমিক যোগ দিয়েছে। দুদিন আগে রাত ১১টার দিকে কয়েকটি গাড়িতে করে লোকজন হোস্টেল থেকে একটা মেয়েকে তুলে নিয়ে গেছে। আর একটা মেয়ে ব্যাংকে গিয়ে আর ফেরেনি। এ নিয়ে তারা এখন খুব ভয়ের মধ্যে আছেন বলে জানান।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
প্রবাসী

এথেন্সে প্রথম মসজিদের উদ্বোধন

সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে গ্রিসের রাজধানী এথেন্সে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রথম মসজিদের উদ্বোধন করা হয়েছে। ১৩ নভেম্বর শুক্রবার জুমার নামাজের মধ্য দিয়ে মসজিদের কার্যক্রম শুরু হয়।

তবে সেকেন্ড ওয়েভে ইউরোপের অন্যান্য দেশের মতো গ্রিসেও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় নিরাপদ সামাজিক দূরত্ব ও কঠোর স্বাস্থ্যবিধির মধ্য দিয়ে আপাতত স্বল্পসংখ্যক মুসল্লির উপস্থিতিতে এ মসজিদের কার্যক্রম শুরু করা হয়।

গ্রিসে বসবাসরত ইসলাম ধর্মাবলম্বী মানুষের একটা বড় অংশ তুর্কি ও আলবেনিয়ান বংশোদ্ভূত। এছাড়াও বেশ কিছুসংখ্যক গ্রিকভাষী মানুষ রয়েছেন যারা জন্মগতভাবে মুসলিম। গ্রিসের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে অবস্থিত থ্রেস দেশটির সর্ববৃহৎ মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ অঞ্চল এবং গোটা ইউরোপের মধ্যে থ্রেসই একমাত্র অঞ্চল যেখানে শরীয়াহ আইন চালু রয়েছে।

মূলত তুরস্কের অটোমান সাম্রাজ্যের হাত ধরে গ্রিসে ইসলামের বিস্তৃতি ঘটে। ১৮২১ সালে এথেন্সসহ বর্তমান গ্রিসের বেশ কিছু অঞ্চল অটোমান শাসন থেকে নিজেদের মুক্ত করার জন্য স্বাধীনতার আন্দোলনের ডাক দেয়। অবশেষে ১৮২২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় প্রথম হেলেনিক প্রজাতন্ত্র; যার রাজধানী হিসেবে নির্বাচিত করা হয় এথেন্সকে। ১৮৩৩ সাল থেকে তদান্তীন হেলেনিক প্রজাতন্ত্রের সরকারের অর্থায়নে এথেন্সে একটি মসজিদ নির্মাণের প্রচেষ্টা চালিয়ে আসছিলেন এ অঞ্চলে বসবাস করা মুসলিম ধর্মাবলম্বী মানুষেরা। এমনকি ১৮৯০ সালে সরকারিভাবে এথেন্সে মসজিদ নির্মাণের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছিল। তবে বিভিন্ন সময়ে দেশটির অতি ডানপন্থী ও রক্ষণশীল রাজনৈতিক জোটগুলোর তীব্র বিরোধিতা, বিভিন্ন ধরনের আমলাতান্ত্রিক জটিলতা, অর্থোডক্স চার্চগুলোর বাধা এবং আর্থিক অনটনের মাঝে সুদীর্ঘকাল সেখানে মসজিদ নির্মাণের বিষয়টি আলোর মুখ দেখেনি।

গ্রিসের সঙ্গে তুরস্কের রাজনৈতিক বৈরিতা দীর্ঘদিনের। এ কারণে গ্রিসের অনেক সাধারণ মানুষও এতদিন পর্যন্ত এথেন্সে মসজিদ নির্মাণের বিষয়ে প্রতিবাদ জানিয়ে আসছিল। তাদের অনেকের মতে গ্রিসে নতুন করে কোনো মসজিদ নির্মাণ করার অর্থ পুনরায় দেশটিতে অটোমান সাম্রাজ্যের ইতিহাসের পুনর্জাগরণ ঘটানো। উল্লেখ্য, ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের দেশগুলোর মাঝে এতদিন পর্যন্ত এথেন্স ছিল একমাত্র রাজধানী শহর যেখানে সরকারিভাবে কোনো মসজিদ ছিল না।

