Categories
বিশ্ব

রাতভর নিরাপত্তা বাহিনী ও তালেবানদের সংঘর্ষে নিহত ১৩৭

আফগানিস্তানে আবারো শুরু হয়েছে অশান্তি। কাতারে এক সপ্তাহ আগে শান্তি আলোচনায় বসেছিলেন আফগান সরকার ও তালেবান নেতারা। এরইমধ্যে ২০ সেপ্টেম্বর রোববার সারারাত ধরে আফগানিস্তানের নিরাপত্তা বাহিনী এবং তালেবানদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

এই ঘটনায় মারা গেছেন অন্ততপক্ষে ১৩৭ জন। যারমধ্যে ৫৭ জন নিরাপত্তা কর্মী ও তালেবানদের ৮০ জন রয়েছে বলে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম ডন। আহতের সংখ্যা অনেক।

এর মধ্যে উরুজগান প্রদেশেই ২৪ জন নিরাপত্তা বাহিনীর কর্মী মারা গেছেন। সেখানে একটি চেক পোস্টে আক্রমণ চালায় তালেবান। শুধু উরুজগানেই নয়, আফগানিস্তানের বিভিন্ন প্রদেশে সংঘর্ষ হয়েছে। তিনজন আফগান গোয়েন্দাকেও অপহরণ করেছে তালেবান।

নিজেদের ক্ষয়ক্ষতির কথা জানায়নি তালেবান। তবে সেনা ও সরকারি মুখপাত্ররা জানিয়েছেন, সবমিলিয়ে অন্ততপক্ষে ৮০ জন তালেবান মারা গেছেন। এর মধ্যে কুন্দুজ, তাখার, বাঘলান প্রদেশে ৫৪ জন মারা গেছেন বলে সেনা মুখপাত্র জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন- কারাবন্দী ৪শ’ তালেবান যোদ্ধাকে মুক্তির ঘোষণা

শুধু সেনা বা নিরাপত্তা বাহিনীর কর্মীরাই নয়, তালেবানের আক্রমণে প্রচুর সাধারণ মানুষ মারা গেছেন বলে অভ্যন্তরীণ মন্ত্রকের মুখপাত্র জানিয়েছেন। তাঁর হিসাব, গত দুই সপ্তাহে তালেবান হানায় দেশের ২৪টি প্রদেশে ৯৮ জন সাধারণ মানুষ মারা গেছেন। আহত হয়েছেন প্রায় ২৫০ জন।

তালেবান যোদ্ধারা রোববার গভীর রাতে দক্ষিণাঞ্চলীয় উরুজগান প্রদেশে আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর বেশ কয়েকটি অবস্থানের উপর ব্যপক হামলা শুরু করে, এতে বড় ধরণের ক্ষয়ক্ষতি হওয়ায় সেখানে কোনঠাসা হয়ে পড়েছে সরকারী সেনাবাহিনী। সরকারি-নিয়ন্ত্রিত জেলা গিজাবও বিদ্রোহীদের হাতে চলে যেতে পারে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা। উরুজগান প্রদেশের গভর্নরের মুখপাত্র জেলগাই এবাদি বলেন, ‘তীব্র লড়াই চলছে। আমাদের বাহিনী বেশ কয়েকটি চৌকি থেকে পিছু হটেছে।’

এক সপ্তাহ আগে কাতারে শান্তি আলোচনায় বসেছেন সরকারপক্ষ ও তালেবান নেতারা। তার মধ্যেই আফগানিস্তানে অশান্তি। এই সংঘর্ষে নিজেদের ক্ষয়ক্ষতির কথা জানায়নি তালেবান। তবে সেনা ও সরকারি মুখপাত্ররা জানিয়েছেন, সবমিলিয়ে অন্ততপক্ষে ৮০ জন তালেবান মারা গেছেন। এর মধ্যে কুন্দুজ, তাখার, বাঘলান প্রদেশে ৫৪ জন মারা গেছেন বলে সেনা মুখপাত্র জানিয়েছেন।

