Categories
প্রবাসী

অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশে ফিরছেন ১৫৭ বাংলাদেশি


ভয়েস রিপোর্ট: করোনা পরিস্থিতিতে অস্ট্রেলিয়াতে আটকে পড়া ১৫৭ প্রবাসীকে দেশে ফিরিয়ে আনতে একটি বিশেষ ফ্লাইট ঢাকার উদ্দেশ্য রওয়ানা হয়েছে। মেলবোর্ন থেকে ছেড়ে আসা শ্রীলঙ্কান এয়ারলাইনসের ওই ফ্লাইটটি কলম্বোতে যাত্রা বিরতি করবে। ধারণা করা হচ্ছে, শুক্রবার রাত ১২টা ৪০ মিনিটে প্লেনটি ঢাকায় পৌঁছাবে। এই পুরো প্রক্রিয়ায় অস্ট্রেলিয়ায় অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস সহযোগিতা করছে। দূতাবাসের পক্ষ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনা ভাইরাসের কারণে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট স্থগিত হয়। এই কারণে অস্ট্রেলিয়াতে আটকে পড়া বাংলাদেশিরা দেশে ফিরতে চায় কিনা সেটি জানতে একটি নোটিশ দেয় দূতাবাস। ওই নোটিশের পর ৩৪০ জন আগ্রহ প্রকাশ করে। এই আগ্রহের পরিপ্রেক্ষিতে সিডনি থেকে ঢাকা আসার জন্য একটি বিশেষ ফ্লাইটের ব্যবস্থা করার উদ্যোগ নেয় দূতাবাস। কিন্তু ওই ফ্লাইটে অনেকে অনাগ্রহ দেখালে শ্রীলঙ্কান এয়ারলাইনসের ছোট একটি প্লেনের ব্যবস্থা করা হয়। ফ্লাইটটি মেলবোর্ন থেকে রওনা হয়। যাত্রা শুরুর ৭২ ঘণ্টা আগে সব যাত্রীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়।

Categories
প্রবাসী সারাদেশ

চলতি মাসেই ফিরছে ২৯ হাজার প্রবাসী

ভয়েজ রিপোর্ট : চলতি মাসেই বিদেশ থেকে প্রায় ২৮ হাজার ৮৪৯ জন প্রবাসী নাগরিক দেশে ফিরবে । পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এক বৈঠক শেষে বুধবার এমনটাই জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন। তিনি বলেন করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্বব্যাপী সৃষ্ট পরিস্থিতিতে আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে বিভিন্ন দেশ থেকে প্রবাসী কর্মীরা ফিরে আসবে ।
তিনি বলেন, ‘মধ্যপ্রাচ্য থেকে ৩ হাজার ৭৯৫ জন বাংলাদেশি ফেরত এসেছেন। এদের মধ্যে অধিকাংশই সেখানকার জেলে ছিলেন এবং তাদের সাধারণ ক্ষমা করা হয়েছে। এছাড়াও ওমরাহ পালনকারী কিছু এসেছেন। কিছু অনিবন্ধিত শাস্তিপ্রাপ্ত প্রবাসীও ফিরেছেন।’

মন্ত্রী বলেন, ‘এছাড়া ভারত, চীন, জাপান এবং সিঙ্গাপুরে গিয়ে যেসব বাংলাদেশিরা আটকে গেছেন, এমন ২ হাজার ৮৫৩ জনকে ফেরত এনেছি। আরও কিছু আনার জন্য ভাড়া করা ফ্লাইটের ব্যবস্থা করছি। যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র থেকেও ফেরানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।’

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে প্রবাসী নাগরিকদের জন্য করণীয় নিয়ে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমেদ, পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেনসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে এক ভিডিওবার্তায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন জানান, আগামী কয়েক সপ্তাহে ২৮ হাজার ৮৪৯ জন প্রবাসী নাগরিক দেশে ফিরবেন। এছাড়া মধ্যপ্রাচ্য থেকে অনেকেই দেশে ফিরছেন। গত সপ্তাহে মধ্যপ্রাচ্য থেকে তিন হাজার ৬৯৫ জন বাংলাদেশি নাগরিক ফিরেছেন।