গ্রিক সরকারের অর্থায়নে নির্মিত এ মসজিদটি তৈরি করতে আনুমানিক ৮,৮৭,০০০ ইউরো খরচ হয়েছে। ২০১৬ সালে চূড়ান্তভাবে এ মসজিদের নির্মাণকাজ শুরু করা হয় এবং ২০১৭ সালে এর নির্মাণকাজ শেষ হয়। গ্রিসের শিক্ষা ও ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রী কোস্তাস গাভ্রোগলু গত সপ্তাহে এক রেডিও সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন এ মসজিদে একসঙ্গে ৩৫০ জন মানুষ নামাজ আদায় করতে পারবেন। প্রাথমিকভাবে এ মসজিদের নাম রাখা হয়েছে ভোতানিকোস মসজিদ।

এথেন্সের হার্টখ্যাত সিনতাগমা স্কয়ার থেকে প্রায় চার কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমে নৌবাহিনীর একটি পরিত্যক্ত ঘাঁটির ওপর নির্মাণ করা হয়েছে এ মসজিদ। তবে গতানুগতিক মসজিদগুলো থেকে কিছুটা ভিন্ন হওয়ায় বিশেষত কোনো ধরনের মিনার বা গম্বুজ না থাকায় অসন্তোষ জানিয়েছেন দেশটিতে বসবাসরত মুসলিম জনগোষ্ঠীর অনেকে।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
প্রবাসী

৩০ বছর পরে দেশে ফিরছেন ঠিকই কিন্তু কফিনে

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের নির্বাহী সদস্য মোস্তফা কামাল পাশা মানিক (৭২) মারা গেছেন। টানা ৩০ বছর পর শেষমেষ কফিনে করেই বাংলাদেশে ফিরছেন এ প্রবাসী।

১০ নভেম্বর মঙ্গলবার সকালে নিউ ইয়র্কে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি মারা যান বলে জানিয়েছেন তার ছোট ভাই মো. সেলিম। দ্রুতই তার মরদেহ বাংলাদেশে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

তিনি জানান, সন্দ্বীপের গাছুয়ার সন্তান মানিক যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছিলেন ৩৫ বছর আগে। এর ৫ বছর পর কেবল একবার বাংলাদেশে গিয়ে স্ত্রী-সন্তানের সঙ্গে দেখা করেছেন। তারপর কেটে গেছে ৩০ বছর, দেশটির গ্রিনকার্ডও পাননি তিনি। তবে তার একমাত্র মেয়ে বর্তমানে ওয়াশিংটন ডিসিতে বাস করছেন।

পেশায় নির্মাণ-ঠিকাদার মানিক বাস করতেন নিউ ইয়র্কের ব্রুকলিনে চার্চ-ম্যাকডোনাল্ড সংলগ্ন এলাকায়। বছর দুয়েক আগে তার এক ছোটভাই মারা যাবার পর সেই ভাইয়ের স্ত্রী-সন্তানদের সঙ্গে একই বাসায় বসবাস করছিলেন তিনি।

মানিক ‘গাছুয়া জনকল্যাণ সমিতির’ সভাপতি, ‘যুক্তরাষ্ট্র সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের’ নির্বাহী সদস্য এবং ‘বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের’ ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। মৃত্যুর আগের দিন সন্ধ্যায় জ্যাকসন হাইটসে বাইডেন-কমলার বিজয়ে জনতার উল্লাস ও মিষ্টি বিতরণ কার্যক্রমেও উপস্থিত ছিলেন তিনি।

আরও পড়ুন: পাঠান নিয়ে ফিরছেন শাহরুখ, থাকছেন সালমানও!

