Categories
ভিডিও সংবাদ সারাদেশ

বাগদা রেনু শিকারে হারাচ্ছে নানা প্রজাতির মাছের পোনা (ভিডিও)

ভোলা : অবাধে বাগদা রেনু শিকার করছে অসাধু জেলেরা। নদীর তীর ঘেষে বা চরে মশারি জাল দিয়ে প্রতিদিন চলছে এসব পোনা নিধন। সাধারণত জেলেরা বিশেষ পাত্রে রেনু রেখে অন্য প্রজাতির মাছ ফেলে দিচ্ছে। এতে হুমকিতে পড়েছে বাগদাসহ অন্য প্রজাতির মাছের পোনা। নষ্ট হচ্ছে দেশীয় বিভিন্ন প্রজাতির মাছের প্রজনন ক্ষেত্র।

এদিকে শিকারীদের আহরিত রেনু বিভিন্ন কৌশলে পাচার করছে পাইকাররা। এসব বন্ধে কোনো নজরদারি না থাকায় বেপরোয়া হয়ে পড়েছে জেলেরা। তাদের দাবি, জীবিকার তাগিদেই রেনু শিকার করছে। এটিই তাদের একমাত্র পেশা।

ভোলার সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো: আসাদুজ্জামান বলছেন ‘বাগদা রেনু শিকার বন্ধে অভিযান চালানো হচ্ছে।’

একাধিক শিকারীর সাথে কথা বলে জানা গেছে ভোলার বাগদা রেনুর বেশি চাহিদা। পাশাপাশি লাভও বেশি। তাই বেশি লাভের আশায় জেলেরা বাগদা শিকার করছে।’

বাগদাসহ সব ধরণের মাছের উৎপাদন বাড়াতে রেনু শিকার বন্ধ এবং দেশীয় প্রজাতির মাছ রক্ষার দাবি ভোলাবাসীর।
সম্পাদনা : দেলোয়ার

Categories
ভিডিও সংবাদ সারাদেশ

তুচ্ছ ঘটনায় সিএনজি চালককে পিটিয়ে হত্যা (ভিডিও)

নোয়াখালী: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে একই বাড়ির লোকজন জয়দেব পোদ্দার  নামে সিএনজি চালককে পিটিয়ে হত্যা করেছে। ৩ জুলাই শুক্রবার বিকেলে উপজেলার মিরওয়ারিশপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের কেন্দুরবাগ গ্রামের খাল পাড়ে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত  ব্যক্তি মিরাওয়ারিশপুর ইউনিয়নের খাল পাড়ের স্বপন পোদ্দার’র ছেলে।  পরে স্থানীয়রা তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যায়।

স্থানীয় একাধিখ সূত্র বলছে, কিছু দিন আগে ইউনিয়ন পরিষদের অধীনে মাটি কাটার কাজ দেওয়ার কথা বলে সিএনজি চালক জয়দেব স্ত্রীর ভোটার আইডি কার্ড নেয় একই বাড়ির যুবরাজের মা মরু রাণী। কিন্তু এ কার্ড এবং কাজ নিয়ে অনেক টালবাহানা করে শেষ পর্যন্ত অন্য একজনকে মাটি কাটার কাজ দেয় মরু রাণীর ছেলে যুবরাজ। এ নিয়ে ঘটনারদিন বিকেলে দু’পরিবারের মাঝে বাকবিতণ্ডার একপর্যায়ে যুবরাজ ও তার মা-বাবা জয়দেবকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে।

বেগমগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হারুন অর রশীদ চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ‘এ ঘটনায় নিহতের পরিবার ৩ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছে। তবে ঘটনার পর থেকে অভিযুক্তরা পলাতক রয়েছে। পুলিশ আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টায় আছে।’

সম্পাদনা: দেলোয়ার

Categories
ভিডিও সংবাদ সারাদেশ

মেঘনার তীব্র ভাঙ্গনের আশংকায় কয়েকশ’ ঘরবাড়ি (ভিডিও)