‘মধ্যপ্রাচ্যে যারা জেলে ছিলেন তাদের সেখানে মাফ করে দেওয়া হয়েছে। কুয়েত সরকার অনিবন্ধিত শ্রমিকদের ক্ষমা করে দিয়েছেন। সেখানে প্রায় সাড়ে চার হাজার বাংলাদেশি অনিবন্ধিত রয়েছেন। আমরা তাদের ফেরত নিয়ে আসবো।’

মন্ত্রী বলেন, মালদ্বীপে প্রবাসীদের অসুবিধা যেন না হয়, সেখানে আমরা খাবার পাঠিয়েছি। আগামীকাল সেখান থেকে ৪শ বাংলাদেশি দেশে ফিরবেন।

‘কুয়েত থেকে বাংলাদেশিরা ফিরবেন। ওমান থেকে ফিরবেন। সৌদি আরব থেকে চার হাজার বাংলাদেশি ফিরবেন। ইরাকে অনেক লোকের চাকরি চলে গেছে। আমরা সেটা দেখছি।’

মন্ত্রী জানান, সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে কেউ করোনা ভাইরাসে মারা গেলে সেখান থেকে মরদেহ দেশে আনা যাবে না। তারা তাদের দেশে দাফন করবে। তবে অন্য কোনো দেশ থেকে পাঠালে সেই মরদেহ পরিবারের কেউ দেখতে পাবেন না। তাই আমরা চাই, যেখানেই কেউ মারা যান, সেখানেই দাফন করা প্রয়োজন। সেটা হলেই ভালো হবে।

Categories
প্রবাসী

চাঁদপুরের দিজেন্দ্র নারায়ণ চক্রবর্তী আর নেই

চাঁদপুর প্রতিনিধি: চাঁদপুরের প্রথম শহীদ কালাম-খালেক-সুশীল-শংকরের সহযোদ্ধা ও বোমা তৈরির প্রশিক্ষক দীজেন্দ্র নারায়ন চক্রবর্তী আর নেই। গত ৪ মে রাতে কোলকাতার একটি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

১৯৭১ সালের ৩ এপ্রিল দেশকে শক্রমুক্ত করতে বোমা বানাতে গিয়ে বোমা বিস্ফোরণে আহত চাঁদপুরের ট্রাক রোডের পোদ্দার বাড়ির ট্রাজেডির প্রধান নায়ক একমাত্র জীবিত চাঁদপুরের প্রথম মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োকেমিষ্ট্রির ছাত্র দিজেন্দ্র নারায়ণ চক্রবর্তী (খোকন)।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল (৭২) বছর। তিনি দীর্ঘ দিন ধরে কিডনী ও লিভারের সমস্যায় ভুগছিলেন। চাঁদপুর সদর উপজেলার মৈশাদী ইউনিয়নের লনিনী রঞ্জন চক্রবর্তী ও বিন্দু বাসীনি চক্রবর্তীর সন্তান তিনি।

মুক্তিযুদ্ধের সময় ট্রাক রোডের পোদ্দার বাড়িতে বোমা বানাতে গিয়ে তিনি আহত হন। আর মারা যান কালাম-খালেক-সুশিল-শংকর। দিজেন্দ্র চক্রবর্তী আহত হয়ে বেঁচে গেলেও রাষ্ট্রীয় ভাবেও কোন সাহায্য সহযোগিতা ও সম্মান পায়নি।

Categories
প্রবাসী

করোনা ভাইরাসে ৪ শতাধিক প্রবাসীর মৃত্যু

ভয়েজ ডেস্ক : করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন দেশে দেশে মৃত্যুবরণ করছেন ৪ শতাধিক প্রবাসী বাংলাদেশিরা । বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশের দূতাবাস, প্রবাসে কমিউনিটি ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী শুক্রবার ( ১ মে ) পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিদেশে অন্তত ৪০৪ জন বাংলাদেশি নাগরিক মৃত্যুবরণ করেছেন।
সূত্র জানায়, যুক্তরাষ্ট্রে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি বাংলাদেশি নাগরিকের মৃত্যুবরণ করেছেন। শুক্রবার ( ১ মে ) পর্যন্ত শুধু যুক্তরাষ্ট্রে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে অন্তত ২১৭ বাংলাদেশির। বিদেশে থাকা বাংলাদেশি নাগরিকদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি করোনা ভাইরাসের ঝুঁকির মুখে রয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রবাসী বাংলাদেশিরা। এছাড়া সেখানে আরও কয়েকশ বাংলাদেশি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের পর সবচেয়ে বেশি প্রবাসী নাগরিক মারা গেছেন যুক্তরাজ্যে। সেখানে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন শতাধিক বাংলাদেশি। যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যে করোনার প্রকোপ বেশি। আবার সেখানে বাংলাদেশি নাগরিকরাও বেশি। সে কারণে এই দুই দেশেই বেশি সংখ্যক বাংলাদেশির মৃত্যু হচ্ছে। এদিকে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সৌদি আরবে ৪৯ জন বাংলাদেশি নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে।