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
প্রবাসী

সৌদিতে করোনা সংক্রমণ সাড়ে ৩ লাখ ছাড়িয়েছে

সৌদি আরবে মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন সাড়ে ৩ লাখেরও বেশি মানুষ। আর গত ২৪ ঘণ্টায় সৌদি আরবে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৯৪ জন। দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৩ লাখ ৫১ হাজার ৮৪৯ জন।

১১ নভেম্বর বুধবার দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ তথ্য জানিয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে মারা গেছেন ১৪ জন। এনিয়ে দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজার ৫৯০ জনের।

নতুন করে গত এক দিনে সুস্থ হয়েছেন ৪২১ জন। এ নিয়ে দেশটিতে সর্বমোট সুস্থ হয়েছেন ৩ লাখ ৩৮ হাজার ৭০২ জন।

আরও পড়ুন: পোশাকের সমালোচনায় নেটিজেনরা, প্রতিক্রিয়াহীন ‘পাখি’ 

ভয়েস টিভি/একে /এসএফ

Categories
প্রবাসী

ভিজিট ভিসার যাত্রীদের বিমানবন্দরে হয়রানি

করোনাভাইরাসের ফলে দীর্ঘদিন আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ থাকায় বাংলাদেশে ছুটিতে যাওয়া প্রবাসীরা আটকে পড়েছেন। সীমিত সময়ের জন্য ছুটিতে গিয়ে দীর্ঘদিন আটকে থাকার ফলে অর্থকষ্টে জীবন যাপন করছে প্রবাসী পরিবারগুলো।

এদিকে অর্থনৈতিক ক্ষতি বিবেচনা করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে অনেক দেশ সীমিত পরিসরে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু করেছে। কিন্তু কুয়েত সরকার বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, নেপাল, মিসরসহ ৩৪ দেশের নাগরিকদের দেশটিতে প্রবেশে এখনো নিষেধাজ্ঞা জারি রয়েছে।

নিষিদ্ধ দেশের নাগরিকরা ৩৪ দেশ ব্যতীত অন্য কোনো দেশ হয়ে কুয়েত প্রবেশে কোনো বাধা নেই। সরাসরি ফ্লাইট বন্ধ থাকার কারণে আরব আমিরাত সরকার ভিজিট ভিসা সহজ করে দেয়ায় মিসর, ভারত, পাকিস্তানের নাগরিকরা ফিরছে কর্মস্থল কুয়েতে।

বাংলাদেশি নাগরিকদের ভিজিট ভিসায় কর্মস্থল কুয়েতে আসতে হলে গুনতে হচ্ছে দ্বিগুণ টাকা। এছাড়া বাংলাদেশে বিমান বন্দরে কন্ট্রাক্ট ছাড়া ভিজিট ভিসায় প্রবাসীদের বিভিন্ন ওজুহাতে হয়রানির অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা গেছে, যারা দুবাইয়ের ভিজিট ভিসা জন্য সিন্ডিকেট অথবা ট্রাভেল এজেন্সির মাধ্যমে দুই থেকে তিন লাখ টাকায় কন্ট্রাক্ট করে আসে তাদের বাংলাদেশে বিমানবন্দরে হয়রানির শিকার হতে হয় না।

চট্টগ্রামের কুয়েত প্রবাসী সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘শুনেছি এয়ারপোর্ট চুক্তি করতে হয় কিন্তু আমি করিনি। অন্য একজন লোকের মারফতে জানতে পারি বিমানবন্দরের ভেতরে সিন্ডিকেটের লোক আছে তাদের টাকা দিলে ছেড়ে দেবে।’

তিনি বলেন, আমার সব কাগজপত্র ঠিক থাকার পরও আমাকে বোর্ডিং পাস দেয়া হচ্ছে না। পরে আমি তাদের চাহিদা মতো সেই অদৃশ্য কন্ট্রাক্টের টাকা দিতে রাজি হতে আমাকে বোর্ডিং পাস দেয়া হয়। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পুরো একটা সিন্ডিকেট এর সঙ্গে জড়িত। আমার কোম্পানিতে ভারত পাকিস্তানের সহকর্মীরা ১ থেকে দেড় লাখ টাকায় ভিজিট ভিসায় কুয়েতে পৌঁছেছে।

তিনি আরও বলেন, ‘সরকারের উচিত করোনা কারণে আটকেপড়া প্রবাসীদের কিভাবে কর্মস্থলে ফিরতে পারে সেটার ব্যবস্থা করা এবং বিমান বন্দরে প্রবাসীদের হয়রানি বন্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা।’