শুধু সেনা বা নিরাপত্তা বাহিনীর কর্মীরাই নয়, তালেবানের আক্রমণে প্রচুর সাধারণ মানুষ মারা গেছেন বলে অভ্যন্তরীণ মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জানিয়েছেন। তার হিসাব, গত দুই সপ্তাহে তালেবান হানায় দেশের ২৪টি প্রদেশে ৯৮ জন সাধারণ মানুষ মারা গেছেন। আহত হয়েছেন প্রায় ২৫০ জন।

ভয়েস টিভি/ডিএইচ

Categories
বিশ্ব

করোনায় বিশ্বে মৃত্যুর সংখ্যা প্রায় ১০ লাখ

বিশ্বজুড়ে মহামারি করোনা প্রাদুর্ভাবের প্রকোপ কিছুটা কমে এলেও সংক্রমণ এখনও বন্ধ হয়নি। এখনও প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন। মারা যাচ্ছেন শয়ে শয়ে মানুষ। এ পর্যন্ত করোনায় বিশ্বে ৯ লাখ ৬৯ হাজার ৩৬২ জন মারা গেছেন বলে ওয়ার্ল্ডওমিটারসে তথ্য প্রকাশ করেছে।

করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর পরিসংখ্যান রাখা আন্তর্জাতিক এ ওয়েবসাইটের হিসাব মোতাবেক, ২২ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার বেলা ১২টা পর্যন্ত গোটা বিশ্বে ৩ কোটি ১৪ লাখ ৯০ হাজার ৩১১ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। আর ৯ লাখ ৬৯ হাজার ৩৬২ জন মারা গেছেন। সুস্থ হয়েছেন ২ কোটি ৩১ লাখ ১৯ হাজার ৪১৯ জন।

করোনায় সবচেয়ে বেশি কোণঠাসা মার্কিন জনগণ। দেশটিতে ৭০ লাখ ৪৬ হাজার ২১৬ জন কোভিড-১৯ পজিটিভ রোগী শনাক্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৪ হাজার ৫০৬ জনের। আর করোনা রোগীদের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪২ লাখ ৯৯ হাজার ৫১৫ জন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়া ভাইরাসটিতে আক্রান্ত সংখ্যার দিক দিয়ে দ্বিতীয় স্থানে থাকা ভারতে মোট ৫৫ লাখ ৬২ হাজার ৬৬৩ জন পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন। সুস্থ হয়েছেন ৪৪ লাখ ৯৯ হাজার ৫১৫ জন। মারা গেছেন ৮৮ হাজার ৯৬৫ জন।

ভয়েসটিভি/এএস

Categories
বিশ্ব

মৃত্যুপুরী যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা ৭০ লাখ ছাড়ালো

বিশ্বজুড়ে মহামারি করোনা প্রাদুর্ভাবের প্রকোপ কিছুটা কমে এলেও সংক্রমণ এখনও বন্ধ হয়নি। এখনও প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন। মারা যাচ্ছেন শয়ে শয়ে মানুষ। করোনায় সবচেয়ে বেশি কোণঠাসা মার্কিন জনগণ। ইতোমধ্যে দেশটিতে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৭০ লাখ ছাড়িয়ে গেছে বলে ওয়ার্ল্ডওমিটারসে তথ্য প্রকাশ করেছে।

করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর পরিসংখ্যান রাখা আন্তর্জাতিক এ ওয়েবসাইটের হিসাব মোতাবেক, ২১ সেপ্টেম্বর সোমবার সকাল ৯টা পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে ৭০ লাখ ৪ হাজার ৭৬৮ জন কোভিড-১৯ পজিটিভ রোগী শনাক্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৪ হাজার ১১৮ জনের। আর করোনা রোগীদের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪২ লাখ ৫০ হাজার ১৪০ জন। অসুস্থদের মধ্যে চিকিৎসাধীন ৪৪ লাখ ৫৪ হাজার ২৫৮ জন।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যে। এখানে ৭ লাখ ৮৬ হাজার ৪৪১ জন আক্রান্ত হয়েছেন। আর মারা গেছেন ১৫ হাজার ১৮ জন। টেক্সাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৭ লাখ ২৫ হাজারের বেশি মানুষ। মারা গেছেন ১৫ হাজার ২০৬ জন। ফ্লোরিডায় ৬ লাখ ৮৩ হাজার ৭৫৪ জন আক্রান্ত, মারা গেছেন ১৩ হাজারের বেশি মানুষ।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়া ভাইরাসটিতে গোটা পৃথিবীতে মোট রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ১২ লাখ ২৮ হাজার ৫৫৬ জনে। সুস্থ হয়েছেন ২ কোটি ২৮ লাখ ২১ হাজার ৪১৭ জন। বিপরীতে মারা গেছেন ৯ লাখ ৬৫ হাজার ৩৭ জন।

করোনা আক্রান্ত সংখ্যার দিক দিয়ে দ্বিতীয় স্থানে থাকা ভারতে মোট ৫৪ লাখ ৮৫ হাজার ৬১২ জন পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন। সুস্থ হয়েছেন ৪৩ লাখ ৯২ হাজার ৬৫০ জন। মারা গেছেন ৮৭ হাজার ৯০৯ জন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বৈশ্বিক মহামারি ঘোষণা দেয়া এই ভাইরাসে ব্রাজিলে ১ লাখ ৩৬ হাজার ৮৯৫ জনের প্রাণ গেছে। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ৪৫ লাখ ৪৪ হাজার ৬২৯ জন।

ভয়েসটিভি/এএস

Categories
বিশ্ব

করোনায় সুস্থতার শীর্ষে ভারত

বিশ্বজুড়ে করোনার সংক্রমণ দিন দিন বাড়ছে। বাড়ছে মৃত্যুও। তবে করোনা থেকে মুক্তিও পাচ্ছেন অনেক মানুষ। বিশ্বে করোনা সংক্রমণ ও মৃতের দিক দিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান সবার উপরে হলেও সুস্থতার বিবেচনায় এবার সবার উপরে উঠে এলো ভারত। ভারতে এখন করোনাজয়ীর সংখ্যা ৪৩ লাখ ছাড়িয়েছে।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে নতুন করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৯২ হাজার ৬০৫ জন। শনিবার এই সংখ্যা ছিল ৯৩ হাজার ৩৩৭। সেই তুলনায় এ দিন নয়া সংক্রমিতের সংখ্যা ৭৩২ কম।

সবমিলিয়ে এখন পর্যন্ত ভারতে ৫৪ লাখ ৬১৯ জন মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। প্রতিদিন ভারতে যত সংখ্যক রোগী সুস্থ হয়ে উঠছেন, তাতে আশার আলো দেখছেন বিশেষজ্ঞরা।

আর এখন পর্যন্ত ভারতে সবমিলিয়ে ৪৩ লাখ ৩ হাজার ৪৩ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন। অর্থাৎ মোট আক্রান্তের ৭৯.৬৮ শতাংশই সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৯৪ হাজার ৬১২ জন। সুস্থতার নিরিখে বর্তমানে বিশ্ব তালিকায় শীর্ষে রয়েছে ভারত। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৪২ লাখ ২৩ হাজার ৬৯৩ জন। সুস্থতা ও সংক্রমণ উভয় দিক বিবেচনায় তৃতীয় স্থানে রয়েছে লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল। দেশটিতে সুস্থ হয়েছেন ৩৮ লাখ ২০ হাজার ৯৫ জন।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
বিশ্ব

ট্রাম্পকে বিষ মাখানো চিঠি

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নামে পাঠানো একটি চিঠিতে রাইসিন নামক এক মারাত্মক বিষাক্ত পদার্থ মেশানো ছিল বলে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে মার্কিন গণমাধ্যম। তবে হোয়াইট হাউজে পৌঁছানোর আগেই সেই চিঠি জব্দ করা হয়েছে। এ রাইসিনের বিষক্রিয়া প্রতিরোধে কোনো প্রতিষেধক নেই।