এছাড়াও সংযুক্ত আরব আমিরাতে ১৫, কানাডায় ৭ জন, ইতালিতে ৭, স্পেনে ৫, কাতারে ৪, লিবিয়ায় ১, সুইডেনে ১, গাম্বিয়ায় ১ ও কেনিয়ায় ১ বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে।

সিঙ্গাপুরে প্রথম বাংলাদেশি প্রবাসীরা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হন। সেখানে এই পর্যন্ত প্রায় চার হাজার বাংলাদেশি নাগরিক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তবে সেখানে কোনো বাংলাদেশির মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি।

Categories
অপরাধ অর্থনীতি খেলার খবর চিকিৎসা জাতীয় ধর্ম প্রবাসী বিনোদন বিশ্ব ভ্রমণ মুক্তমত রাজনীতি শিক্ষাঙ্গন সারাদেশ

করোনা প্রতিরোধে অসহায়দের পাশে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী

করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে সেনাবাহিনীর সদস্যরা। আজও কয়েকটি জেলায় খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন তারা। পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন স্থানে করোনা পরিস্থিতে কর্মহীন হয়ে পড়া শ্রমজীবী, দুস্থ ও ছিন্নমূল মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের কর্মকর্তারা। অসহায়দের পাশে দাঁড়িয়েছে বেসরকারি সংগঠনও।

সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতে প্রশাসনকে সহযোগিতার পাশাপাশি অসহায় ও দুস্থদের পাশে দাঁড়িয়েছে সেনাবাহিনী। এর অংশ হিসেবে শুক্রবার সকালে রাজশাহীতে পদ্মাপাড়ের দরগাপাড়া ও বালুচর এলাকায় দুস্থ পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করে। এ সময় উপস্থিত প্রতিবন্ধী ও বৃদ্ধদের ঘরে ঘরে ত্রাণ পৌঁছে দেয়া হয়। পরে নগরীর দাসপুকুর ও বহরমপুর এলাকায় আরও দেড় শতাধিক দরিদ্র পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন সেনা সদস্যরা।

কুমিল্লায় বেতনের একটি অংশ দিয়ে দরিদ্র ও কর্মহীনদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন সেনাসদস্যরা। সকালে জেলা প্রেসক্লাবের সামনে রিকশা চালকসহ অস্বচ্ছল পরিবারের মাঝে ত্রাণ সহায়তা তুলে দেয়া হয়। চাল,ডাল, তেল ও সবজিসহ এগারটি পণ্য বিতরণ আগামীতেও অব্যাহত থাকবে বলে জানান সেনাবাহিনীর লে. কর্নেল মাহবুব আলম।

গাজীপুরে কর্মহীন দশ হাজার মানুষের মাঝে চাল,ডাল আলুসহ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন শ্রীপুরে উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল। সকাল থেকে উপজেলার ইউনিয়নে ইউনিয়নে গিয়ে এসব বিতরণ করা হয়। খাদ্য সামগ্রী পেয়ে খুশি ঘরবন্দি মানুষ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগে দরিদ্র ও কর্মহীন শ্রমজীবী পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেয়া হয়। সকালে শহরের মধ্যপাড়ায় দেড় হাজার কর্মহীন পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন পৌর কাউন্সিলর কাউছার আহমেদ। এদিন জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সেলুনকর্মী, নির্মাণ শ্রমিক ও জেলে সম্প্রদায়ের ২শো কর্মহীন মানুষের মাঝে ত্রাণ সহায়তা দেয়া হয়।