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
প্রবাসী

মরিশাসে সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ বাংলাদেশি নিহত

পূর্ব আফ্রিকার দ্বীপ রাষ্ট্র মরিশাসে সড়ক দুর্ঘটনায় চার বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। এতে অন্তত আরও ২০ জন আহত হয়েছেন। ৫ নভেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ভারত মহাসাগরের দ্বীপরাষ্ট্রটির রাজধানী পোর্ট লুইসের পাইল নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, আহতদের মধ্যে দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাদের পার্শ্ববর্তী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হতাহত সবাই দেশটির হাইবেক পার্টনার নির্মাণ কোম্পানিতে কাজ করতেন।

এক প্রবাসী বাংলাদেশি জানান, শ্রমিকরা বাসযোগে কাজে যাচ্ছিলেন। হঠাৎ গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাইল নামক স্থানে একটি বাসস্ট্যান্ডের ভেতরে ঢুকে পড়ে। এতে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

নিহত চারজনের মরদেহ যত তাড়াতাড়ি সম্ভব দেশে পাঠানো হবে বলে দূতাবাস থেকে জানানো হয়েছে। এ ঘটনায় দেশটিতে প্রবাসী বাংলাদেশি কমিউনিটিতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
প্রবাসী

মার্কিন নির্বাচনে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত আবুলের জয়, ডোনার হার

টানা তৃতীয়বারের মতো যুক্তরাষ্ট্রের নিউ হ্যাম্পশায়ার অঙ্গরাজ্যের হাউজ অফ রিপ্রেজেনটেটিভসের সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত রিপাবলিকান পার্টির নেতা আবুল বি খান। অন্যদিকে টেক্সাসের ডিস্ট্রিক্ট থেকে হেরেছেন আরেক বাংলাদেশি-আমেরিকান ডোনা ইমাম।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে আবুল নিজেই জয়ের বিষয়টি জানিয়েছেন। স্ট্যাটাসে নির্বাচনে ভোট দেয়া এবং ভোটের আগে প্রচারণায় সাহায্য করার জন্য তিনি শহরের বাসিন্দাদের ধন্যবাদ জানান তিনি।

নিজ নিজ বাসা-বাড়ি বা প্রতিষ্ঠানে নির্বাচনী প্রচারণার ব্যানার সংরক্ষণ করার জন্য কৃতজ্ঞতাও প্রকাশ করেন তিনি।

নাগরিকদের পক্ষ থেকে শহরের বিভিন্ন বিষয় হাউজে তুলে ধরার আশাবাদ ব্যক্ত করেন আবুল বি খান। সবাইকে নিয়ে একসঙ্গে কাজ করার অঙ্গীকারও করেন তিনি।

৩ নভেম্বর সকালে শুরু হয় বহুল আলোচিত এবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। করোনা মহামারির কারণে রেকর্ডসংখ্যক পোস্টাল ভোট পড়ে এবার।

ডোনা হেরেছেন বর্ষীয়ান রিপাবলিকান রাজনীতিবিদ জন কার্টারের কাছে। কার্টার ২ লাখের বেশি ভোট পেয়েছেন। সেখানে ডোনা পেয়েছেন প্রায় পৌনে দুই লাখ।

মার্কিন নির্বাচনে এবার পাঁচজন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত রাজনীতিবিদ অংশ নিয়েছেন। টেক্সাসের অস্টিন থেকে যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসে একমাত্র বাংলাদেশি প্রতিদ্বন্দ্বী ডেমোক্রেটিক দলের প্রার্থী ছিলেন এই ডোনা ইমাম। জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যের স্টেট সিনেটর শেখ রহমান, নিউ হ্যাম্পশায়ার অঙ্গরাজ্যের হাউজ অব রিপ্রেজেনটেটিভ আবুল বি. খান ও পেনসিলভানিয়া অঙ্গরাজ্যের অডিটর জেনারেল পদপ্রার্থী ও সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার উপদেষ্টা ড. নীনা আহমেদ।

এ ছাড়া রয়েছেন ড. এমডি রাব্বি আলম মিশিগান স্টেট থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে হাউস অব রিপ্রেজেনটেটিভ পদে।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত পাওয়া ফলাফলে দেখা গেছে, নীনা আহমেদ বেশ পিছিয়ে রয়েছেন।

ভয়েস টিভি/এসএফ