হোয়াইট হাউজের ঠিকানায় পাঠানো যে কোনো চিঠি সেখানে পৌঁছানোর আগেই পরীক্ষার জন্য একটি আলাদা কার্যালয় রয়েছে। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন সেখানেই বিষয়টি ধরা পরে।

যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন বা সিডিসি বলছে, রাইসিন এতটাই বিষাক্ত যে মাত্র কয়েক ফোটা লবণ দানার পরিমাণ একজন প্রাপ্ত বয়স্ক ব্যক্তির মৃত্যু ঘটাতে পারে। রাইসিন কোনোভাবে পেটে গেলে বা নিশ্বাসের সঙ্গে অথবা ইনজেকশনের মাধ্যমে শরীরে প্রবেশ করলে মাথা ঘোরা, বমি শুরু হয়। এরপর শরীরের অঙ্গপ্রত্যঙ্গ বিকল হতে থাকে। কতটুকু পরিমাণ রাইসিন শরীরে প্রবেশ করেছে তার ওপর নির্ভর করে ৩৬ থেকে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে মৃত্যু ঘটে।

মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই এবং প্রেসিডেন্টের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সিক্রেট সার্ভিস এখন তদন্ত করে দেখছে যে এই চিঠি কোথা থেকে পাঠানো হয়েছে।

অন্য আরও কাউকে একই ধরনের চিঠি পাঠানো হয়েছে কিনা সেটিও তদন্ত করছে সংস্থা দুটি।

নিউ ইয়র্ক টাইমসকে আর এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন চিঠিটি কানাডা থেকে পাঠানো হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

এর আগেও হোয়াইট হাউজকে উদ্দেশ্য করে রাইসিন মেশানো চিঠি পাঠানোর ঘটনা ঘটেছে।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
বিশ্ব

করোনায় প্রতিটি মৃত্যুর দায় ট্রাম্পের: জো বাইডেন

আসন্ন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট দলের প্রার্থী জো বাইডেন এবার সরাসরি করোনা মহামারি ঠেকানোর ব্যর্থতার দায়ে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ক্ষমতা ছেড়ে দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসকে সামাল দিতে ব্যর্থতার দায় স্বীকার করে ট্রাম্পের পদত্যাগ করা উচিত।

বাইডেন ১৯ সেপ্টেম্বর শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়া অঙ্গরাজ্যে একটি নির্বাচনী জনসভায় বলেন, আমেরিকায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রতিটি মৃত্যুর জন্য ট্রাম্প দায়ী।

সাবেক মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট বাইডেন বলেন, ‘‌প্রেসিডেন্ট যদি শুরু থেকে তার দায়িত্ব পালন করতেন তাহলে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণকারী সব মানুষ এখন জীবিত থাকত।’

তিনি অভিযোগ করেন, শেয়ার বাজার ও নির্বাচন ছাড়া ট্রাম্পের আর কোনো কিছু নিয়ে মাথাব্যথা নেই। কাজেই এমন এক ব্যক্তির প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালনের যোগ্যতা নেই।

আমেরিকায় টানা কয়েক সপ্তাহ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা কম থাকার পর গত সপ্তাহ থেকে আবার তা বেড়ে গেছে। বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর দিক দিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সব দেশের শীর্ষে অবস্থান করছে। এজন্য মার্কিন জনগণ গোড়ার দিকে এই ভাইরাসের ভয়াবহ ক্ষতিকর দিকটিকে উপেক্ষা করার জন্য প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে অভিযুক্ত করছেন।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
বিশ্ব