খাগড়াছড়ির খাগড়াপুর এলাকায় ত্রাণ বিতরণ করেন জেলা পরিষদের সদস্য পার্থ ত্রিপুরা। সামাজিক দূরত্ব মেনে প্রথম দিনে, ৪শ পরিবারকে চাল-ডালসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী তুলে দেয়া হয়। পর্যায়ক্রমে আরও তিন হাজার পরিবারকে ব্যক্তি উদ্যোগে ত্রাণ সহায়তা দেয়ার ঘোষণা দেন তিনি।

চাঁদপুরে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির পক্ষ থেকে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। শুক্রবার সদর উপজেলার খেরুদিয়া এবং বালুধুম স্কুল মাঠে উপস্থিতি ২ হাজার মানুষের হাতে খাদ্যসামগ্রী তুলে দেয়া হয়। করোনা পরিস্থিতিতে ৬০ হাজার পরিবারকে সহায়তা দেয়া হচ্ছে বলে জানায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ।

যশোরে প্রবাসীদের পাঠানো অর্থে কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্য সহায়তা দেয়া হয়েছে। সকালে ঝিকরগাছা উপজেলার উজ্জলপুরে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে দুই হাজারের বেশি শ্রমজীবীদের মাঝে চাল-ডালসহ নিতপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়।

নীলফামারীতে ভিক্ষুকদের মাঝে ত্রাণ সহায়তা দিচ্ছে গ্রামীণ ব্যাংক। প্রথমদিন শুক্রবার, সৈয়দপুরে সাড়ে সাতশ’ জনকে এক মাসের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। প্রত্যেকেকে ত্রিশ কেজি চালসহ ৬টি পণ্য এবং ৬ শ টাকা দেয়া হয়। পর্যায়ক্রমে ৩ হাজার ১ শ ৫০জন ভিক্ষুককে খাদ্যসহায়তা দেয়া হবে।

এদিকে কর্মহীন হয়ে পড়া দিনমজুর ও হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে শাকসবজি ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেন ফেনীর প্যানেল মেয়র। সার্কিট হাউজের সামনে এ সামগ্রী বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক।

পিরোজপুরে কর্মহীন পরিবাবের শিশুদের জন্য শিশুখাদ্য বিতরণ করেছে একটি বেসরকারি সংগঠন। শহরের রাজারহাটে ব্যতিক্রমী এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক। এ সময়, শতাধিক শিশুর মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়।

অন্যদিকে, সেচ্ছাসেবী সংগঠনের উদ্যোগে ঠাকুরগাঁওয়ে অসহায় দরিদ্রদের মাঝে বিনামূল্যে সবজি বিতরণ করা হয়। শহরের সমবায় মার্কেট চত্বরে বাজার মুল্যের চেয়ে ৩০ ভাগ কমে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য বিক্রি করা হয়। এসময় প্রত্যেক ক্রেতাকে বিনামূল্যে সবজি দেয়া হয়।

এছাড়াও দেশের বিভিন্ন স্থানে কর্মহীন হয়ে পড়া শ্রমজীবী, দুস্থ ও ছিন্নমূল মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছে জেলা-উপজেলা প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি ও বেসরকারি সংগঠন।

Categories
অপরাধ অর্থনীতি খেলার খবর জাতীয় ধর্ম প্রবাসী বিনোদন বিশ্ব ভিডিও সংবাদ ভ্রমণ মুক্তমত রাজনীতি শিক্ষাঙ্গন সারাদেশ

করোনা ইস্যুতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ডাকে সাড়া দিল না যুক্তরাষ্ট্র!

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের মহামারি চলছে।আর এর মধ্যেও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডাব্লিউএইচও) সঙ্গে বিবাদ অব্যাহত রেখেছে যুক্তরাষ্ট্র।করোনা সংকট রোখার রণকৌশল ঠিক করতে শুক্রবার বিশ্বের বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রনায়ককে বৈঠকে আমন্ত্রণ জানায় ডাব্লিউএইচও। বৈঠকে একাধিক বিশ্ব নেতা ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে অংশ নেয়। তবে হাজির ছিলেন না যুক্তরাষ্ট্রের কোনও প্রতিনিধি।

নিজের দেশে করোনার মৃত্যুমিছিল স্বত্বেও মাথা নোয়াতে নারাজ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প