ভোলা: জেলার অন্যতম ব্যবসা কেন্দ্র হাকিমুদ্দিন বাজার। দিন দিন ব্যবসা-বাণিজ্য বেড়ে যাওয়ায় শত বছরের পুরানো এই বাজারের নাম ছড়িয়ে পড়ে গোটা জেলায়। বর্তমানে মেঘনার তীব্র ভাঙ্গনে যেকোনো সময় বিলীন হতে পারে এই বাজারসহ আরো কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা।

সেইসাথে বিলীন হতে পারে কয়েকশ’ ঘরবাড়ি। এরইমধ্যে অনেকেই হারিয়েছেন বসতভিটা। কেউ চলে গেছে অন্য স্থানে। দ্রুত ভাঙ্গন বন্ধ করতে না পারলে হাকিমুদ্দিন লঞ্চঘাট, কয়েকটি স্কুল-মাদ্রাসা ও মসজিদসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাগুলোও বিলীন হতে পারে।

তবে শিগগির ভাঙ্গনরোধে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

ভোলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী (পাউবো-১) মো: আসিকুর রহমান  জানান, মেঘনার ভাঙ্গন বন্ধে একটি প্রকল্প অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে ।

এদিকে মেঘনার ভাঙ্গন থেকে শিগগির পুরানো এই বাজারটির পাশাপাশি বসতবাড়ি রক্ষার দাবি এলাকাবাসীর।

সম্পাদনা : সুফল/দেলোয়ার

 

Categories
ভিডিও সংবাদ সারাদেশ

মধু সংগ্রহ করেই কিনেছেন জমি পড়াচ্ছেন চার সন্তানকে (ভিডিও)

নেত্রকোনা: জীবিকার তাগিদে নানা পেশা বেছে নেয় মানুষ। এরমধ্যে কিছু মানুষ খানিকটা ঝুকিঁ নিয়েই করেন পেশাগত কাজ। তাদেরই একজন হারেছ মিয়া। যার জীবন চলে নেত্রকোনার বিভিন্ন স্থান থেকে মধু সংগ্রহ করে। এজন্য তাকে বড় বড় গাছে উঠে কাটতে হয় মৌমাছির চাক। এসময় মৌমাছির হুলে বিদ্ধ হয় তার শরীর। পাশাপাশি গাছ থেকে পড়ে পঙ্গু হওয়াসহ জীবন হারানো ভয় থাকে তার।

তারপরেও দীর্ঘ ১৩ বছর ধরে মৌয়াল পেশায় জড়িয়ে আছেন তিনি। পেশার শুরুতে অন্য মৌয়ালদের সহায়তায় মধু সংগ্রহের কৌশল শিখে ফেলেন। এর পর থেকেই কোনো গাছে মৌচাকের সন্ধান পেলেই ছুটে চলেন।

মধু সংগ্রহ করে অর্ধেক মধু দেন গাছের মালিককে। বাকি অংশ বাজারে বিক্রি করে সংসার চালান। মধু বিক্রির টাকা জমিয়েই কিনেছেন জমি, লেখা-পড়াচ্ছেন চার সন্তানকে। খাঁটি মধু বিক্রির কারণে এলাকায় সুনাম রয়েছে তার। তাই কিছুটা দাম বেশি হলেও তার কাছ থেকেই মধু কেনে এলাকাবাসী।

সন্তানরা উচ্চশিক্ষিত হয়ে ভালো চাকরি পাবে। তারপর একদিন তার সব কষ্ট মুছে যাবে, এমনটাই প্রত্যাশা হারেছ মিয়ার।

বিস্তারিত দেখুন- ভিডিওতে—-

সম্পাদনা: দেলোয়ার

Categories
ভিডিও সংবাদ সারাদেশ

করোনা আতঙ্কের মধ্যেই বাড়ছে মশার প্রাদুর্ভাব (ভিডিও)