বিশ্বে করোনাজয়ী সোয়া ২ কোটির বেশি

বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলছে। ভ্যাকসিন আবিষ্কার না হওয়ায় এ ভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যাও বাড়ছে দিন দিন। আশার খবর হলো ভাইরাসটির কবল থেকে সুস্থতার হারও দিন দিন বাড়ছে। বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাস জয় করেছেন ২ কোটি ২৫ লাখ ৮৩ হাজার ৩৩৮ জন। আর ভাইরাসটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ইতোমধ্যে ৩ কোটি ৯ লাখ ছাড়িয়েছে। ২০ সেপ্টেম্বর রোববার সকাল ৯টার দিকে আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, করোনা ভাইরাস বৈশ্বিক মহামারিতে এ পর্যন্ত বিশ্বের ২১৫টি দেশ ও অঞ্চল আক্রান্ত হয়েছে। এ পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩ কোটি ৯ লাখ ৮৩ হাজার ৯৫৮ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৯ লাখ ৬১ হাজার ৪০০ জনের। ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২ কোটি ২৫ লাখ ৮৩ হাজার ৩৩৮ জন।

ওয়ার্ল্ডোমিটারস-এর তথ্য অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৬৯ লাখ ৬৭ হাজর ৪০৩ জন। মৃত্যু হয়েছে দুই লাখ তিন হাজার ৮২৪ জনের।

আক্রান্তের হিসাবে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভারত। দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৫৩ লাখ ৯৮ হাজার ২৩০ জন। এর মধ্যে ৮৬ হাজার ৭৭৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। তৃতীয় স্থানে রয়েছে ব্রাজিল।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
বিশ্ব

বিশ্ব আজও করোনা জ্বরে কাঁপছে

বিশ্ব আজও করোনা জ্বরে কাঁপছে। জীবন প্রবাহে নিত্য প্রবাহিত হচ্ছে নতুন অভিজ্ঞতা। দেশ-রাষ্ট্র, সমাজ, সভ্যতা, কৃষ্টি-কালচারে এনেছে নতুন মাত্রা। বেড়েই চলছে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব।

করোনার ছোবলে কেউ হারিয়েছেন মা, কেউ সন্তান, কেউবা পিতা, আবার কেউ ভাই-বোনসহ স্বজন হারিয়েছেন এই করোনার ছোবলে। সুস্থ হওয়ার সংখ্যা নেহাত কম না।

সারা বিশ্বে করোনায় শনাক্তের সংখ্যা প্রায় ৩ কোটি ৬ লাখ ৯১ হাজার ছাড়িয়েছে। আর মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৯ লাখ ৫৬ হাজার। আর সুস্থতা লাভ করেছেন ২ কোটি ২৩ লাখের উপরে করোনা রোগী।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, ১৯ সেপ্টেম্বর শনিবার সকাল পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৬ হাজার ১১৬ জন। মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯ লাখ ৫৬ হাজার ৩৯৬ জনে।

অপরদিকে ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছে ৩ লাখ ৪৯ হাজার ১৯৩ জন। এতে করে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ কোটি ৬ লাখ ৯১ হাজার ২৩২ জনে।

আর গত এক দিনে মোট সুস্থতা লাভ করেছেন ৩ লাখ ৮০৯ জন। এ নিয়ে সুস্থতার সংখ্যা ২ কোটি ২৩ লাখ ৩৩ হাজার ৮০৯ জন।

এ মৃত্যু তালিকায় যুক্তরাষ্ট্র, ভারত, ব্রাজিল, মেক্সিকোর নাগরিকদের সংখ্যাটা বেশি। তবে এখন পর্যন্ত করোনায় সবচেয়ে বেশি মৃত্যু ও শনাক্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৬৯ লাখ ২৫ হাজার ৯৪১ জন মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে মারা গেছেন ২ লাখ ৩ হাজার ১৭১ জন।

শনাক্তের তালিকায় ২য় ভারতে গত এক দিনে প্রায় এক লাখ করোনা রোগী পাওয়া গেছে। এতে করে আক্রান্তের সংখ্যা ৫৩ লাখ ৫ হাজার ৪৭৫ জন। মারা গেছেন ৮৫ হাজার ৬২৫ জন।

মৃত্যুর তালিকায় ২ অবস্থানে থাকা ব্রাজিলে সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে ৪৪ লাখ ৯৭ হাজার ৪৩৪ জনে দাঁড়িয়েছে। প্রাণহানি বেড়ে ১ লাখ ৩৫ হাজার ৮৫৭ জনে ঠেকেছে।

রাশিয়ায় শনাক্তের সংখ্যা ১০ লাখ ৯১ হাজার ১৮৬ জন। বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১৯ হাজার ১৯৫ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

গেল বছরের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম মানবদেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। এরপর বিশ্বের প্রায় ১১৫টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পরে ভাইরাসটি।

ভয়েস টিভি/টিআর

Categories
বিশ্ব

ইসরায়েলের সঙ্গে চুক্তির প্রতিবাদে বাহরাইনে বিক্ষোভ চলছেই

ইহুদিবাদী ইসরায়েলের সঙ্গে সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং বাহরাইন সম্পর্ক স্বাভাবিক করার চুক্তিতে সই করার পর বাহারাইনে টানা ষষ্ঠ দিনের মতো বিক্ষোভ চলছে।

নিরাপত্তা বাহিনীর কঠোর প্রস্তুতির মুখেও বিক্ষোভকারীরা রাজধানী মানামাসহ সারাদেশে প্রতিবাদ মিছিল নিয়ে রাস্তায় নামেন। বাহরাইনের লুলু স্যাটেলাইট টেলিভিশনের খবরে এ বিক্ষোভের তথ্য জানানো হয়।

বিক্ষোভকারীরা এসময় আমেরিকা ও ইসরায়েলের ধ্বংস কামনা করে লেখা ব্যানার এবং ফেস্টুন প্রদর্শন করেন। এসময় তারা ইহুদিবাদী ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার বিরুদ্ধে বিভিন্ন রকম স্লোগান দেন। বিক্ষোভকারীদের হাতে ফিলিস্তিনের ছোট-বড় বিভিন্ন আকারের পতাকাও দেখা যায়।

বিক্ষোভকারীরা জানিয়েছেন, বাহরাইনের জনগণ ফিলিস্তিনি জনগণের পাশেই রয়েছে।

ভয়েস টিভি/এসএফ

Categories
বিশ্ব

চীনে এবার ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ, আক্রান্ত ৩ হাজার

করোনা ভাইরাসের উৎপত্তিস্থল চীনে এবার ছড়িয়ে পড়েছে নতুন এক ধরনের ব্যাকটেরিয়া। দেশেটির উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে  ব্রুসেলোসিস নামে এ ব্যাকটেরিয়ায়   এরই মধ্যে তিন হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন।

এর প্রাদুর্ভাবকে ল্যানজো বায়োফার্মাসিউটিকাল কারখানায় গ্যাস লিক হওয়াকে দায়ী করা হচ্ছে। ব্রুসেলোসিসে  আক্রান্ত প্রাণীদের কেউ সংস্পর্শ এলে মানুষ সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

এই রোগের লক্ষণগুলোর মধ্যে রয়েছে মাথাব্যথা, মাংসপেশীতে ব্যথা, জ্বর ও অবসাদ। নিশ্বাসের মাধ্যমে এই ব্যাকটেরিয়ায় আক্রান্ত হয় বলে জানিয়েছে মার্কিন রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্র সিডিসি।

সংস্থাটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ব্রুসেলোসিস মাল্টা বা ভূমধ্যসাগরীয় জ্বর নামেও পরিচিত। মূলত প্রাণী থেকে মানুষের মধ্যে এর সংক্রমণ ঘটে।

পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে গানসু প্রদেশের লানচৌ শহরের ২৯ লাখ বাসিন্দার মধ্যে ২১ হাজারের বেশি মানুষের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে।

ইতোমধ্যে ওই এলাকার তিন হাজার ২৪৫ জনের ব্রুসেলোসিস রোগ সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া গেছে। আরও এক হাজার ৪০১ জনের মধ্যে প্রাথমিকভাবে এর উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে। তবে এখনও মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত ৯ লাখ ৫০ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। সংক্রমণের সংখ্যাও তিনকোটি ছাড়িয়েছে।

ভয়েস টিভি/টিআর