করোনায় বেশি ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলিকে নিয়ে শুক্রবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা একটি বৈঠক ডাকে। তাতে উপস্থিত ছিলেন ফ্রান্সের প্রসিডেন্ট, জার্মান চ্যান্সেলার, দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্টের মতো রাষ্ট্রনায়কেরা। সেই সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন আমন্ত্রিত সব দেশের প্রতিনিধিরা। করোনা ভাইরাস যাতে আর ছড়িয়ে না পড়তে পারে, তা নিশ্চিত করতে সবরকম ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে অংশগ্রহণকারী দেশগুলি। আরও বেশি টেস্ট, আইসোলেশনের ব্যবস্থা, চিকিৎসার উন্নত ব্যবস্থার মতো বেশ কিছু পদক্ষেপ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বিশ্ব নেতারা।

এ বৈঠকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ডিরেক্টর-জেনারেল টেডরোজ আধানাম বলেন, এই সমস্যা আমাদের ঐক্যবদ্ধভাবে সমাধান করতে হবে। সহানুভূতির সঙ্গে পদক্ষেপ নিতে হবে।

তবে, এদিনের বৈঠকের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো যুক্তরাষ্ট্রের অনুপস্থিতি।

বৈঠকে কোনও প্রতিনিধি না পাঠিয়ে ট্রাম্প বুঝিয়ে দিলেন অদূর ভবিষ্যতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে সম্পর্ক রাখবেনা না তিনি।বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে ফের অনুদান দেওয়ারও কোনও পরিকল্পনা তাঁর নেই।

প্রসঙ্গত, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে বহুদিন থেকেই দ্বন্দ্ব চলছিল। চীনের তাবেদারি করার অভিযোগে ইতিমধ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে দেওয়া সাহায্য বন্ধ করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

Categories
প্রবাসী

বেত্রাঘাতের সাজা তুলে নিচ্ছে সৌদি আরব

সৌদি আরব দেশটিতে বেত্রাঘাতে সাজার বিধান তুলে দিতে যাচ্ছে। শুক্রবার (২৪ এপ্রিল) দেশটির সুপ্রিম কোর্টে এ সংক্রান্ত একটি নথি দেখার কথা জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

উপসাগরীয় দেশটির এ সর্বোচ্চ আদালত বেত্রাঘাতের বদলে অপরাধীকে কারাদণ্ড কিংবা জরিমানার সাজা দিতে বলেছে। সৌদি বাদশা সালমান ও তার ছেলে মোহাম্মদের আনা মানবাধিকার সংস্কার কার্যক্রমের অংশ হিসেবেই এ সিদ্ধান্ত, জানিয়েছে তারা।

বাদশাহ সালমানের ছেলে ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ সৌদি আরবের দায়িত্ব নেয়ার পর থেকে নারীদের গাড়ি চালানো, মাঠে গিয়ে খেলা দেখা, অভিভাবকের অনুমোদন ছাড়া পাসপোর্ট প্রাপ্তি ও বিদেশ ভ্রমণের নিষেধাজ্ঞা তুলে দিয়েছেন। তার হাত ধরে সাড়ে তিন দশক পর দেশটির সিনেমা হলগুলোও সচল করা হয়েছে।

তবে এত কিছুর পরও ভিন্নমতাবলম্বীদের দমন-পীড়ন আর তুরস্কের সৌদি কনসুলেটে সাংবাদিক জামাল খাশুগজিকে হত্যার ঘটনা সালমানের ভাবমূর্তিতে কালি লাগিয়ে দিয়েছে, বলছে বিবিসি। মানবাধিকার কর্মীরা বলছেন, সৌদি আরবে মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে কঠোর হাতে নিয়ন্ত্রণ করা হয়। শাসকগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে অবস্থান নিলেই তার জায়গা হয় কারাগারে।

দেশটিতে অপরাধীদের বেত্রাঘাতের সাজা দেওয়ার ঘটনাও নিয়মিতই দেখা যায়। সাইবার ক্রাইম ও ইসলাম অবমাননার শাস্তি হিসেবে ২০১৫ সালে সৌদি আরব ব্লগার রাইফ বাদাউয়িকে প্রকাশ্যে বেত্রাঘাতের সাজা দিলে তা আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে স্থান পায়। বিশ্বজুড়ে ব্যাপক সমালোচনা এবং বেত্রাঘাতে রাইফের মৃতপ্রায় হয়ে পড়ার খবর জানাজানি হলে ওই সাজা রহিত করা হয়।