মাদারীপুর : করোনা আতঙ্কের মধ্যেই মাদারীপুরে জলাবদ্ধতা ও দীর্ঘদিন ড্রেন পরিস্কার না করায় মশার প্রাদুর্ভাব বেড়েছে বলে অভিযোগ সচেতন নাগরিক কমিটির। এতে করে ছড়িয়ে পড়তে পারে ডেঙ্গু ও চিকনগুনিয়া রোগ। এদিকে, মশক নিধনে বিভিন্ন কার্যক্রম চলছে বলে দাবি করেছেন পৌর মেয়র।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, মাদারীপুর পৌরসভার বেশিরভাগ স্থানেই রয়েছে খোলা ড্রেন। আর পানি নিষ্কাশনের নর্দমা দীর্ঘদিন পরিস্কার না করায় জলাবদ্ধতার তৈরি হয়েছে। এ কারণে বিভিন্ন নালা-নর্দমা জন্ম হচ্ছে মশার লার্ভা। বাস করছে মশা। পানি জমে মশার উপদ্রব বাড়ছে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, মশক নিধনে পৌর কর্তৃপক্ষ কোন ব্যবস্থা নেয়নি। তাই ডেঙ্গু ও চিকনগুনিয়ার মত ভয়াবহ রোগ ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে তাদের আশঙ্কা। সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) বলছে, বদ্ধ ড্রেন অপসারণে পৌরসভার পাশাপাশি সমাজের বিভিন্ন পেশার মানুষদের এগিয়ে আসতে হবে ।

এদিকে পৌর মেয়র মো. খালিদ হোসেন ইয়াদের দাবি, করোনা পরিস্থিতিতেও চলছে মশক নিধনের বিভিন্ন কর্মসূচি।

 

সম্পাদনা : আমির সোহেল

Categories
ভিডিও সংবাদ সারাদেশ

অনুমোদনহীন ক্লিনিকে পল্লী চিকিৎসক দিয়ে চলছে চিকিৎসা

চট্টগ্রাম :চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় অবৈধভাবে গড়ে ওঠা অনুমোদনহীন হেলথ ডায়াগনস্টিক এন্ড ডায়াবেটিক সেন্টারে চিকিৎসকের সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে পল্লী চিকিৎসক দিয়ে চিকিৎসা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের অনুমোদন না থাকায় সেবার মান নিয়েও উঠেছে নানা প্রশ্ন।

সাতকানিয়া উপজেলার কাঞ্চনা ফুলতলা এলাকার এ ক্লিনিক নিয়ে এলাকাবাসীর অভিযোগ, চিকিৎসা নিতে আসা মানুষদের অসহায়ত্বকে পুঁজি করে নানা ধরণের ফাঁদ পাতছে প্রতিষ্ঠানটি। এতে কয়েকজন চিকিৎসকের নামে সাইনবোর্ড ঝুলানো হলেও বিশেষজ্ঞ কোনো চিকিৎসক নেই। ক্লিনিকের মালিকপক্ষ প্রভাবশালী হওয়ায় এসব অপচিকিৎসার বিরুদ্ধে মুখ খুলতে ভয় পায় বলে জানান স্থানীয়রা।

এসব অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করতে ভয়েস টিভির প্রতিবেদক প্রতিষ্ঠানটিতে গেলে পরিচালকদের কাউকে পাওয়া যায়নি। তাছাড়া কোন ধরণের তথ্য প্রদান করাতো দূরে থাক ক্লিনিকে প্রবেশ করতেই প্রতিষ্ঠানটির কর্মচারীদের মারমুখি আচরণের শিকার হতে হয়। পরে মুঠোফোনে কথা হয় প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক আবুল কালামের সঙ্গে, সংবাদ সংগ্রহে যাওয়া সাংবাদিকদের সঙ্গে ক্লিনিকের কর্মচারীদের অশালীন আচরণের জন্য দুঃখ প্রকাশ করে দায় এড়ানোর চেষ্টা করেন তিনি।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রমজান আলী জানান, পরিষদ থেকে ট্রেড লাইসেন্স নিলেও চিকিৎসার নামে সাধারণ মানুষের ক্ষতি করে এমন কোনো প্রতিষ্ঠান তার এলাকায় চান না তিনি।

সাতকানিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. এম এ মজিদ ওসমানী জানান, স্বাস্থ্যসেবা নিয়ে কারো প্রতারণা বরদাস্ত করা হবে না। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয়দের কাছ থেকে অভিযোগ পেয়েছেন জানিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নুর এ আলম বলেন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাকে সঙ্গে নিয়ে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সম্পাদনা : সাম্মা/আমির

