Categories
জাতীয় প্রযুক্তি

ঢাকার আদালতে মামলা করলো ফেসবুক

ঢাকায় একটি আদালতে এক বাংলাদেশির বিরুদ্ধে মামলা করেছে সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুক। ওই বাংলাদেশির নাম এসকে শামসুল আলম। ফেসবুক ডটকম ডটবিডি নামে বিটিসিএল থেকে ডোমেইন বরাদ্দ নেয়ায় এই ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা করেছে ফেসবুক। মামলায় ৫০ হাজার ইউএস ডলার ক্ষতিপূরণ চাওয়া হয়েছে।

২২ নভেম্বর রোববার ঢাকা জেলা জজ আদালতে এ মামলাটি দায়ের করেন ফেসবুক কর্তৃপক্ষের প্যানেল আইনজীবী ব্যারিস্টার মোকছেদুল ইসলাম। জানা গেছে, আগামী ১ ডিসেম্বর কোর্ট ফি জমা দেয়া হবে।

জেলা জজ আদালতের আপিল সহকারী ও ব্যারিস্টার মোকছেদুল ইসলামের জুনিয়র আইনজীবী মো. আরিফুল ইসলাম গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

আইনজীবী আরিফুল জানান, ফেসবুক ডটকম ডটবিডি নামে বিটিসিএল থেকে ডোমেইন বরাদ্দ নেয়ার বিষয়টি নজরে আসার পর এটি বন্ধ করার জন্য বিটিসিএল ও সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে ব্যারিস্টার মোকছেদুল ইসলাম নোটিশ দেন। কিন্তু ডোমেইনটি এখনও বন্ধ করা হয়নি। বরং ডোমেইনটি বিক্রির জন্য ওই ব্যক্তি বিজ্ঞাপন দিয়েছেন। এ জন্য আদালতে মামলা করেছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

মামলায় ডোমেইনটির ওপর স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা চাওয়ার পাশাপাশি ৫০ হাজার ইউএস ডলার ক্ষতিপূরণ চাওয়া হয়েছে বলে জানান আরিফুল ইসলাম।

ভয়েসটিভি/এএস

Categories
প্রযুক্তি

কর্মীদের অফিসে ফিরতে বাধ্য করছে ফেসবুক

করোনা মহামারির মধ্যে স্বাস্থ্যঝুঁকি থাকার পরও কন্টেন্ট মডারেটরদের অফিসে ফিরতে বাধ্য করছে বলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে।

এক খোলা চিঠিতে ফেসবুকের ২ শতাধিক কর্মী এ অভিযোগ করেছেন । তারা বলেছেন, ‘মুনাফা ধরে রাখতে কর্মীদের জীবন ঝুঁকিতে ফেলছে কর্তৃপক্ষ।’

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ এবং চিফ অপারেটিং অফিসার শেরিল স্যান্ডবার্গকে উদ্দেশ্য করে দুই শতাধিক কর্মীর স্বাক্ষরিত খোলা চিঠিটি দেয়া হয়েছে।

খোলা চিঠিতে কর্মীরা জানিয়েছেন, সমস্যাযুক্ত পোস্টগুলো চিহ্নিত করতে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ওপর বেশি নির্ভরশীল হওয়ার চেষ্টা করেছিল ফেসবুক। তবে সেটা সেভাবে কাজ করেনি। এরপর কর্মীদের অফিসে এসে কাজ করার জন্যে দেয় ফেসবুক।

তারা বলেন, কনটেন্ট মডারেটরদের কয়েক মাস বাসা থেকে কাজ করার অনুমতি দেয়া হয়েছিল। তবে ফেসবুক ঘৃণা ও গুজবমুক্ত রাখতে তীব্র চাপে পড়েন তারা। এরপর অফিসে এসে কাজ করার জন্যে কর্মীদের চাপ দেয় ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষের উদ্দেশে কর্মীরা বলেন, আমাদের দরকার রয়েছে ফেসবুকের। এটা স্বীকার করা ও আমাদের কাজের মূল্যায়ন করার সময় এসেছে। লাভের জন্যে আমাদের স্বাস্থ্য ও সুরক্ষার কথা না ভেবে অফিসে আসার চাপ দেয়া অনৈতিক।

তবে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, কর্মীদের স্বাস্থ্যসেবা পাওয়ার অধিকার রয়েছে। অফিসে কাজ করার ক্ষেত্রে তারা যেন সুরক্ষিত থাকেন। সেজন্যে স্বাস্থ্য নির্দেশিকা রয়েছে। তাদেরকে ঝুঁকিভাতাও দেয়া হবে।

খোলা চিঠির বিষয়ে ফেসবুকের এক মুখপাত্র বলেছেন, যেহেতু আমরা যেকোনো বিষয়ে অভ্যন্তরীণভাবে খোলাখুলি আলোচনায় বিশ্বাসী, তাই এ নিয়ে আলোচনার ব্যাপারেও সৎ থাকতে হবে।

তিনি বলেন, সারাবিশ্বে ফেসবুকের দেড় হাজার কনটেন্ট পর্যবেক্ষক রয়েছেন। করোনার পর থেকে তাদের অধিকাংশই বাসায় থেকে কাজ করেন। মহামারির মধ্যেও তারা বাসায় বসেই কাজ করবেন।

এর আগে করোনা মহামারির কারণে গত আগস্টে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ঘোষণা দেয়, ২০২১ সালের গ্রীষ্মকাল পর্যন্ত তাদের কর্মীরা বাসায় বসে কাজ করতে পারবেন।

ভয়েস টিভি/এমএইচ

Categories
প্রযুক্তি

জিমেইলে স্মার্ট ফিচার্স

জিমেইলে স্মার্ট ফিচার্স এবং পার্সোনালাইজেশনের ক্ষেত্রে নতুন সেটিংয়ের মাধ্যমে গ্রাহককে ডেটার ওপর আরও নিয়ন্ত্রণ এবং ভালো অভিজ্ঞতা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে গুগল।

বিজনেস ইনসাইডারের প্রতিবেদন বলা হয়েছে, শীঘ্রই আপনি নতুন একটি সেটিং দেখতে পাবেন, যার মাধ্যমে জিমেইল, মিট এবং চ্যাটিংয়ের ডেটা নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। এই ডেটার মাধ্যমে এই সেবা এবং অন্যান্য গুগল সেবায় ‘স্মার্ট’ ফিচার্স সুবিধা পাবেন গ্রাহক।

গুগলের পণ্য ব্যবস্থাপক মালিকা মানোহারান বলেছেন, ‘ভাবুন, জিমেইলে ট্যাবড ইনবক্স, স্মার্ট কম্পোজ এবং স্মার্ট রিপ্লাই; গুগল অ্যাসিস্টেন্ট আপনাকে বিলের কথা স্মরণ করিয়ে দিচ্ছে এবং গুগল ম্যাপস-এ রেস্টুরেন্টের বুকিং।’

আলাদাভাবে এই স্মার্ট ফিচারগুলোর ক্ষমতা নতুন কিছু নয়।

বিবৃতিতে মানোহারান বলেছেন, ‘এখানে নতুন বিষয় হলো ডেটা প্রক্রিয়াকরণে স্পষ্ট পছন্দ, যার মাধ্যমে এগুলো সম্ভব হচ্ছে।’

গ্রাহকের ডেটা এবং গোপনতা সুরক্ষা দিতে গুগল পণ্য, জিমেইল, মিট এবং চ্যাটিং নকশাগতভাবে সুরক্ষিত৷

মানোহারান আরও বলেছেন, ‘আগে এই স্মার্ট ফিচারগুলোর সেবা স্বয়ংক্রিয় ফিচারের মাধ্যমে দেয়া হত, ম্যানুয়াল পর্যালোচনার মাধ্যমে নয়। আর গুগল বিজ্ঞাপনও জিমেইলে আপনার ব্যক্তিগত তথ্যের ওপর ভিত্তি করে দেওয়া হয় না, আপনি যে অপশনই বাছাই করেন না কেনো।’

ডেটার ওপর আরও স্বয়ংক্রিয় নিয়ন্ত্রণ দিতে এ বছরের শুরুতেই ডিফল্ট সেটিংস হিসেবে ডেটা স্বয়ংক্রিয়ভাবে মুছে ফেলার অপশন চালু করেছে গুগল।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
প্রযুক্তি

ফেসবুকে চালু হলো ‘ভ্যানিস মোড’

অনেকেই আছেন যারা অতীতে কী করেছেন, কী বলেছেন তা নিয়ে খুব একটা মাথা ঘামাতে চান না। আবার অনেকে আছেন যারা তাদের কর্মফলের রেকর্ড রাখতে চান না। তাদের কথা মাথায় রেখে গত ১২ নভেম্বর বৃহস্পতিবার ‘ভ্যানিস মোড’ চালু করেছে ফেসবুক। এর ফলে মন খুলে কথা বলা যাবে মেসেঞ্জারে।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রসহ কয়েকটি দেশে এ সুবিধা চালু করা হয়েছে। এখনো এ সুবিধা যেসব দেশ বা অঞ্চলে চালু হয়নি, ক্রমান্বয়ে সেখানেও এটি চালু করা হবে।

ভ্যানিস মোড দুই ফেসবুক ব্যবহারকারীর মধ্যকার চ্যাটের সময় কাজ করবে। তবে তার জন্য ভ্যানিস মোডটি অন করতে হবে। এ মোড চালু থাকলে মেসেঞ্জারে কোনো বার্তা একবার পড়ার পর এবং চ্যাট ছেড়ে ওঠার পরপরই তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে ডিলিট হয়ে যাবে। ভ্যানিস মোড থেকে চাইলে ফেসবুক ব্যবহারকারী নিজের ইচ্ছে মতো নিয়মিত চ্যাটেও ফিরতে পারবেন।

ইনস্টাগ্রামেও এ সুবিধাটি চালু করা হবে বলে জানিয়েছে ফেসবুক।

আরও পড়ুন: শাক দিয়ে মাছ ঢাকার চেষ্টা করছেন ফখরুল : তথ্যমন্ত্রী

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
প্রযুক্তি

বন্ধ হচ্ছে ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার

প্রযুক্তি জায়ান্ট মাইক্রোসফট তাদের ব্রাউজার ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার-১১-এর পরিষেবা বন্ধ করতে চলেছে।

পুরনো ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার বদলে তাদের নতুন এজ ব্রাউজারের ওপর জোর দিচ্ছে। গত সপ্তাহে মাইক্রোসফ্ট ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার ১১ বা আইই১১ ইউজারদের এজ ব্রাউজারের লেটেস্ট ভার্সনে রিডিরেক্ট করতে শুরু করে দিয়েছে। সেই সঙ্গে ওয়েবসাইটে জারি করা হয়েছে যেখান থেকে ইউজারদের এজ ব্রাউজারে রিডিরেক্ট করবে। যেই ওয়েবসাইটগুলোতে মাইক্রোসফ্টের দল শীর্ষস্থানে অবস্থান করে।

গত আগস্ট মাসেই মাইক্রোসফ্ট জানিয়েছিল, ৩০ নভেম্বর থেকে ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার-১১-এর পরিষেবা বন্ধ করে দেবে। প্রক্রিয়াটি চলতি মাস থেকে আগামী বছর অর্থাৎ ২০২১ সালের আগস্ট মাসের মধ্যে পুরোপুরি সম্পন্ন হবে।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
জাতীয় প্রযুক্তি

‘২ লক্ষ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হাইস্পিড ব্রডব্যান্ডের আওতায় আসবে’

আগামী ৩ থেকে ৫ বছরের মধ্যে দেশের ২ লক্ষ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হাইস্পিড ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট কানেকটিভিটির আওতায় আসবে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

৫ নভেম্বর, বৃহস্পতিবার সেভ দ্য চিলড্রেন বাংলাদেশ এর উদ্যোগে “টেল মাই লিডার: গ্লোবাল চাইল্ড লিড ডিজিটাল হ্যাংআউট” শীর্ষক এক আন্তর্জাতিক ওয়েবিনারে যুক্ত হয়ে এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, বর্তমানে গ্রাম পর্যন্ত ফাইবার অপটিক্যাল ক্যাবল কানেক্টিভিটি পৌঁছে গেছে। কোভিড ১৯ সময়ে শিক্ষাকার্যক্রম অব্যাহত রাখতে ৭০ শতাংশ শিক্ষার্থীই অনলাইনে শিক্ষা নিচ্ছে। বাকি ৩০ শতাংশকেও দূরশিক্ষণের আওতায় আনতে ৩৬০ ডিগ্রি অ্যাপ্রোচে কাজ করছে সরকার। এজন্য জাতীয় সংসদ টেলিভিশন চ্যানেল এবং রেডিও এর পাশাপাশি ইন্টারনেট বা স্মার্টফোন না থকালেও তাদের জন্য ৩৩৩ টোল ফ্রি নম্বরে কল করে শিক্ষকের পরামর্শ নেয়ার মতো উদ্ভাবনী সেবা চালু করা হয়েছে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, শিক্ষার্থীদের আইটি বিষয়ে দক্ষ করতে সরকার প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ে ‘ডিজিটাল কম্পিউটার ল্যাবস’ স্থাপন করছে। ১৬ কোটি মানুষের এই দেশে এখন ১১ কোটি ইন্টারনেট ব্যবহার করছেন। শতভাগ মোবাইল পেনিট্রেশন অর্জন সম্ভব হয়েছে। তাই সুবিধাবঞ্চিত কিংবা অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের শিক্ষাকার্যক্রম চালিয়ে নিতে খুব একটা বেগ পেতে হবে না বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

পলক জানান, কোভিড হানার শুরুতেই আইসিটি বিভাগ মহামারিতেও কীভাবে জীবনকে সচল রাখা যায় সে জন্য সকলের অংশগ্রহণ মূলক পরিকল্পনা গ্রহণ করে। গৃহীত ৫টি উদ্যোগের মধ্যে সবার ওপরে ছিলো শিক্ষা।

ছয় দেশের শিশুদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হ্যাংআউটে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেন ঐক্য ও রাফসান।

ভয়েস টিভি/টিআর

Categories
প্রযুক্তি

স্যামসাংয়ের চেয়ারম্যান আর নেই

বিশ্বের অন্যতম ইলেকট্রনিকস কোম্পানি স্যামসাংয়ের চেয়ারম্যান লি কুন-হি মারা গেছেন। ২৫ অক্টোবর রোববার চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন তিনি। ২০১৪ সালে হার্ট অ্যাটাকের পর থেকে কোমায় ছিলেন ৭৮ বছর বয়সী এই ব্যবসায়ী। প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে তার মৃত্যুর খবর জানানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘চেয়ারম্যান লি সত্যিকারের দূরদর্শী মানুষ ছিলেন। তিনি স্যামসাংকে স্থানীয় ব্যবসা থেকে বিশ্বসেরা প্রতিষ্ঠানে পরিণত করেন।’

লি’র নেতৃত্বে স্মার্টফোন ও মেমোরি চিপ উৎপাদনে বিশ্বের বৃহত্তম প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয় স্যামসাং। লি’র অধীনে স্যামসাংয়ের অর্থনৈতিক ভিত এতটাই মজবুত হয়েছে যে, দক্ষিণ কোরিয়ার মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) এক-পঞ্চমাংশেই প্রতিষ্ঠানটির অবদান রয়েছে।

স্যামসাং পারিবারিকভাবে নিয়ন্ত্রিত বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান। বিশ্বের দ্বাদশ বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ দক্ষিণ কোরিয়ার ব্যবসা-বাণিজ্যে তাদের একচ্ছত্র আধিপত্য।

আরও পড়ুন: পিনাক-৬ ট্র্যাজেডির ছয় বছর পূর্ণ হলো আজ

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
প্রযুক্তি

‘হাম টু সার্চ’ নিয়ে এলো গুগল

সম্প্রতি ‘হাম টু সার্চ’ নামে নতুন একটি ফিচার এনেছে গুগল সার্চ ইঞ্জিন। এর মাধ্যমে মাত্র ১০ থেকে ১৫ সেকেন্ডের গান খুঁজে পাওয়া যাবে কোনো ধরনের টাইপিং ছাড়াই।

গুগল তাদের এই নতুন ফিচারটি সম্পর্কে বলছে, ‘Solve your earworm!’ অর্থাৎ আপনার কানের পোকার সমাধান করে নিন Hum to Search-এর সাহায্যে। কানের পোকা অর্থে অবশ্যই মাথার মধ্যে ঘুরতে থাকা গানটি। মোদ্দা কথা হল, অনেক সময়েই আমাদের মিউজিকটা মনে পড়ে, কিন্তু গানটা মাথায় আসে না। সেই গানটাই আপনাকে বাজিয়ে শোনাবে গুগল।

এই ফিচারটি ব্যবহার করতে হলে প্রথমেই একজন ইউজারকে গুগল অ্যাপের লেটেস্ট ভার্সনটি খুলতে হবে। অথবা গুগল সার্চের ‘মিক’ অপশন ট্যাপ করে বলতে হবে, ‘what’s this song?’ এছাড়াও Google-এর ‘Search a song’ বাটনে ক্লিক করলেও চলবে।

এরপরই গুগল আপনার সামনে একটা লিস্ট এনে হাজির করবে। বেশ কিছু গান থাকবে সেখানে। আর এর মধ্যে অতি অবশ্যই থাকবে সেই গান, যে গানটির মিউজিক আপনার মগজে চলাফেরা করছিল, অথচ মনে আসছিল না গানটির নাম।

এই মুহূর্তে গুগলের অত্যাধুনিক ফিচারটির সেবা ইংরেজিসহ ২০টি ভাষায় পাওয়া যাবে। iOS এবং অ্যান্ড্রয়েড ইউজারেরা ‘হাম টু সার্চ’ উপভোগ করার সুযোগ পাবেন। গুগলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, পরবর্তীতে তারা আরও ভাষার অপশন নিয়ে হাজির হবে।

ভয়েস টিভি/ডিএইচ

Categories
প্রযুক্তি

ফেসবুক মেসেঞ্জারে নতুন লোগো

নতুন লোগো নিয়ে এলো ফেসবুক মেসেঞ্জার। আগের সেই নিল রঙের লোগো আর থাকছে না। যা দেখতে অনেকটাই ইন্সটাগ্রামের মত।

সেই জায়গায় লোগোর নতুন রঙে যেমন থাকছে গ্র্যাডিয়েন্ট হিউ, তেমনই আবার তাতে থাকছে নীল এবং গোলাপির সংমিশ্রণ।

মেসেঞ্জার ও ইন্সটাগ্রাম একিভূত করার অংশ হিসেবে এই উদ্যোগ নিয়েছে ফেসবুক। লোগোর এই নতুন ডিজাইনের পাশাপাশিই লাভ এবং টাই-ডাই এর মতো নতুন চ্যাট থিমও থাকছে মেসেঞ্জারে। এছাড়াও কাস্টম রিঅ্যাকশনস, সেলফি স্টিকার্স এবং ভ্যানিশ মোডও মেসেঞ্জারে যোগ করছে ফেসবুক।

একটি ব্লগপোস্টে মেসেঞ্জারের ভাইস প্রেসিডেন্ট স্ট্যান চাডনোভস্কি বলছেন, কাছের মানুষের আরও কাছে যাওয়ার জন্যে আমাদের নতুন লোগো। যা মেসেজিং জগতের ভবিষ্যতকে প্রতিফলিত করছে। এই নতুন রঙে যেমন ফুটে উঠছে আনন্দ, তেমনই আবার রয়েছে মানুষের সঙ্গে জুড়ে থাকার একটা আভাস।

ইন্সটাগ্রামের সঙ্গে মার্জারের কারণেই এভাবে মেসেঞ্জারকে সাজানোর পরিকল্পনা করছে মার্ক জুকারবার্গ।