পর্যবেক্ষকরা বলছেন, ভাবমূর্তি ঠিক করতে সৌদি আরব বেত্রাঘাতের সাজা তুলে নেওয়ার কথা ভাবলেও ভিন্নমতাবলম্বী এবং নারী অধিকারের জন্য আন্দোলনকারীদের ওপর রাষ্ট্রীয় নিপীড়ন ও নির্যাতন কমেনি। শুক্রবারও দেশটির কারাগারে খ্যাতনামা এক মানবাধিকার কর্মীর মৃত্যু হয়েছে।

মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণজনিত কারণে তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানানো হলেও সহকর্মীরা বলছেন, কর্তৃপক্ষ ওই মানবাধিকার কর্মীর স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা নিয়ে উদাসীন ছিল।

Categories
অপরাধ অর্থনীতি খেলার খবর চিকিৎসা জাতীয় ধর্ম প্রবাসী বিনোদন বিশ্ব ভ্রমণ মুক্তমত রাজনীতি শিক্ষাঙ্গন সারাদেশ

করোনার বিরুদ্ধে ক্রিকেটারদের অন্য রকম ইনিংস

মুশফিক সাকিব আশরাফুলের পর এগিয়ে আসছেন দেশের ক্রিকেটের আরও অনেক তারকা। উৎসাহিত হয়ে এবার একই উদ্যোগ নিয়েছেন তরুণ প্রজন্মের বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার।

এমন ভিন্ন উদ্যোগ আগে মুশফিক নিলেও বাংলাদেশের সংস্কৃতিতে নিলামে কোন কিছু বিক্রির মাধ্যমটা দেখিয়ে দেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে রানের বান ছোটানো ব্যাটটি নিলামে তুলেছিলেন তিনি। ২০ লাখ টাকায় তা কিনেছেন এক প্রবাসী।

মাশরাফী যথাসাধ্য সহায়তার পাশাপাশি এবার নিলামের মঞ্চে উঠাতে চাচ্ছেন তার জার্সি, ব্রেসলেট ও বেইমানী করা পায়ে পরা কেডস জোড়া।

অলরাউন্ডার সাইফুদ্দীনের সংগ্রহে সযত্নে রাখা সাকিব আল হাসান, বিরাট কোহলি ও বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক এম এস ধোনির সাক্ষরিত বলটি দিচ্ছেন নিলাম বাজারে।

সতীর্থদের দেখানো পথে হাঁটছেন লিটন দাসও। নিলামে তুলতে যাচ্ছেন এশিয়া কাপের ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে বুক চিতিয়ে লড়াই করে সেঞ্চুরি হাঁকানো ব্যাটখানা।

টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান সৌম্যও পিছিয়ে নেই নিলামের দৌড়ে। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে রেকর্ড গড়ে ৯৪ বল ক্যারিয়ারের ১ম টেস্ট সেঞ্চুরি করা ব্যাটটি দিচ্ছেন নিলামের বাজারে। এই তালিকায় আছেন স্পিড স্টার তাসকিন আহমেদও। গতির ঝড় তুলে ২০১৭ সালে ডাম্বুলায় লঙ্কানদের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক কাব্য লিখা বলটি তুলছেন নিলামের মঞ্চে।

জাতীয় দলে জায়গা হারালেও, দেশের দুঃসময়ে হারিয়ে যায়নি বিজয়ের মানবিকতা। ২০১৬ সালে মিরপুরে পাকিস্তানের বিপক্ষে এশিয়া কাপে সেঞ্চুরি হাঁকানো ব্যাটটি নিলামের তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বিজয়।

ক্রিকেটারদের এই সামগ্রীর নিলাম পরিচালনা করবে অকশন ফর একশন। যা ব্যবস্থা করে দিয়েছেন সাকিব আল হাসান। এই ক্রিকেট যোদ্ধাদের বিশ্বাস, করোনার আগ্রাসন একদিন পরাজিত হবেই। আবারও সুন্দর এক সকাল আসবে এই ধরণীতে।