Categories
বিনোদন ভিডিও সংবাদ সারাদেশ

বিক্ষোভ সিনেমার শুটিং শেষ, দ্রুতই রিলিজ করা হবে

করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘ তিন মাস কোনো শুটিং হয়নি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশন-বিএফডিসি’তে। দীর্ঘ বিরতির পর গত ৫ জুন থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুটিংয়ের অনুমতি দেয়া হয়। এরপর অল্প সংখ্যক লোক নিয়ে নির্মাতা শামীম আহমেদ রনি বিক্ষোভ সিনেমার শুটিং শুরু করেন। সোমবার সিনেমাটির শুটিং শেষ করেন তিনি। এখন শুধু একটি রোমান্টিক গান বাকি আছে। আর নির্মাতা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়ার কর্ণধার জানান, বিক্ষোভ সিনেমায় তুলে ধরা হয়েছে দেশের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটসহ কিভাবে বর্তমান সরকার এবং দেশ ধংসের পায়তারা করছে একটি কুচক্রী মহল।

আনজাম খালেকের ভিডিও প্রতিবেদনে দেখুন বিস্তারিত…

Categories
জাতীয় ভিডিও সংবাদ

লকডাউন ঘোষণা হলে খাবার ও নিত্যপণ্য সংকটের আশংকায় জনগণ

দিন দিন বেড়েই চলেছে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব। সেই সাথে বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যাও। এরইমধ্যে করোনার বিস্তার কমাতে রাজধানীর বেশ কিছু এলাকাকে রেড ও ইয়েলো জোন হিসেবে চিহিৃত করার সুপারিশ করা হয়েছে। যদি ওইসব এলাকা লকডাউন ঘোষণা করা হয়, সেসব এলাকায় খাবার সংকট দেখা দিতে পারে বলে ধারণা করছেন অনেকে। তবে লকডাউন করা হলেও ওইসব এলাকার সাধারন মানুষকে সহায়তায় সরকার প্রস্তুত রয়েছে জানিয়ে জনপ্রতিনিধিরা বলছেন, যেভাবেই হোক জনগনকে করোনা থেকে মুক্ত রাখতে সব ব্যবস্থা নেয়া হবে। বিস্তারিত দেখুন আনজাম খালেকের ভিডিও প্রতিবেদনে…