ভ্যানিশ মোড এবং কাস্টম রিঅ্যাকশনস মিলিয়ে মার্জের ক্ষেত্রে মোট ১০টি নতুন মেসেজিং ফিচার্স পাচ্ছে ইন্সটাগ্রাম। এছাড়াও পাচ্ছে মেসেঞ্জারের মতোই কিছু ফিচার্স। যেমন- ওয়াচ টুগেদার, চ্যাট কালার্স, ফরোয়ার্ডিং, রিপ্লাইজ এবং অ্যানিমেটেড মেসেজ এফেক্টস।

প্রাথমিকভাবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কিছু ব্যবহারকারী ইন্সটাগ্রামের এই ফিচারগুলো ব্যবহার করতে পারবেন।

ভয়েস টিভি/এমএইচ

Categories
প্রযুক্তি

ওয়েব সামিট সম্মেলন হবে অনলাইনে

ইউরোপের সবচেয়ে বড় প্রযুক্তি সম্মেলন ‘ওয়েব সামিট’ অনলাইনে অনুষ্ঠিত হবে। করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয় বলে জানিয়েছে আয়োজকরা।

এক বিবৃতিতে সম্মেলনটির প্রতিষ্ঠাতা প্যাডি কসগ্রেভ বলেন, লিসবন এখনও ওয়েব সামিটের ঘর। কিন্তু কোভিড-১৯ মহামারীর পুরো ইউরোপজুড়ে। আমরা পর্তুগালের জন মানুষের জন্য এবং আমাদের অংশগ্রহণকারীদের জন্য কোনটা ভালো হবে, তা নিয়ে চিন্তা করেছি।

যদিও এর আগে গত জুন মাসে আয়োজকরা পূর্ব পরিকল্পনা অনুসারে লিসবনেই সম্মেলন করার কথা বলেছিলেন। এ ব্যাপারে পর্তুগীজ সরকার ও লিসবনের মেয়রের সঙ্গে কথাও হয় আয়োজকদের।

প্রতি বছর প্রায় ৭০ হাজার অংশগ্রহণকারী সম্মেলনটিতে অংশ নেন। বিশ্বের নেতৃত্বাধীন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ও স্টার্টআপের ব্যক্তিবর্গরা এতে বক্তব্য রাখেন, অংশ নেন রাজনীতিবিদরাও।

বিদেশি এক গণমাধ্যম জানিয়েছে, অনলাইনে হওয়ার কারণে এ বছর এক লাখ অংশগ্রহণকারী অংশ নিতে পারবেন ওয়েব সামিটে। আয়োজকরা বলছেন, বাড়তি আরও আটশ বক্তা অংশ নেবেন এবার।

এর মধ্যে ভিডিও কনফারেন্সিং সেবাদাতা ‘জুম’ এর প্রধান নির্বাহী এরিক ইউয়ান এবং ক্যাপ্টেন আমেরিকা খ্যাত হলিউড তারকা ক্রিস ইভানসও থাকবেন। পুরো আয়োজনটিই ওয়েব সামিটের নিজস্ব অনলাইন কনফারেন্স প্ল্যাটফর্মে আয়োজিত হবে।

পর্তুগালে বর্তমানে করোনাভাইরাস সংক্রমিতের সংখ্যা ৮১ হাজার ২৫৬, এবং মৃতের সংখ্যা দুই হাজার ৪০ জন। হিসেবে পার্শ্ববর্তী দেশ স্পেনের তুলনায় অনেক কম আক্রান্ত হয়েছে দেশটি। পর্তুগালে অবশ্য গ্রীষ্মকালের পর থেকে কোভিড-১৯ সংক্রমণ বাড়তে দেখা গেছে।

কসগ্রেভ বলেছেন, সবচেয়ে নিরাপদ ও গ্রহণযোগ্য উত্তরটি হচ্ছে ২০২০ সালে ওয়েব সামিট অনলাইনে আয়োজন করা। আমরা ২০২১ সালে লিসবনে অংশগ্রহণকারীদের স্বাগতম জানানোর অপেক্ষায় থাকবো।

ভয়েস টিভি/এমএইচ