Categories
ধর্ম ভিডিও সংবাদ

হজ হবে; কিন্তু যেতে পারবে না অন্য দেশের হাজীরা

আনজাম খালেক: শুধুমাত্র সৌদি আরবে যারা অবস্থান করছেন তারাই এবার হজ করার সুযোগ পাবেন- করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির কারণে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটি। স্থানীয় সময় সোমবার সৌদি আরবের হজ এবং ওমরাহ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এ ঘোষণা দেয় বলে জানায় আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম। পাশাপাশি এবার হজে এক হাজারেরও কম লোক অংশ নেবেন বলে জানিয়েছেন সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফয়সাল বিন ফারহান আল সৌদ। তাই, চূড়ান্ত নিবন্ধন করা ৬৫ হাজার বাংলাদেশী হজযাত্রী চাইলে নিজেদের টাকা ব্যাংক থেকে তুলে নিতে পারবেন বলে জানিয়েছেন ধর্মসচিব মো. নূরুল ইসলাম।
এবছর শুধুমাত্র সৌদি আরবে অবস্থানরত বিদেশি নাগরিক এবং সৌদি নাগরিকরা হজ পালন করতে পারবেন। অন্য কোনো দেশ থেকে কেউ এবার হজ করতে আসতে পারবেন না। করোনা মহামারির জন্য এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে সৌদি সরকার। গত বছর বিশ্বের প্রায় ২৫ লাখ মানুষ হজ করেছিলেন। কিন্তু এবার বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ এর বিস্তারের ব্যপকতায় হজের পরিসর সীমিত করা হয়েছে। বড় সমাবেশ থেকে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকির আশঙ্কা থাকে। তাই সৌদি সরকার এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে বলে জানায় দেশটির হজ এবং ওমরাহ বিষয়ক মন্ত্রণালয়।
এদিকে, মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে এবার হজে এক হাজারেরও কম লোক অংশ নেবেন বলে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেনকে টেলিফোনে জানিয়েছেন সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফয়সাল বিন ফারহান আল সৌদ। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, সোমবার সন্ধ্যায় সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী টেলিফোন করে করোনা ভাইরাসের কারণে ঐতিহ্যগত হজ বাতিলের বিষয়ে অবহিত করেন। পরে ড. মোমেন এই সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানান। অন্যান্য দেশের নাগরিকরা হজ করতে পারবেন না বলে ঘোষণা দেওয়ার পর চূড়ান্ত নিবন্ধন করা ৬৫ হাজার বাংলাদেশী হজযাত্রী নিজেদের টাকা ব্যাংক থেকে তুলে নিতে পারবেন বলে জানিয়েছেন ধর্মসচিব মো. নূরুল ইসলাম।
প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তিনি বলেন, টাকা ফেরত নিতে কারও সমস্যা যাতে না হয় সে বিষয়টা বিশেষভাবে নজর রাখবে ধর্ম মন্ত্রণালয়। ব্যাংকে টাকা সঠিকভাবে গচ্ছিত আছে, হজে যেতে ইচ্ছুকদের ভয় নেই। এ বছর বাংলাদেশ থেকে এক লাখ ৩৭ হাজার ১৯৮ জনের বিপরীতে নিবন্ধন করেছিলেন মোট ৬৪ হাজার ৫৯৪ জন। এরমধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় তিন হাজার ৪৫৭ জন এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৬১ হাজার ১৩৭ জন।

ভিডিও সংবাদ দেখুন:

Categories
চিকিৎসা ভিডিও সংবাদ সারাদেশ

২৫০০ নতুন চিকিৎসক যুক্ত করে স্বাস্থ্য খাতের উন্নয়ণ সম্ভব….

দেশের এই পরিস্থিতিতে চিকিৎসক সংকট একটি বড় সমস্যা। বেশিরভাগ হাসপাতালগুলোতে সাধারন নিয়মে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা ২৪ঘন্টা সেবা দিয়ে থাকেন। বর্তমানে করোনা আক্রান্ত হয়ে বা আইসোলেশন মেইনটেইন করতে গিয়ে চিকিৎসকের বড় একটা অংশ চাইলেও সেবা চালিয়ে যেতে পারেন না। কমে যাচ্ছে নিয়মিত কাজ করা চিকিৎসকের সংখ্যাও। সরকার ইতিমধ্যে ২০০০ নতুন চিকিৎসক নিয়োগ দিলেও তাদের পোস্টিং মূলত করোনা বিশেষায়িত হাসপাতালগুলিতে। মেডিকেল কলেজ যেগুলি আছে সেগুলিতে এই নিয়োগের কোন সুফল এখনই পাওয়া যাচ্ছে না। অথচ প্রতিনিয়ত করোনা ব্যতীত অন্যান্য রোগির সেবা কার্যক্রমের জন্যও এখন স্বাভাবিকের থেকেও হসপিটালগুলিতে আরও বেশি জনবল প্রয়োজন। ডাক্তার তৈরীর এ প্রক্রিয়াটি যদি ব্যহত হয় সামনের দিনগুলিতেও এর ভয়াবহ প্রভাব পড়তে পারে। সেশন জটে পড়ে ভবিষ্যতে ডাক্তার সংকট প্রকট আকার ধারণ করার সম্ভাবনা রয়েছে। যেহেতু একটা মেডিকেল কলেজে সদ্য পাশকৃত ইন্টার্ন ডাক্তাররাই হসপিটালের প্রাণ সেহেতু অতি দ্রুত আগের ব্যচের ফাইনাল এই পরীক্ষা নেয়ার ব্যাবস্থা করতে হবে, নয়তো স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙে পড়ে ক্ষতিটা হবে জনগণের, ক্ষতি হবে দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থার। এসব নিয়েই আলোচনা করা হয় ভয়েস টিভি’র বিশেষ অনুষ্ঠানে।

পুরো ভিডিওটি দেখুন: